গম্ভীরের ২টি ভোটার কার্ড! ফৌজদারি মামলা আপ প্রার্থীর
আপের দাবি, অবিলম্বে গৌতম গম্ভীরের প্রার্থিপদ বাতিল করা হোক। টুইটারে হ্যাশটাগ গম্ভীরঅপরাধ (#GambhirApradh)-এ অতিশী লিখেছেন, মনোনয়নপত্রে ভুয়ো তথ্য দিলে তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ।
Gautam Gambhir

আপ নেত্রীর অভিযোগ পুরোপুরি ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন গৌতম গম্ভীর। ছবি: পিটিআই।

রাজনীতির পিচে ব্যাটিং করতে নেমেই বাউন্সারের মুখোমুখি গৌতম গম্ভীর। দু’টি ভোটার কার্ড থাকার অভিযোগে গম্ভীরের  বিরুদ্ধে মামলা করলেন লোকসভা নির্বাচনে তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী আম আদমি পার্টি (আপ)-র নেত্রী অতিশী। আগামী ১ মে এই মামলার শুনানি হবে। যদিও আপ নেত্রীর অভিযোগ পুরোপুরি ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন গম্ভীর।

আপের তারকা প্রার্থী অতিশীর দাবি, দিল্লির করোলবাগ ও রাজেন্দ্র নগর— দুই এলাকাতেই ভোটার হিসাবে গম্ভীরের নাম নথিভুক্ত রয়েছে। শুক্রবার গম্ভীরের বিরুদ্ধে একাধিক টুইট করেন তিনি। তার একটিতে অতিশী বলেন, “দিল্লির করোলবাগ ও রাজেন্দ্র নগর, দু’টি ভিন্ন (বিধানসভা) কেন্দ্রে দুটো ভোটার কার্ড থাকায় পূর্ব দিল্লির বিজেপি প্রার্থী গৌতম গম্ভীরের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা রুজু করেছি।”

আপের দাবি, অবিলম্বে গৌতম গম্ভীরের প্রার্থিপদ বাতিল করা হোক। টুইটারে হ্যাশটাগ গম্ভীরঅপরাধ (#GambhirApradh)-এ অতিশী লিখেছেন, মনোনয়নপত্রে ভুয়ো তথ্য দিলে তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ।এর জন্য এক বছরের কারাদণ্ডও হতে পারে। অতিশীর টুইটের পরই  গম্ভীরকে লক্ষ্য করে ধেয়ে এসেছে একের পর এক বাউন্সার। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আপ নেতা অরবিন্দ কেজরীবাল টুইট করেন, ‘ভোটারদের এমন কারও উপর ভোট অপচয় করা উচিত নয় যিনি শীঘ্রই বাতিল হয়ে যাবেন।’ মুখ্যমন্ত্রীর পর টুইটারে আক্রমণ শুরু করেন আপ নেতা সঞ্জয় সিংহ। গম্ভীরের নাম না করে তাঁর প্রশ্ন, “নির্বাচন কমিশন কি এখনও চুপ করে বসে থাকবে? দুটো ভোটার কার্ড থাকা এক ব্যক্তি কী ভাবে ভোটে লড়তে পারেন?”

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

আরও পড়ুন: ৪৫ বছরে সর্বোচ্চ বেকারত্বের হার, কোথায় গেল সেই ‘১ কোটি চাকরি’?

আরও পড়ুন: সানি দেওলের পর দালের মেহেন্দি, বিজেপিতে যোগ দিলেন পপ গায়ক

জাতীয় দলের প্রাক্তন ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর গত মাসেই বিজেপিতে যোগদান করেছেন। চলতি সপ্তাহেই পূর্ব দিল্লি লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থী হিসাবে তাঁর নাম ঘোষণা করেন দলীয় নেতৃত্ব। এই কেন্দ্রে আপের প্রার্থী অতিশী ছাড়াও তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী কংগ্রেসের অরবিন্দ সিংহ লাভলি। মনোনয়নপত্রে পেশ করা তথ্যে অসঙ্গতি থাকার জন্য এর আগেও গম্ভীরের প্রার্থিপদ বাতিলের দাবি তুলেছিল কংগ্রেস এবং আপ। তবে গম্ভীরের দাখিল করা তথ্যে তেমন কোনও অসঙ্গতি না থাকায় সে দাবি খারিজ করে দেয় কমিশন।

এ দিনের অভিযোগকে অবশ্য বিশেষ গুরুত্ব দিতে নারাজ গম্ভীর। এ সবই ভিত্তিহীন মন্তব্য বলে গম্ভীরের দাবি, “প্রথমে ওরা অভিযোগ করে, এর পর মামলা করে। এবং তার পর ক্ষমা প্রার্থনা করে।”

(কী বললেন প্রধানমন্ত্রী, কী বলছে সংসদ- দেশের রাজধানীর খবর, রাজনীতির খবরজানতে আমাদেরদেশবিভাগে ক্লিক করুন।)

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত