Advertisement
২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Relationship

বিচ্ছেদের পরেও যৌন সম্পর্ক, দেখা যাচ্ছে যত্রতত্রই

সামাজিক ভাবে বিচ্ছেদের পরে যৌন সম্পর্ক রেখে দেওয়ার চল যথেষ্টই রয়েছে আপনাদের সকলের আশপাশে।

বিয়ের পরেও শারীরিক সম্পর্ক রাখছেন অনেকে।

বিয়ের পরেও শারীরিক সম্পর্ক রাখছেন অনেকে।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৮:২৫
Share: Save:

বিয়েটা ভেঙে গিয়েছে মাস কয়েক হল। তবু শারীরিক সম্পর্ক রয়েছে!
চোখ কপালে উঠছে তো?
কিন্তু অবাক হওয়ার কিছুই নেই। এমনটা হচ্ছে যত্রতত্রই। হয়তো বা আগেও হতো। কিন্তু বলা হতো না সকলের সামনে। এখন সামনে আসছে বেশি। আজকাল আর এমন সম্পর্ক লুকোনোর কিছু নেই। বরং জেনে রাখা ভাল, সামাজিক ভাবে বিচ্ছেদের পরে যৌন সম্পর্ক রেখে দেওয়ার চল যথেষ্টই রয়েছে সকলের আশপাশে। এমন যৌন সম্পর্ক এখন গোটা দুনিয়া জুড়েই এখন ‘ব্রেক আপ সেক্স’ বলেই পরিচিত।
কিন্তু সম্পর্ক যদি ভাঙলই, তবে আবার যৌনতার টানে বাধা পড়া কেন?
সম্পর্ক ভাঙার সময়ে দু’তরফের ইচ্ছে এ রকম হয় না। এক জন ভাঙতে চাইলে, অন্য জন নাও চাইতে পারে। ফলে দু’জনের সম্পর্কে এক জন তুলনায় বেশি নরম পরিস্থিতিতেই থাকেন। ফলে এত দিন অভ্যাসটা বজায় রাখার ইচ্ছেও তাঁর থাকে। অন্য তরফও অনেক সময়েই পুরনো সঙ্গীকে ছেড়ে যেতে চাইলেও, সম্পর্কের আরামের জায়গাটা আগলেই রাখতে চান কঠিন সেই সময়ে। ফলে অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায়, দু’জন মানুষ একসঙ্গে আর সামাজিক ভাবে না থাকলেও মাঝেমাঝে রাত কাটাচ্ছেন একে-অপরের বাড়িতে।
আর অনেকেরই বক্তব্য, আগের থেকেও বেশি সুখের বিচ্ছেদের সময়ের এই যৌন সম্পর্ক। যা আর কখনও পাওয়া যাবে না, তা তো সব সময়েই বেশি টানে মনকে। আনন্দও বেশি দেয়।
কিন্তু বিচ্ছেদের পরেও যৌন সম্পর্ক রাখা কি স্বাস্থ্যকর?
সামাজিক নিয়মের কথা না ভাবলে এতে আর কোনওই ক্ষতি নেই বলে মনে করাচ্ছেন দেশ-বিদেশের মনোবিদেরা। তাঁরা জানাচ্ছেন, যৌন সম্পর্ক এমন কিছু হর্মোন তৈরি করতে সাহায্য করে, যা কি না মনে আনন্দ বাড়ায়। এমন কঠিন সময়ে যদি মন আনন্দে থাকার রসদ পায়, তবে তাতে খারাপ কিছু নয় বলেই মত মনোবিদদের।
এ কি তবে শেষ হইয়াও তবে হইল না শেষ? তা ঠিক নয়। বরং বলা যায়, শেষের সে সময় যাতে ততটাও ভয়ঙ্কর না হয়, এ যেন তারই চেষ্টা!

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE