Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

মন হবে সতেজ, বাড়িতেই এ বার পার্লারের মতো স্পা

সুজাতা মুখোপাধ্যায়
কলকাতা ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৪:১৫
পার্লারের মতোই স্পা এ বার বাড়িতেও। ফাইল ছবি।

পার্লারের মতোই স্পা এ বার বাড়িতেও। ফাইল ছবি।

'ওয়ার্ক ফ্রম হোম'-এর কারণে বাড়িতে থেকেও কোনও সময় নেই বেশিরভাগ মানুষেরই। সারা শরীরে ব্যথার সমস্যাও বেড়েছে। এ দিকে অনেক আবাসনে বা বাড়িতে এখন পরিচারিকা আসছেন না, তাই বাড়ির সব কাজ নিজেকেই করতে হচ্ছে৷ সমানাধিকারের যুগেও বাড়ির সব কাজ মহিলাদেরই করতে হচ্ছে। তাই নিজের যত্ন নিতে মাঝে মাঝে স্পা করতে পারেন। এতে মনও ভাল থাকে। শরীরও তরতাজা হয়ে ওঠে। তবে স্পা কিন্তু মহিলা ও পুরুষ উভয়েই করতে পারেন। নিউ নর্ম্যাল জীবনে মানসিক চাপ বেড়েছে অনেকটাই। সেই চাপ কাটাতেও পার্লারের মতো 'রিল্যাক্সিং স্পা' করতে পারেন বাড়িতেই।

ঘরেই মিলবে স্পা-এর আরাম

নিজের জন্য ২ ঘণ্টা সময় বের করে নিতে হবে। ফোন বন্ধ করে রাখুন। প্রয়োজনে বাড়ির সদস্যদের জানিয়ে দিন, যাতে আপনাকে এ সময় কেউ বিরক্ত না করে। গিজারের সুইচ অন করুন কিংবা জল গরম করার ব্যবস্থা করুন। সঙ্গে হালকা গান বা বাদ্যযন্ত্র চালিয়ে দিতে হবে৷ বাটিতে কিছুটা গোলাপ জলে তুলোর প্যাড ডুবিয়ে ফ্রিজে ঠান্ডা হতে দিন৷

Advertisement

• আধ বালতি ঈষদুষ্ণ গরম জলে এক চামচ বাথ সল্ট বা না থাকলে এক চামচ নুন দিয়ে পা ডুবিয়ে বসে থাকুন মিনিট ১০-১৫৷ সারা দিন দাঁড়িয়ে, বসে, ঝুঁকে হাজারো কাজ করে পায়ে যে ব্যথা হয়েছে তাতে একটু হলেও প্রলেপ পড়বে৷

আরও পড়ুন: নিউ নর্মালে নানা রোগ বাড়াচ্ছে দূষণ​

• ইচ্ছে হলে সাবান ও ব্রাশ দিয়ে ঘষে পা একটু পরিষ্কারও করে নিতে পারেন৷ ব্যথার জায়গাগুলো আলতো করে ম্যাসাজ করা যেতে পারে।

•বাথটব থাকলে তো কথাই নেই, উষ্ণ জলে ফোম বাথ নিতে পারবেন। নইলে উষ্ণ ধারাস্নান করুন৷ শরীরের সব পেশি-সন্ধি ‘রিল্যাক্সড’ হবে।

• বসে কাজ করার জন্য ঘাড় ও কোমরে ব্যথা হলে সে সব জায়গা দিয়ে গরম জল বয়ে যেতে দিন একটু বেশি সময় ধরে৷ ব্যথা অনেকটাই কমবে৷ লুফা ও সুগন্ধি সাবানে ঘষে গা পরিষ্কার করতে হবে। মরা কোষ উঠে যাবে। ত্বক ঝকঝকে হয়ে উঠবে৷ সুগন্ধে মনও তরতাজা হয়ে উঠবে।

আরও পড়ুন: সব সময় শাসন নয়, ‘স্পেস’ দিন শিশুদেরও

• বালতির জলে সুগন্ধি বাথ সল্ট মিশিয়েও ব্যবহার করতে পারেন। না থাকলে সাধারণ নুন মিশিয়ে নিন। খসখসে ত্বকে জল বেশিক্ষণ ধরে রাখতে নুনের ভূমিকা রয়েছে।



এসেনশিয়াল ওয়েলও স্নানের জলে মিশিয়ে নিতে পারেন। ফাইল ছবি।

•অনেকে জলে সুগন্ধী এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে নিতে পছন্দ করেন৷ না থাকলে দু-ফোঁটা কোলনও মিশিয়ে নিতে পারেন৷ বেশ তরতাজা লাগবে।

•পরিষ্কার নরম তোয়ালেতে গা মুছে ক্রিম বা ময়েশ্চারাইজার লাগান ভাল করে ঘষে ঘষে। ম্যাসাজের আরাম যেমন হবে, ত্বকও হবে নরম।

আরও পড়ুন: ‘হার্ড ইমিউনিটি’ গড়ে উঠতে আর কত দিন, ভ্যাকসিনই বা কবে?​

• ঢিলেঢালা সুতির পোশাক পরে শুয়ে পড়ুন। চোখে-মুখে চাপা দিন ঠান্ডা গোলাপ জলে ভেজানো তুলো। গরম হয়ে গেলে আবার ভিজিয়ে নিন৷ ৫-১০ মিনিট শুয়ে থাকুন।

• ইচ্ছে হলে ফ্রিজে রাখা ঠান্ডা শশার রস মুখে লাগিয়ে রাখুন খানিক ক্ষণ। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে নিন ঠান্ডা জলের ঝাপটায়।ত্বক শুকনো লাগলে একটু ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিতে পারেন।

•এর পর একটু ঘুম নয়তো পছন্দের পানীয় বা ফলের রসে চুমুক দিতে দিতে বই পড়া বা গান শোনা৷ ব্যস৷

তাই চিন্তার কোনও কারণ নেই৷ করোনা আবহে বাড়িতেই মন ভাল রাখতে পারবেন স্পায়ের মাধ্যমে৷

আরও পড়ুন

Advertisement