• নিজস্ব সংবাদদাতা 
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রাজনাথকে লাদাখ-হাল জানালেন ডোভালেরা 

Rajnath Singh - Ajit Doval
ছবি সংগৃহীত

পঞ্চম দফা কমান্ডার পর্যায়ের বৈঠকের পরেও পূর্ব-লাদাখের ভারত-চিন সীমান্তে অচলাবস্থা জারি রয়েছে। আজ সেই বৈঠকের বিষয়বস্তু নিয়ে বৈঠকে বসে চিন বিষয়ক স্টাডি গ্রুপ। যার সদস্য হলেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর ও জাতীয় সুরক্ষা উপদেষ্টা অজিত ডোভালের মতো সরকারের শীর্ষ নেতৃত্ব। বৈঠক শেষে ডোভাল ও জয়শঙ্কর দেখা করেন রাজনাথ সিংহের সঙ্গে। সীমান্ত পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করা হয় প্রতিরক্ষামন্ত্রীর কাছে। 

পূর্ব-লাদাখ সীমান্তে গত মে মাস থেকেই চিন সেনা অনুপ্রবেশ করে বড় মাপের এলাকা জবরদখল করে বসে রয়েছে। পাঁচটি কমান্ডার পর্যায়ের বৈঠকেই ভারত ওই জমি খালি করে দিয়ে চিনকে পিছু হটে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছে। কিন্তু বেজিং তা শুনতে নারাজ। গত পরশুর বৈঠকেও চিনকে প্যাংগং লেকের ফিঙ্গার চার থেকে আট পর্যন্ত এলাকা খালি করে দেওয়ার দাবি জানায় ভারত। 

চিনের পাল্টা যুক্তি, গত ১৯৯৯ সালেই ফিঙ্গার আট থেকে পাঁচ পর্যন্ত এলাকায় তারা রাস্তা তৈরি করেছে। সে কারণে ওই এলাকাটি তাদের। তাই কোনও ভাবেই ফিরে যেতে রাজি নয় তারা। উল্টে চিনের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, লাদাখ এলাকায় চিন সেনা প্রত্যাহারের কাজ সম্পূর্ণ করে ফেলেছে। যে দাবি খারিজ করে দিয়েছে নরেন্দ্র মোদী সরকার। সাউথ ব্লকের মতে, চিন সেনা পিছিয়ে যাওয়া তো দূর উল্টে ওই এলাকায় শীতের সময়ে পাকাপাকি থেকে যাওয়ার লক্ষ্যে পরিকাঠামো নির্মাণ শুরু করেছে। সূত্রের মতে, পাল্টা ভারতও সীমান্তে নির্মাণ কাজ শুরু করেছে। 

রবিবারের কমান্ডার পর্যায়ের বৈঠকের বিষয়বস্তু নিয়ে আজ বৈঠকে বসে চিন বিষয়ক স্টাডি গ্রুপ। এটি কেন্দ্রের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শদাতা কমিটি। আজ ওই গ্রুপের বৈঠকের পরেই রাজনাথের সঙ্গে দেখা করেন ডোভাল ও জয়শঙ্কর। বিষয়টি নিয়ে সরকারি ভাবে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে কিছু জানানো হয়নি। 

তবে সূত্রের মতে, আগামী এক-দু’দিনের মধ্যে এ নিয়ে মুখ খুলতে পারে বিদেশ মন্ত্রক।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন