• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

চিনি দিয়েই এ বার ফিরবে ত্বকের চাকচিক্য, কেমন করে?

sugar
পেটে নয়, ত্বকে দিন চিনি। ছবি: আইস্টক।

Advertisement

ওবেসিটি, ডায়াবিটিসের চোখরাঙানিতে পাত থেকে বাদ পড়েছে চিনি। তবে পেটে না সইলেও ত্বকে সওয়ালে আখেরে লাভ আপনারই। ভাবছেন, এ আবার কেমন কথা! ত্বকের কালো দাগ তুলতে চিনির কেরামতি জানা আছে, কিন্তু তা বলে রূপচর্চায় গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হিসেবে চিনির ব্যবহার!

হ্যাঁ, প্রাকৃতিক এই স্ক্রাবারকে ত্বকের অন্যতম সেরা যত্নের উপাদান বলে তকমা দিচ্ছেন রূপবিশেষজ্ঞ শর্মিলা সিংহ ফ্লোরা। শুধু লেবুর রসের সঙ্গে মিশিয়ে কনুইয়ের কালো দাগ তোলা ছাড়াও আরও অনেক ম্যাজিকাল গুণ রয়েছে এর। ত্বকের ঔজ্জ্বল্য ধরে রাখার সঙ্গে ঠোঁটকে নরম রাখতে, স্ট্রেচ মার্ক সরাতেও এর ভূমিকা অনস্বীকার্য।

ত্বকের কোন কোন বিশেষ যত্নে চিনি কার্যকর, জানেন? রইল হদিস।

আরও পড়ুন: জরায়ুমুখের ক্যানসার আটকে দিতে পারে কিছু নিয়ম, কী ভাবে সতর্ক হবেন

এক্সফোলিয়েশন: ত্বকের মৃত কোষ তোলা চিনির অন্যতম কাজ। অলিভ অয়েল ও কয়েক ফোঁটা নারকেল তেলের সঙ্গে এক চামচ চিনি মিশিয়ে স্ক্রাব করুন মুখে। যত ক্ষম না চিনি গলে যায়, তত ক্ষণই স্ক্রাবিং করুন। এর পর ঠান্ডা জলে ধুয়ে নিন মুখ। মৃত কোষ উঠে ঝলমলে হবে ত্বক।

 চিনির গুণেই ফিরবে ত্বকের গ্লো।

গ্লো: ত্বকের ঔজ্জ্বল্য ফেরাতে চিনির ভূমিকা অনেকটাই। কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল ও এক চামচ লেবুর রসের সঙ্গে চিনি মিশিয়ে লাগিয়ে রাখুন মুখে। মিনিট ১৫ পর ধুয়ে নিন মুখ। ধোওয়ার সময় স্ক্রাব করেও নিতে পারেন।

আরও পড়ুন: বসে বসে মাথার কাজেই রোগ ঢুকছে শরীরে, ব্যারাম আটকাতে মানতেই হবে এ সব

ঠোঁট ফাটা: চিনির কেরামতিতে আটকাতে পারেন ঠোঁট ফাটার সমস্যাও। বিটের রস ও চিনি মিশিয়ে লাগিয়ে নিন ঠোঁটে। নরম ও লালচে হওয়ার পাশাপাশি ফাটবেও না ঠোঁট।

স্ট্রেচ মার্ক:  হঠাৎ ওজন কমলে বা বাড়লে ত্বকে স্ট্রেচ মার্ক পড়ে। প্রেগন্যান্সির পরেও এমন দাগ দেখা যায়। তেমন সমস্যা হলে কফি, চিনি, আমন্ড তেল ও মধু মিশিয়ে নিয়মিত মালিশ করুন। ধীরে ধীরে হালকা হবে স্ট্রেচ মার্ক।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন