• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রাম মন্দির তৈরির তোড়জোড়ের মধ্যেই বাবরি মসজিদ মামলায় বয়ান রেকর্ড আডবাণী-জোশীদের

L K Advani
লখনউয়ের বিশেষ সিবিআই আদালতে বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলায় বয়ান রেকর্ড লালকৄষ্ণ আডবাণীর। গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

অযোধ্যায় চলছে রাম মন্দিরের ‘ভূমিপূজন’-এর তোড়জোড়। তার মধ্যেই প্রায় তিন দশক আগে অযোধ্যায় বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলায় নিজের বয়ান রেকর্ড করলেন বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা লালকৄষ্ণ আডবাণী। শুক্রবার লখনউয়ের বিশেষ সিবিআই আদালতে ভিডিয়ো লিঙ্কের মাধ্যমে রেকর্ড করা হয় লখনউয়ের আদালতের বিশেষ বিচারপতি ওয়াই এস যাদবের এজলাসে। তবে এ নিয়ে এখনও কোনও মন্তব্য করেননি আডবাণী।

১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর অযোধ্যায় বাবরি মসজিদ ধ্বংস করেছিলেন করসেবকরা। তাঁদের  দাবি ছিল, ওই স্থানে রাম মন্দির ছিল। ঘটনায় লালকৄষ্ণ আডবাণী, মুরলী মনোহর জোশী, উমা ভারতীর মতো বিজেপি নেতা-নেত্রীর বিরুদ্ধে বাবরি মসজিদ ধ্বংসে প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ দায়ের হয়। সেই মামলার তদন্ত করছে সিবিআই। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে মামলা চলতে থাকায় সুপ্রিম কোর্ট গত বছর নির্দেশ দেয়, ৩১ অগাস্টের মধ্যে মামলা শেষ করতে। তার পর থেকেই গতি এসেছে মামলার শুনানিতে। প্রতিদিন শুনানি চলছে লখনউয়ে সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতে। সেই সূত্রেই শুক্রবার ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩১৩ ধারায় নিজের বয়ান রেকর্ড করেছেন বিজেপির লৌহপূরুষ আডবাণী।

অন্য দিকে এই মামলায় অন্য অভিযুক্তের মধ্যে আর এক বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা মুরলি মনোহর জোশীর বয়ান রেকর্ড হয়েছে বৄহস্পতিবার। আদালতে তিনি দাবি করেছেন, এই মামলা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তিনি বলেন, ‘‘পুরো তদন্তই হচ্ছে রাজনৈতিক মদতে। মিথ্যা ও সাজানো তথ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে।’’ বুধবার আদালত রেকর্ড করেছে শিবসেনা সাংসদ সতীশ প্রধানের। সব মিলিয়ে মোট ৩২ জন অভিযুক্তের বয়ান রেকর্ড করবে আদালত। তবে আদালতে এ দিন আডবাণী কী বলেছেন, সে বিষয়ে বিশেষ কিছু জানা যায়নি। বয়ান রেকর্ডের সময় আডবাণীর আইনজীবীরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। অন্য দিকে সিবিআই-এর আইনজীবী হিসেবে ছিলেন ললিত সিংহ, আর কে যাদব, পি চক্রবর্তী ও অভিষেক রঞ্জন।

আরও পড়ুন: সচিনদের বিরুদ্ধে এখনই কোনও পদক্ষেপ নয়, আস্থাভোটের তোড়জোড় গহলৌত শিবিরে

আরও পড়ুন: নৃত্যশিল্পী অমলাশঙ্কর প্রয়াত, শোকের ছায়া সাংস্কৃতিক জগতে

অন্য দিকে গত বছর অযোধ্যার বিতর্কিত জমিতে রাম মন্দির তৈরির অনুমোদন দেয় সুপ্রিম কোর্ট। তার পর থেকে ট্রাস্ট গঠন করে মন্দির তৈরির প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। সেই অনুযায়ী আগামী ৫ অগাস্ট ভূমিপূজনের অনুষ্ঠান হবে। মন্দির তৈরির সূচনার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তবে প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে এ বিষয়ে এখনও সদর্থক কোনও বার্তা দেওয়া হয়নি। প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও অমিত শাহ, রাজনাথ সিংহ-সহ তিন দিনের অনুষ্ঠানে প্রায় ৩০০ ভিআইপি-ভিভিআইপি-কে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বলে অযোধ্যার পুরোহিতদের সূত্রে জানা গিয়েছে। অন্য দিকে আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হয়েছে আডবাণী, জোশী, উমা ভারতীদেরও। তার মধ্যেই বাবরি মসজিদ মামলায় গতি পাওয়ায় শেষ পর্যন্ত আডবাণী-জোশীরা ওই অনুষ্ঠানে হাজির থাকবেন কিনা তা নিয়ে সংশয় রয়েছে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মধ্যে। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন