এক দলিতকে পিটিয়ে খুন করা হল রাজস্থানে। জলের পাম্প চুরির অভিযোগে। শনিবার সকালের ঘটনা।

পুলিশ জানাচ্ছে, ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের ঝালাওয়াড় জেলার মেওয়াখেড়া গ্রামে। মেওয়াখেড়া থানার স্টেশন হাউস অফিসার (এসএইচও) নাইনুরাম মিনা জানিয়েছেন, পুরিলাম তানওয়াড় নামে গ্রামের ৬০ বছর বয়সী এক ব্যক্তি তাঁর দুই ছেলে মোহন ও দেবীকে নিয়ে চড়াও হয় দলিত ধূলিচাঁদ মিনার (৪০) উপর। তাঁদের সঙ্গে ছিলেন অজ্ঞাতপরিচয় আরও কয়েক জন।

ওই সময় ধূলিচাঁদ একটি জরুরি কাজে যাচ্ছিলেন পাশের গ্রামে। জলের পাম্প চুরির অভিযোগ নিয়ে তাঁরা ঘিরে ফেলেন ধূলিচাঁদকে। শুরু হয় কথা কাটাকাটি। তার পরেই তাঁরা ধূলিচাঁদকে বেধড়ক মারধর করতে শুরু করেন। মারের চোটে রাস্তায় প্রায় অচৈতন্যের মতো পড়ে থাকতে দেখা যায় ধূলিচাঁদকে।

খবর পেয়ে গুরুতর জখম ছেলেকে নিয়ে আসতে ঘটনাস্থলে পৌঁছন ধূলিচাঁদের বাবা। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় ধূলিচাঁদকে নিয়ে যাওয়া হয় স্থানীয় একটি হাসপাতালে। সেখানে চিকিৎসকরা ধূলিচাঁদকে মৃত ঘোষণা করেন। ময়নাতদন্তের পর পুলিশ ধূলিচাঁদের দেহ তাঁর পরিবারের হাতে তুলে দিয়েছে।

আরও পড়ুন- ছেলেধরা সন্দেহে দু’জনকে ‘মারধর’​

আরও পড়ুন- গুজবে তেতে মারধর চার জনকে​

পুলিশের বক্তব্য, প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, জলের পাম্প চুরির জন্য শুক্রবারই ধূলিচাঁদের বাবার কাছে তাঁর ছেলের নামে নালিশ করেছিলেন পুরিলাম। তখন ধূলিচাঁদের বাবা তাঁর ছেলেকে তিরস্কারও করেন। পুরিলামকে বলেন, ধূলিচাঁদের নামে থানায় অভিযোগ জানাতে।