সন্দেহ আর অবিশ্বাসের ধোঁয়া সরাতে শেষ পর্যন্ত সভাপতি রাহুল গাঁধীর কৈলাসযাত্রার ছবি প্রকাশ করল কংগ্রেস। আর সে ছবি সামনে আসা মাত্রই তা ভাইরাল হল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

কংগ্রেস যে ছবিগুলি প্রকাশ করেছে, তার একটি ছবিতে রাহুলকে সহযাত্রীদের সঙ্গে বেসক্যাম্পে দেখা যাচ্ছে। অন্য আর একটি ছবিতে বরফে ঢাকা কৈলাস পর্বতের সামনে দেখা গিয়েছে কংগ্রেস সভাপতিকে।

কংগ্রেস সূত্রে খবর, গত ৩১ অগস্ট ২০ দিনের জন্য কৈলাস মানসরোবর তীর্থযাত্রা শুরু করেছেন রাহুল গাঁধী। নেপাল দিয়ে শুরু করা ওই সফরে তাঁর সঙ্গে আছেন গুজরাতের ২০ জন তীর্থযাত্রী ও দু’জন স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপের কমান্ডো। ওই সূত্রটি জানিয়েছে, সাধারণ তীর্থযাত্রীদের মতো তাঁবুতেই থাকছেন রাহুল। হাঁটছেন আর পাঁচজন তীর্থযাত্রীর সঙ্গেই।

অন্য তীর্থযাত্রীদের সঙ্গে তাঁবুতেই থাকছেন রাহুল, দাবি কংগ্রেসের। ছবি: কংগ্রেসের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে পাওয়া। 

আরও পড়ুন: জঙ্গিদের মুক্ত করার পরই সরানো হল জম্মু কাশ্মীরের পুলিশ প্রধানকে!

যদিও বেশ কিছু দিন ধরেই রাহুলের কৈলাসযাত্রাকে ব্যঙ্গ করে চলেছে বিজেপি-র একটি অংশ। আদৌ রাহুল তীর্থযাত্রায় যাননি, এমন কটাক্ষও করেছেন অনেকে। এক ধাপ এগিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ কিশোরের দাবি, ভুয়ো ছবি দিয়ে নিজের শিবভক্ত পরিচিতি তুলে ধরতে চাইছেন রাহুল। সে জন্য তিনি সামনে আনেন রাহুলের একটি ছবিকে। যেখানে এক সহ তীর্থযাত্রীর সঙ্গে তাঁকে একটি লাঠি হাতে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। গিরিরাজের দাবি, এই ছবিটি ভুয়ো, কারণ চড়া রোদে ছবি তুললেও লাঠির কোনও ছায়া দেখা যাচ্ছে না।  

এই ছবিটিকেই ভুয়ো বলেছেন বিজেপি নেতা গিরিরাজ কিশোর। ছবি: কংগ্রেসের টুইটার অ্যাকাউন্টের সৌজন্যে। 

বিতর্ক মাথাচাড়া দেওয়ার আগে তা ভুল প্রমাণ করতে শেষে মাঠে নামতে হল কংগ্রেসকে। সেই লক্ষ্যেই রাহুলের ‘ফিটবিট’ রেকর্ডও প্রকাশ করেছে কংগ্রেস। এই অ্যাপের মাধ্যমে কেউ কোনও নির্দিষ্ট সময়ে কত কিলোমিটার হেঁটেছেন সেই তথ্য রেকর্ড করা যায়। একই সঙ্গে হাঁটার সময় রক্তচাপ, হৃদস্পন্দন-সহ আরও বেশ কিছু শারীরিক অবস্থার রেকর্ড দেখা যায় এই অ্যাপের মাধ্যমে।

এ ছাড়া কৈলাসের পথে রাহুলের সহযাত্রী মিহির পটেল ও কেনন পটেলের সঙ্গেও ছবি প্রকাশ করেছে কংগ্রেস।

আরও পড়ুন: তফশিলি আইন নিয়ে সর্বদল বৈঠকের ডাক লোকসভার স্পিকারের

রাহুলের মানসরোবর যাত্রা নিয়ে কংগ্রেস উঠেপড়ে লাগায় এটা স্পষ্ট যে, বিজেপি-র অভিযোগকে যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়েই দেখছে তারা। পাশাপাশি এটাও পরিষ্কার যে, রাহুলের শিবভক্ত ভাবমূর্তিকেও ভবিষ্যতে রাজনৈতিক ভাবে ব্যবহার করতে চায় কংগ্রেস।  

(দেশজোড়া ঘটনার বাছাই করা সেরা বাংলা খবর পেতে পড়ুন আমাদের দেশ বিভাগ।)