• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

গেস্ট হাউসে বন্দি রেখে ৪০ জন মিলে ধর্ষণ করল মহিলাকে!

representative image
প্রতীকী ছবি।

গেস্ট হাউসে চার দিন ধরে আটকে রেখে ৪০ জন মিলে ধর্ষণ করলেন এক মহিলাকে। ঘটনাটি ঘটেছে হরিয়ানার পাঁচকুলায়।এই ঘটনা চেন্নাইয়ের এক আবাসনে নাবালিকাকে ১৭ জন মিলে ধর্ষণের ঘটনার স্মৃতি উস্কে দিয়েছে।

ঠিক কী হয়েছিল?

অভিযোগকারী জানিয়েছেন, মর্নি হিলসের ওই গেস্ট হাউসে কাজ পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তাঁর স্বামীর পরিচিত এক ব্যক্তি।গেস্ট হাউসে তাঁকে দেখা করতে বলা হয়। কথামতো তিনি দেখাও করতে যান সেখানে। কিন্তু তাঁকে শিকার বানানোর জন্য যে ফাঁদ পেতে রাখা হয়েছিল সেটা ঘুণাক্ষরেওটের পাননি।

আরও পড়ুন: ধর্ষণের আগে প্রসব যন্ত্রণা কমানোর ওষুধ দেওয়া হত নাবালিকাকে!

মহিলা পুলিশকে জানিয়েছেন, গত ১৫ জুলাই তিনি গেস্ট হাউসে গিয়েছিলেন। সেখানে তাঁর স্বামীর পরিচিত ওই ব্যক্তির সঙ্গে আরও কয়েক জন ছিলেন। গেস্ট হাউসে ঢোকা মাত্রইতাঁকে একটা ঘরের মধ্যে বন্দি করে রাখা হয়। ১৮ জুলাই পর্যন্ত তাঁকে বন্দি করে রাখা হয়েছিল ওই ঘরে। আর এই চার দিনে ৪০ জন লোক এসে তাঁকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় জড়িত গেস্ট হাউসের দুই কর্মীকে গ্রেফতার করেছেপুলিশ। মনিমাজরা থানার আধিকারিক রঞ্জিত সিংহ জানান, একটি মামলা রুজু করা হয়েছে। তদন্ত চলছে।

গত কয়েক দিন আগেই চেন্নাইয়ের এক আবাসনে এক নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠেআবাসনেরই নিরাপত্তারক্ষী, লিফ্টম্যান, প্লাম্বার এবং মেরামত কর্মী-সহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে। পরে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে।

আরও পড়ুন: ধর্ষণের আইনে হ্যাঁ-এর জোর

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন