• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

গায়ে গোলাপি রঙ, পায়ের রিংয়ে লেখা নম্বর, কাশ্মীরে উদ্ধার রহস্যময় পায়রা

Pigeon
পাকিস্তান থেকে উড়ে আসা সেই পায়রাটি।

জম্মু-কাশ্মীরে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে লাগাতার অভিযান চালাচ্ছে সেনা, আধাসেনা ও পুলিশ। এর মধ্যেই ধরা পড়ল সীমান্তের ওপার থেকে আসা এক ‘রহস্যময়’ পায়রা। গায়ে গোলাপি রং দিয়ে চিহ্নিত করা। পায়ে বাঁধা রিংয়ে বিভিন্ন সাঙ্কেতিক চিহ্ন। এ পায়রা সাধারণ না ‘গুপ্তচর’? ‘পরিচয়’ খুঁজে বের করতে কোমর বেঁধে নেমেছিল পুলিশ। গত রবিবার থেকে নানা অনুসন্ধান ও পরীক্ষানিরীক্ষার পর পুলিশ অবশ্য সন্দেহজনক কিছু পায়নি।

জম্মু-কাশ্মীর সীমান্তে পায়রার মাধ্যমে নজরদারি চালানোর ঘটনা নতুন নয়। এর আগেও একাধিক বার এমন ‘গুপ্তচর’ পায়রা ধরা পড়েছে। নিরাপত্তারক্ষীদের হাতে এসেছে নানা গোপন বার্তাও। গত রবিবার কাঠুয়া জেলার পাক সীমান্তবর্তী ছাদেওয়াল এলাকায় একটি বাড়িতে ঢুকে পড়ে সীমান্তের ওপার থেকে আসা ওই পায়রাটি। তার গায়ে গোলাপি রং করা। পায়ে বাঁধা রিংয়ে নানা সংখ্যা ও সাঙ্কেতিক চিহ্ন। তাতে সন্দেহ আরও ঘনিয়ে ওঠে। পায়রাটি বর্ডার সিকিওরিটি ফোর্স (বিএসএফ)-এর হাতে তুলে দেওয়া হয়।

তদন্ত চালিয়ে অবশ্য সন্দেহজনক কিছু পায়নি বিএসএফ। শেষ পযর্ন্ত বৃহস্পতিবার ছাদেওয়াল এলাকা থেকে পায়রাটি পাকিস্তানের দিকে উড়িয়ে দেন বিএসএফ কর্মীরা। পায়রাটির মালিক হাবিবুল্লা সীমান্তের ওপারে পাকিস্তানের একটি গ্রামের বাসিন্দা। সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে তিনি জানিয়েছেন, পায়রাটি একটি প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিল, তাই তার গায়ে গোলাপি রং করা। হাবিবুল্লার আরও দাবি, পায়রার পায়ে বাঁধা রিংয়ে তাঁরই মোবাইল নম্বর লেখা রয়েছে। পায়রাটি ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন: ‘স্বর্ণযুগের এক বছর’, বর্ষপূর্তিতে মোদীর চিঠি দেশবাসীকে​

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন