• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ভারতের একতা বিশ্বের প্রেরণা, মোদীকে স্বস্তি দিয়ে বার্তা ট্রাম্পের

Modi Trump
মোতেরা স্টেডিয়ামে ডোনাল্ড ট্রাম্প ও নরেন্দ্র মোদী। ছবি: রয়টার্স

দেশ জুড়ে চলছে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) নিয়ে প্রতিবাদ প্রতিরোধ। তার মধ্যে আবার হোয়াইট হাউসের এক প্রশাসনিক কর্তা আগে ভাগেই বলে রেখেছিলেন, ভারতে এসে ধর্মীয় স্বাধীনতার কথা বলবেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। ফলে নয়াদিল্লির কর্তাদের রক্তচাপ বেড়ে গিয়েছিল। তবে আমদাবাদের মোতেরা স্টেডিয়ামে তেমনটা হল না। বরং নরেন্দ্র মোদী সরকারকে স্বস্তিই দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ‘বৈচিত্রের মধ্যে ঐক্য’-ভারতের এই চিরন্তন বৈশিষ্ট্য তুলে ধরলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন এখানকার শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতির উৎকর্ষ ও সমন্বয়ের কথা বলে।

সন্ত্রাস দমন, প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে সমন্বয়, বাণিজ্যের টানাপড়েন— এ সবের চেয়েও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সফরে ভারতের উদ্বেগ সবচেয়ে বেশি ছিল সম্ভবত সিএএ-এনআরসির মতো প্রসঙ্গ নিয়ে। এই প্রসঙ্গে ট্রাম্প মুখ খুললে ভারতের অস্বস্তি বাড়তে পারত। কিন্তু ট্রাম্প সে দিকে এগোলেন না। তিনি বললেন, ‘‘ভারত সারা বিশ্বে মানবতার আশা জাগিয়েছে। বিশ্বের সবচেয়ে বড় গণতন্ত্র গত ৭০ বছরে বিশ্বের অন্যতম মহান দেশ হিসেবে উঠে এসেছে।’’

নানা জাতি, নানা ধর্ম, নানা মতের দেশেও মানুষ কী ভাবে ঐক্যবদ্ধ হয়ে থাকেন সেই চিত্রই তুলে ধরতে চেয়েছেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, ‘‘এখানে হিন্দু, মুসলিম খ্রিস্টান— সব ধর্মের মানুষ একসঙ্গে ও শান্তিপূর্ণ ভাবে খাকেন। বহু জাতি, বহু ভাষা থাকলেও আপনারা সবাই মিলে ভারতীয় হিসেবে ঐক্যবদ্ধ।’’

আরও পডু়ন: সন্ত্রাস দমনে ব্যবস্থা নিতে হবে, ভারতে দাঁড়িয়ে ট্রাম্পের বার্তা পাকিস্তানকে

আরও পড়ুন: অপূর্ব উত্থানের চলমান গল্প আপনি, মোদীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ ট্রাম্প

শুধু ধর্মীয় ভাবধারার ক্ষেত্রেই নয়, শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতিতেও যে ভারত সারা বিশ্বে অগ্রগণ্য, সে কথাও এ দিন বলেছেন ট্রাম্প। তুলে এনেছেন সিনেমায় বলিউডের ‘দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে যায়েঙ্গে’, ক্রিকেটে সচিন তেন্ডুলকরের উদাহরণ। তিনি বলেন, ‘‘ভারত কৃষ্টি ও শিল্প-সাহিত্যেও উৎকর্ষ লাভ করেছে। শুধুমাত্র বলিউড থেকেই বছরের ২০০০ সিনেমা তৈরি হয়। ‘দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে যায়েঙ্গ’র মতো সিনেমা তৈরি হয়েছে। আবার ক্রিকেটে সচিন তেন্ডুলকরের মতো প্রতিভাও এই দেশের।’’

বন্ধুত্বের বার্তা দিয়ে ট্রাম্পের ঘোষণা, ‘‘আমেরিকা ভারতকে ভালবাসে ও শ্রদ্ধা করে। দুই দেশ সব সময় বিশ্বাসযোগ্য বন্ধু হিসেবেই থাকবে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন