কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলা আসলে ‘বড় দুর্ঘটনা’। ঠিক এমনটাই বললেন এক বিজেপি নেতা। কেশবপ্রসাদ মৌর্য নামে এই বিজেপি নেতা উত্তরপ্রদেশের উপ-মুখ্যমন্ত্রী। একটি ভিডিয়োতে তাঁকে এই কথা বলতে শোনা গিয়েছে। এর পরই শুরু হয়েছে বিতর্ক।

কংগ্রেস নেতা দিগ্বিজয় সিং পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গি হামলাকে ‘দুর্ঘটনা’ বলেছিলেন। এর পরই বিজেপি সরকারের তরফে কড়া প্রতিক্রিয়া দেওয়া হয়। এর পরই তিনি পাল্টা আঙুল তুললেন উত্তরপ্রদেশের উপ-মুখ্যমন্ত্রীর দিকে। বললেন, যে কথা বলার জন্য তাঁর সমালোচনা করা হল। একই কথা বিজেপি নেতাও কিন্তু বলেছেন।

দিগ্বিজয় নিজেই রিটুইট করেছেন বিজেপি নেতার ওই ভিডিয়ো, যেখানে পুলওয়ামা হামলাকে ‘বড় দুর্ঘটনা’ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। তাঁর দাবি, ‘‘সাহসী হলে আমার বিরুদ্ধে মামলা করুন।’’

ভারত ছাড়াও বিভিন্ন দেশ সার্জিকাল স্ট্রাইক করেছে, সে বিষয়ে জানেন? 

কেশবপ্রসাদ মৌর্যের বিরুদ্ধে দরকারে ব্যবস্থা নিক প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, এমনটাও বলেন দিগ্বিজয়। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সিআরপি কনভয়ে হামলা চালায় জইশ। তার জবাবে ২৬ ফেব্রুয়ারি নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে পাকিস্তানে ঢোকে ভারতীয় বায়ুসেনা।

আরও পড়ুন: বাবর যা করেছেন পাল্টানো যাবে না, বিবাদ মেটানোই লক্ষ্য, অযোধ্যা মামলায় বলল সুপ্রিম কোর্ট

দিগ্বিজয় সিং

পাক অধিকৃত কাশ্মীর, বালাকোট এবং চাকোটিতে বোমা ফেলে জঙ্গিদের  প্রশিক্ষণ শিবির ধ্বংস করে দেওয়া হয়। পরে বায়ুসেনা এবং ভারতের বিদেশ সচিব বিজয় গোখেল তা নিশ্চিত করেন। উত্তর-পূর্ব পাকিস্তানের বালাকোটের জাবা গ্রামে জইশের ঘাঁটিতে বোমা ফেলা হয়েছে বলে জানান তাঁরা।যদিও এই হামলায় ক্ষয়ক্ষতি ও পাল্টা অভিযানে নিহত জঙ্গির সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক বেড়েই চলেছে।

(দেশজোড়া ঘটনার বাছাই করা সেরা বাংলা খবর পেতে পড়ুন আমাদের দেশ বিভাগ।)