অন্ধ্রপ্রদেশের কুরনুল জেলার পিয়াপুলি এলাকার একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। আর পাঁচটা স্কুলের মতোই রোজ সকালে সেখানে ছাত্ররা আসে। শিক্ষক মশাই ক্লাসও নেন। সেই স্কুলে রোজকার ছাত্র-ছাত্রীরা ছা়ডাও ক্লাস করতে আসছে একটি হনুমান। গত দু’সপ্তাহ ধরে নিয়মিত ক্লাসে চলে আসছে সে।

স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা সেই হনুমানটির নাম দিয়েছে লক্ষ্মী। এই দু’সপ্তাহেই সে বেশ মনযোগী ‘ছাত্র’ হয়ে উঠেছে। সময় মতো প্রার্থনার লাইনে দাঁড়াচ্ছে। আবার বাকিদের মতো ক্লাসে গিয়ে বসে থাকছে চুপচাপ। তার উপস্থিতি কিন্তু ক্লাসের পড়াশোনায় কোনও রকম বিঘ্ন ঘটাচ্ছে না। লক্ষ্মীর পাশে বসেই দিব্যি পড়াশোনা চালিয়ে যাচ্ছে অন্যান্য ছাত্র-ছাত্রীরাও। টিফিনের সময় বন্ধুদের থেকে খাবার খাচ্ছে লক্ষ্মী। আবার খেলাও করছে।

ক্লাসে লক্ষ্মীর এই উপস্থিতির ভিডিয়ো সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করেছেন এক ব্যক্তি। তার পরই ভাইরাল হয়েছে সেই ভিডিয়ো।

ক্লাসের মধ্যে লক্ষ্মী কোনও বিঘ্ন না ঘটালেও, লক্ষ্ণীর ক্লাস করায় এ বার ইতি টানতে চাইছেন সেই স্কুলের শিক্ষকরা। হনুমানটিক ক্লাসে আসা আটকাতে,  ক্লাস শুরুর আগে থেকেই দরজা বন্ধ করে দিচ্ছেন শিক্ষকরা। আবার বন্য প্রাণীদের সঙ্গে কী ভাবে ব্যবহার করা উচিত, তাও ছাত্র-ছাত্রীদের শেখাচ্ছেন তাঁরা। 

আরও পড়ুন: লাদাখ আলাদা, এক রাজ্য ভেঙে কেন্দ্রশাসিত দুই

আরও পড়ুন: ধৃত মেহবুবা-ওমর, কেমন আছে কাশ্মীর!