Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৪ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Viral: বিয়েবাড়ির আওয়াজ কমাতে এসে নিজেরাই শুরু করে দিলেন ভাংড়া, ভাইরাল দুই পুলিশকর্মীর নাচ

স্থানীয় আইন অনুসারে রাত সাড়ে ৯টার পর তারস্বরে গান-বাজনা নিষিদ্ধ। ডেপুটি শেরিফকে দেখে স্বভাবতই হাত-পা ঠান্ডা হওয়ার উপক্রম বাড়ির লোকের।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৩ মে ২০২২ ১৪:১৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
হঠাৎই বিয়েতে হাজির পুলিশ

হঠাৎই বিয়েতে হাজির পুলিশ
ছবি: সংগৃহীত

Popup Close

ক্যালিফোর্নিয়ার সান জোয়াকুইন কাউন্টিতে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হচ্ছিলেন প্রবাসী ভারতীয় মন্দিভর তূর ও তাঁর বাগদত্তা রমন। পঞ্জাবি সংস্কৃতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে সজোরে গান বাজিয়ে চলছিল উদ্দাম ভাংড়া নাচ। হঠাৎই বিয়েতে হাজির পুলিশ।
প্রাথমিক ভাবে চূড়ান্ত ঘাবড়ে গিয়েছিলেন বর-কনের বাড়ির লোক। কারণ আর কিছুই নয়, স্থানীয় আইন অনুসারে রাত সাড়ে ৯টার পর তারস্বরে গান-বাজনা একেবারেই নিষিদ্ধ সেখানে। তাই ডেপুটি শেরিফকে দেখে স্বভাবতই হাত-পা ঠান্ডা হয়ে যাওয়ার উপক্রম। কিন্তু তারপর যা ঘটল তাতে যুগপৎ আপ্লুত ও বিস্মিত বর-কনে দু’জনার বাড়ির লোকই। ধরপাকড় তো দূর, উল্টে গানের তালে নিজেরাই নাচতে শুরু করে দিলেন পুলিশকর্মীরা।

Advertisement

মন্দিভরের দিদি মনপ্রীত জানান, গোটা বিষয়ে প্রথমে হতবাক হয়ে গিয়েছিলেন তাঁরা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পুলিশকর্মীদের সঙ্গে ফের নাচতে শুরু করে দেন তাঁরা। এমনকি দুই অতিথিকে নাচের কায়দাও শিখিয়ে দেন তাঁরা। ঠিক মতো নাচতে দুই পুলিশকর্মীকে ‘একবার দরজার হাতল ঘোরানোর মতো, আর পরের বার বাল্ব লাগানোর মতো করে হাত ঘোরানোর’ পরামর্শ দেন মনপ্রীত।

দুই পুলিশকর্মীর নাচ ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে নেটমাধ্যমে। সান জোয়াকুইন কাউন্টির শেরিফের অফিস থেকেও আপ্যায়নের জন্য সাধুবাদ জানানো হয়েছে নবদম্পতি ও তাঁদের পরিবারকে। কিন্তু তাই বলে কি আইন ভেঙেই চলল এত কাণ্ড? সান জোয়াকুইন কাউন্টির শেরিফের অফিস থেকে জানানো হয়েছে, নাচের পরেই আওয়াজ কমিয়ে ফেলার নির্দেশ যথাযথ ভাবে পালন করেন বিয়ে বাড়ির লোক।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement