সোনার গহনা বা রুপোর বাসন নয়, তার বদলে কিনতে হবে তরোয়াল। ধনতেরাসের আগে রাজ্যবাসীকে এমনই পরামর্শ দিলেন উত্তরপ্রদেশেবিজেপি নেতা গজরাজ রাণা। তাঁর যুক্তি, আগামী মাসের মাঝামাঝি সময়ে সুপ্রিম কোর্টে অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষণা হওয়ার কথা। তাতে রায় হিন্দুদের পক্ষে গেলেও পরিস্থিতি তেতে ওঠার সম্ভাবনা  রয়েছে। তাই আগেভাগে তৈরি হয়ে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন।

দেওবন্দের বিজেপি সভাপতি গজরাজ রাণার কথায়, ‘‘অযোধ্যা মামলায় খুব শীঘ্র রায় ঘোষণা করবে সুপ্রিম কোর্ট। রায় রামমন্দির নির্মাণের পক্ষেই যাবে বলে নিশ্চিত আমরা। তার পরেও পরিস্থিতি তেতে উঠতে পারে। তাই সোনার গহনা, রূপোর বাসনের পরিবর্তে তরোয়াল কিনে জমা করা উচিত।’’

তবে তিনি শুধুমাত্র পরামর্শ দিয়েছেন, মানুষ কী করবেন তা তাঁদের উপরই নির্ভর করছে বলে পরে সাফাই দেন গজরাজ। তাতে যদিও সমালোচনা থেকে রেহাই পাননি তিনি। এমন পরিস্থিতিতে বিজেপিও জানিয়ে দিয়েছে, গজরাজের মন্তব্যে একেবারেই সমর্থন নেই তাদের। উত্তরপ্রদেশে দলের মুখপাত্র চন্দ্রমোহন বলেন, ‘‘এই ধরনের মন্তব্য একেবারেই সমর্থন করে না বিজেপি। ওটা ওঁর ব্যক্তিগত মত।’’

আরও পড়ুন: ভারতীয় সেনার বড় প্রত্যাঘাত, অধিকৃত কাশ্মীরে বেশ কয়েকটি জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংস, হতাহত অনেক​

আরও পড়ুন: সংযুক্তিকরণের প্রতিবাদে মঙ্গলবার ব্যঙ্ক ধর্মঘটের ডাক তিন কর্মী সংগঠনের​

অবশ্য এই প্রথম নয়, এর আগেও একাধিক বার বিতর্ক বাধিয়েছেন গজরাজ রাণা। লোকসভা নির্বাচনের আগে দেওবন্দের দারুল উলুম ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়কে সন্ত্রাসের সমার্থক বলে মন্তব্য করেছিলেন। মক্কার ভিতর শিবলিঙ্গ রয়েছে বলেও একসময় বিতর্ক বাধিয়েছিলেন তিনি।