• ঈশানদেব চট্টোপাধ্যায়
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

অনুষ্ঠানের ২৪ ঘণ্টা আগেই প্রণব নাগপুরে, কিন্তু সঙ্ঘের আপ্যায়ন থেকে দূরে

Pranab Mukherjee
প্রণব মুখোপাধ্যায়ের সৌজন্যের প্রশংসা করছেন সঙ্ঘের কার্যকর্তারা, কিন্তু অতিরিক্ত উচ্ছ্বাস দেখাচ্ছেন না। —ফাইল চিত্র।

শহরটায় ‘সমারোপ সমারোহ’ খুব পরিচিত একটা শব্দবন্ধ। প্রত্যেক বছরই আয়োজিত হয়। রেশিমবাগ গমগম করে ওঠে। আলপনা-রঙ্গোলিতে সেজে ওঠে গোটা শহরে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা সঙ্ঘের নানা প্রতিষ্ঠান।

এ বারের আয়োজনও অন্যান্য বছরের মতোই। বহিরঙ্গে অন্তত আলাদা কিছু দেখা যাচ্ছে না। কিন্তু এ বারের সমারোপ ঘিরে নাগপুর যে ভাবে গোটা দেশের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে, অন্য কোনও বছর তেমনটা হয় না। কারণটা অবশ্যই প্রধান অতিথি।রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের সদর দফতরে আজীবন কংগ্রেসি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের ভাষণ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায়। ২৪ ঘণ্টা আগে থেকেই প্রহর গোনা শুরু হয়ে গিয়েছে নাগপুরে। সঙ্গে প্রহর গুনছে গোটা দেশও।

সঙ্ঘের আদর্শের ঠিক বিপরীতে দাঁড়িয়ে সারা জীবন রাজনীতি করেছেন প্রণব। দেশের সর্বোচ্চ সাংবিধানিক পদেও পৌঁছেছেন। এ হেন প্রণব সঙ্ঘের আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন এবং নাগপুরে সঙ্ঘ সদর দফতরে গিয়ে প্রশিক্ষিত স্বয়ংসেবকদের সামনে ভাষণ দিতে রাজি হচ্ছেন, এতে সঙ্ঘও উচ্ছ্বসিত।

আরও পড়ুন
সঙ্ঘ-প্রথা মানবেন কি প্রণব, নজরে নাগপুর

কোনও বিষয় নিয়ে অতিরিক্ত আবেগ দেখানো অবশ্য সঙ্ঘের ঘরানায় নেই। তাই প্রণব মুখোপাধ্যায়ের সৌজন্যের প্রশংসা করছেন সঙ্ঘের কার্যকর্তারা, কিন্তু অতিরিক্ত উচ্ছ্বাস দেখাচ্ছেন না। প্রতি বছর যে ভাবে সমারোপ আয়োজিত হয়, এ বারও সে ভাবেই হচ্ছে। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির জন্য নিজেদের প্রথায় কোনও বদল আরএসএস আনছে না। কিন্তু সঙ্ঘের একটি সূত্র জানাচ্ছে, তাদের তরফে প্রণবের জবরদস্ত আপ্যায়নের ব্যবস্থা থাকছে বৃহস্পতিবার। অন্যান্য বছরের সমারোপে প্রধান অতিথিদের স্বাগত জানানোর জন্য যে রকমের বন্দোবস্ত থাকে, এ বার তার চেয়ে অনেকটাই আলাদা হচ্ছে ব্যবস্থাপনা। প্রণববাবু যে হেতু প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি, তাই কিছু প্রোটোকলও মেনে চলতে হচ্ছে সঙ্ঘ সদর দফতরকে।

আরও পড়ুন
চিড় মেরামতে আজ বৈঠকে অমিত-উদ্ধব

বুধবার সন্ধ্যার একটু আগেই নাগপুরে পৌঁছেছেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। উঠেছেন গভর্নর কোঠিতে (রাজভবন)। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির নৈশভোজের বন্দোবস্ত সেখানেই, সঙ্ঘ দফতরে নয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ছ’টায় সঙ্ঘের কর্মসূচিতে ভাষণ দেবেন প্রণব। সেই কর্মসূচির প্রায় ২৪ ঘণ্টা আগে শহরে পৌঁছে গিয়েছেন প্রণব। কিন্তু এই ২৪ ঘণ্টায় প্রণবের যত্ন-আত্তির ভার সঙ্ঘের হাতে থাকছে না। বৃহস্পতিবার মধ্যাহ্নভোজও প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি গভর্নর কোঠিতে সারবেন বলে খবর রাজভবনের একটি সূত্র জানিয়েছে।

তবে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রেশিমবাগে আরএসএস-এর অনুষ্ঠান শেষে সঙ্ঘ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বেশ কিছু ক্ষণ কাটাতে পারেন প্রণব। সরসঙ্ঘ চালক মোহন ভাগবতের সঙ্গে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের ব্যক্তিগত সম্পর্ক বেশ ভাল। প্রণব মুখোপাধ্যায় রাষ্ট্রপতি থাকাকালীন একাধিক বার রাষ্ট্রপতি ভবনে গিয়েছেন ভাগবত। তাই বৃহস্পতিবার ভাগবতের সঙ্গে নৈশভোজ সারতে পারেন প্রাক্তন রাষ্ট্র্রপতি, শোনা যাচ্ছে এমনই।

আরও পড়ুন
বৈঠকের আগে অস্বস্তি, মোদী-অমিতকে তোপ শিবসেনা মুখপত্রে

নাগপুরে রাস্তাঘাটের অবস্থা এই মুহূর্তে বেশ শোচনীয়। গোটা শহরকে ঢেলে সাজানোর পাশাপাশি, নাগপুরে রাস্তাঘাটের চেহারাও আমুল বদলাচ্ছে সরকার। সে কারণে অধিকাংশ রাস্তাঘাট খোড়াখুড়ি চলছে, আংশিক ভাবে বন্ধও রাখতে হচ্ছে। বুধবার সন্ধ্যা থেকে ভিভিআইপি অতিথিদের জন্য যাতায়াত এবং নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে তাই প্রশাসনকে বিশেষ ভাবে তত্‌পর থাকতে হচ্ছে। বৃহস্পতিবার শহরের বেশ কিছু রাস্তায় ‘নো এন্ট্রি’ থাকতে পারে। একেই রাস্তাঘাটের পরিস্থিতি সংকটজনক, তাই ট্রাফিকের বিধি নিষেধ আরও জটিল করে তুলতে পারে পরিস্থিতি। কিন্তু পুলিশ প্রশাসনের তরফ থেকে জানানো হচ্ছে, প্রণব মুখোপাধ্যায়ের নাগপুর সফরের জেরে ট্রাফিক সংক্রান্ত কোনও সমস্য হবে না, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য যথেষ্ট প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন