নাশকতা চালাতে সীমান্ত পেরিয়ে দেশে ঢুকেছে চার আফগান বংশোদ্ভূত জঙ্গি। এই গোয়েন্দা রিপোর্ট ঘিরেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মধ্যপ্রদেশে। গুজরাত ও রাজস্থান সীমানায় অবস্থিত রাজ্যের আট জেলায় সতর্কতা জারি করা হয়েছে। বিভিন্ন এলাকায় চলছে তল্লাশি। প্রকাশ করা হয়েছে জঙ্গিদের স্কেচও।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সীমান্ত পেরিয়ে জঙ্গি অনুপ্রবেশের খবর প্রকাশ্যে আসে সোমবার সন্ধ্যায়। আর তারপর থেকেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে গুজরাতের সীমানার কাছাকাছি থাকা মধ্যপ্রদেশের ঝাবুয়া, আলিরাজপুর, ধর ও বারওয়ানি জেলায়। তল্লাশি চলছে রাজস্থানের সীমানায় থাকা মধ্যপ্রদেশের রতলাম, মন্দসৌর, নিমুচ ও আগর-মালওয়া জেলাতেও। রাজস্থান ও গুজরাত থেকে আসা ট্রেনগুলিতেও চলছে চিরুনি তল্লাশি। মধ্যপ্রদেশের রতলাম জংশন থেকে নিউদিল্লি ও মুম্বইয়ের মতো দেশের দুই গুরুত্বপূর্ণ স্থানে যাওয়া যায়। সেই রতলাম জংশনেই সবচেয়ে বেশি নজরদারি চলছে। এক জঙ্গির স্কেচও সমস্ত থানা ও আউট পোস্টগুলিতে পাঠিয়েছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই জঙ্গি উত্তর-পূর্ব আফগানিস্তানের কুনার প্রদেশের বাসিন্দা।

জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতির জেরে ভারত-পাকিস্তান সীমান্ত এলাকায় কড়া নজরদারি জারি রয়েছে। কিন্তু,এর মধ্যেও কী ভাবে চার জঙ্গি ঢুকে পড়ল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। এর আগেও মধ্যপ্রদেশে জঙ্গিদের আনাগোনা নজরে এসেছিল দেশের গোয়েন্দা সংস্থাগুলির। কিছু দিন আগেই, ইনদওরের আজাদ নগর থেকে খাগড়াগড় বিস্ফোরণের অন্যতম মূল অভিযুক্ত জহিরুল শেখকে গ্রেফতার করে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা।

আরও পড়ুন: গ্রেফতারিতে রক্ষাকবচের আর্জি খারিজ আদালতের, আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় আরও বিপাকে চিদম্বরম​

আরও পড়ুন: ডেবিট কার্ড তুলে দিচ্ছে এসবিআই! চেয়ারম্যানের ঘোষণায় তোলপাড়, নগদ মিলবে কোথায়? দুশ্চিন্তায় গ্রাহক​