সিবিআই-এর মামলায় সুপ্রিম কোর্টে ধাক্কা চিদম্বরমের। আইএনএক্স মিডিয়ায় বিদেশি বিনিয়োগে অসঙ্গতির মামলায় প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর জামিনের আর্জি খারিজ করেছিল দিল্লি হাইকোর্ট। সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টের  দ্বারস্থ হয়েছিলেন চিদম্বরমের আইনজীবীরা। আজ সোমবার কার্যত সেই মামলা শুনলই না শীর্ষ আদালত। বিচারপতি আর ভানুমতির বেঞ্চ জানাল, এখন আর আগাম জামিন নয়, সরাসরি জামিনের আবেদন জানাতে পারেন চিদম্বরম। কিন্তু তার শুনানি হবে সংশ্লিষ্ট আদালতে। অর্থাৎ সেটা বিশেষ সিবিআই আদালত হতে পারে, বা দিল্লি হাইকোর্ট হতে পারে— নির্দিষ্ট করেনি সুপ্রিম কোর্ট। 

অন্য দিকে ইডির হাতে গ্রেফতারিতে রক্ষাকবচের আর্জির শুনানি চলছে আর ভানুমতির বেঞ্চেই। সূত্রের খবর, ইডি হলফনামা দিয়ে জানিয়েছে, বিদেশে চিদম্বরমের প্রচুর সম্পত্তির হদিশ পেয়েছেন তাঁরা। সেই কারণেই তাঁকে গ্রেফতার করে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চায় তারা। তার বিরোধিতা করে চিদম্বরমের হয়ে সওয়াল করছেন কপিল সিব্বল। এই মামলাতেই শুক্রবার অন্তর্বর্তীকালীন স্থগিতাদেশ দিয়েছিল শীর্ষ আদালত। 

হেফাজতের মেয়াদ শেষে আজ, সোমবার ফের প্রাক্তন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমকে আদালতে পেশ করছে সিবিআই। ২২ অগস্ট নিজেদের হেফাজতে পাওয়ার পর থেকেই দফায় দফায় টানা জেরা চালিয়ে গিয়েছেন তদন্তকারীরা। কিন্তু চিদম্বরম তদন্তে অসহযোগিতা করে গিয়েছেন বলে সিবিআই-এর দাবি। এই যুক্তিতেই মনে করা হচ্ছে,এ দিন ফের তাঁকে নিজেদের হেফাজতে চাইতে পারে কেন্দ্রীয় এই  তদন্তকারী সংস্থা। 

আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় বিদেশি বিনিয়োগে অসঙ্গতির অভিযোগে দিল্লি হাইকোর্ট তাঁর আগাম জামিনের আর্জি খারিজ করার পরই ২১ অগস্ট রাতে নাটকীয় ভাবে চিদম্বরমকে গ্রেফতার করে সিবিআই। পরের দিন বিশেষ সিবিআই আদালতে পেশ করা হলে ২৬ অগস্ট পর্যন্ত তাঁর সিবিআই হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। সেই মেয়াদ শেষে আজ ফের আদালতে পেশ করা হবে তাঁকে। সিবিআই সূত্রে খবর, চিদম্বরমকে ফের হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের আর্জি জানিয়ে তার পক্ষে সওয়াল করতে পারেন সিবিআই-এর আইনজীবী।

আরও পডু়ন: হুঁশিয়ারি দিল পাকিস্তান, কুপওয়ারায় সেনা সমাবেশ ভারতের

আরও পড়ুন: ‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচিতে প্রত্যাশার শীর্ষে কর্মসংস্থান

সিবিআই এবং ইডি সূত্রে খবর, আইএনএক্স মিডিয়ার প্রাক্তন যুগ্ম প্রতিষ্ঠাতা-ডিরেক্টর ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়ের বয়ানের ভিত্তিতেই গ্রেফতার হয়েছেন চিদম্বরম। আইএনএক্স মিডিয়া মামলাতেও তাঁর বয়ান রেকর্ড করেছে সিবিআই। নিজের মেয়ে শিনা বরা হত্যা মামলায় জেলবন্দি ইন্দ্রাণীর সেই বয়ানকেই হাতিয়ার করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় বিদেশি বিনিয়োগে অসঙ্গতির অভিযোগে ২০১৭ সালের ১৫ মে এফআইআর দায়ের করে সিবিআই। অভিযোগ, চিদম্বরম যখন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী ছিলেন, সেই সময় আইএনএক্স মিডিয়াকে বিদেশি বিনিয়োগে অনুমতি দিয়েছিল অর্থমন্ত্রকের অধীন ফরেন ইনভেস্টমেন্ট প্রোমোশন বোর্ড (এফআইপিবি)। কিন্তু সেই অনুমোদনেই অসঙ্গতি হয়েছিল বলে অভিযোগ। পরে একই অভিযোগে মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করে ইডি-ও।