হিসাব বহির্ভূত সম্পত্তি মামলায় জেল খাটছেন এখনও। তার মধ্যেই তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার ঘনিষ্ঠ তথা প্রাক্তন এআইএডিএমকে নেত্রী ভিকে শশিকলার  ১৬০০ কোটি টাকার ‘বেনামি’ সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল আয়কর দফতর। নোটবন্দির পর বাতিল হয়ে যাওয়া ৫০০ এবং ১০০০ টাকার নোটে তিনি ওই বিপুল পরিমাণ সম্পত্তি কেনেন বলে জানা গিয়েছে।

আয়কর দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, ২০১৬ সালের ৮ নভেম্বর নোটবন্দির কথা ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তার আওতায় পুরনো ৫০০ এবং ১০০০ টাকার নোট বাতিল করা হয়। তার পরেই একাধিক ভুয়ো পরিচয়পত্র তৈরি করে, চেন্নাই, পুদুচেরি, কোয়মবত্তূর-সহ একাধিক জায়গায় নগদ টাকার বিনিময়ে মোট ন’টি সম্পত্তি কেনেন শশিকলা।

আয়কর দফতরের আধিকারিকরা জানিয়েছেন, নগদ টাকায় লেনদেন করেছিলেন শশিকলা। ক্রেতা ও বিক্রেতা, দু’পক্ষের মধ্যে স্বাক্ষরিত হয়েছিল মউ-ও।  সবকিছু খতিয়ে দেখে প্রাক্তন এআইএডিএমকে নেত্রীর বিরুদ্ধে ১৯৮৮ সালের বেনামি সম্পত্তি লেনদেন প্রতিরোধ আইনের ২৪(৩) ধারায় মামলা দায়ের হয়েছে়। ওই আইনটি দীর্ঘদিন নিস্ক্রিয় থাকলেও ২০১৬ সালে তা পুনরায় চালু করে মোদী সরকার।

আরও পড়ুন: নাকের ডগায় নজিরবিহীন পুলিশি বিক্ষোভ, কোথায় অমিত? প্রশ্ন বিরোধীদের​

আরও পড়ুন: এনডিএ ছাড়লে সমর্থন, সেনাকে বার্তা শরদের​

২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে আয় বহির্ভূত সম্পত্তি মামলায় দোষী সাব্যস্ত হন শশিকলা। তার আগেই শশিকলা এবং তাঁর সহযোগীদের বাড়িতে তল্লাশি চালায় আয়কর দফতর। সেইসময়ই ওই বিপুল পরিমাণ বেনামি সম্পত্তির নথিপত্র আয়কর দফতরের হাতে পৌঁছয়। এ নিয়ে দীর্ঘদিন জেরাও করা হয় তাঁকে। এতদিনে সেই সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হল। এই মুহূর্তে বেঙ্গালুরু জেলে রয়েছেন শশিকলা। কে পালানিস্বামী শিবির তাঁকে আগেই দল থেকে বহিষ্কার করেছে।