Advertisement
২১ এপ্রিল ২০২৪
Presents
Investment Planning

মধ্যবয়সে পৌঁছে বিনিয়োগের নতুন রাস্তা খুঁজছেন? রইল টিপস

মধ্যবয়সেই মানুষের উপরে সংসারের দায়িত্ব থাকে সব থেকে বেশি। এক দিকে মূল্যবৃদ্ধি, আর এক দিকে সন্তানদের পড়াশোনা, উপরন্তু নিজেদের অবসরকালীন জীবনের জন্য সঞ্চয়। তখনই মানুষের মাথায় খেলে বিনিয়োগের কথা।

প্রতীকী চিত্র

প্রতীকী চিত্র

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
শেষ আপডেট: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৪:৩৭
Share: Save:

বয়স ৪০-এর কোঠায় পৌঁছলেই নানা চিন্তা মাথায় ভিড় করে আসে। আসন্ন প্রৌঢ়ত্ব কিংবা বার্ধক্যের দিন গুজরান, ভাল-মন্দ, অসুস্থতা, সব মিলিয়ে বেশ ঝামেলায় পড়তে হয় তখনই। মধ্যবয়সেই মানুষের উপরে সংসারের দায়িত্ব থাকে সব থেকে বেশি। এক দিকে মূল্যবৃদ্ধি, আর এক দিকে সন্তানদের পড়াশোনা, উপরন্তু নিজেদের অবসরকালীন জীবনের জন্য সঞ্চয়। তখনই মানুষের মাথায় খেলে বিনিয়োগের কথা।

তবে শুধু পিপিএফ বা এলআইসি নয়, তা বাদেও নানা ধরনের বিনিয়োগের সুলুকসন্ধান হাতে থাকা ভাল। এই প্রতিবেদনে আপনার জন্য রইল এই রকম বিনিয়োগের হদিস।

প্রাথমিক ভাবে অবশ্যই পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড (পিপিএফ) আর জীবন বিমা করে রাখুন। যদি আগে থেকে বিমা না-ও থাকে, মধ্যবয়স জীবন বিমায় হাত পাকানোর আদর্শ সময়। সময় নষ্ট না করে জীবন বিমা, স্বাস্থ্য বিমা ও অন্যান্য বিমা যাচাই করে কিনুন। আপনি ও আপনার পরিবার অনেকাংশে সুরক্ষিত থাকবেন এই উপায়ে।

এ ছাড়া বিনিয়োগের একটি পরিকল্পনা তৈরি করুন। দরকারে আর্থিক উপদেষ্টার সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করে উপদেশ নিন। আপনার বয়স, মূলধন, ঝুঁকি নেওয়ার ইচ্ছা বা পরিস্থিতি এবং কত দিনের মধ্যে কী রকম রিটার্ন আশা করছেন, সব মিলিয়ে পরিকল্পনা তৈরি করুন। এতে আপনার সম্পদ সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা থাকে আপনার হাতের মুঠোয়।

পিপিএফ বা এলআইসি-র মতো জায়গায় বিনিয়োগ করার পাশাপাশি বিস্তারিত ও দীর্ঘমেয়াদী মিউচ্যুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করতে পারেন। সিস্টেমেটিক ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যান (এসআইপি)-এ আপনি নিয়মিত লগ্নি করলেও ভাল মুনাফা পাবেন। এতে ঝুঁকি কমে আর দীর্ঘমেয়াদে বেশি রিটার্ন মেলে।

পাশাপাশি, ঋণ মিউচ্যুয়াল ফান্ড হাতে রাখুন স্থায়িত্বের জন্য। আবার দরকারের জন্য আপৎকালীন ফান্ড তৈরি করে রাখাও প্রয়োজন। মিউচ্যুয়াল ফান্ডের দ্বারা সহজে সম্পদ থেকে নগদে আনা যায়, আবার বাজারের নানা ঝুঁকির কথাও আগাম জানতে পারা যায়।

রিয়েল এস্টেট যেমন বাড়ি, ফ্ল্যাট ইত্যাদিতে বিনিয়োগ করলে তা আপনার সারা জীবনের সঞ্চয়কে সুরক্ষিত করবে, আবার দরকারে বিক্রি করতে হলে আশানুরূপ রিটার্নও পাবেন।

শুধু নানা বিনিয়োগ প্রকল্পই নয়, সাবেকী হলেও ফিক্সড ডিপোজিটে আপনি বেশ কিছু টাকা দীর্ঘমেয়াদে সঞ্চয় করতে পারবেন। এতে শুধু যে আপনার মূলধন সুরক্ষিত থাকবে তাই নয়, পুরনো ভাবনার বিনিয়োগকারীদের জন্য যথেষ্ট নিশ্চিন্ত ও লাভজনকও বটে।

অবসরের জন্য ন্যাশনাল পেনশন স্কিম (এনপিএস) প্রকল্পে বিনিয়োগ করা খুবই যুক্তিযুক্ত সিদ্ধান্ত। এতে করের ছাড় থেকে শুরু করে স্থায়ী অবসরকালীন আয় পর্যন্ত সবটাই থাকবে নিশ্চিন্ত।


বিশেষজ্ঞদের কাছে সমাধান খুঁজতে সঞ্চয় নিয়ে আমাদের প্রশ্ন পাঠান — takatalk2023@abpdigital.in এই ঠিকানায় বা হোয়াটস অ্যাপ করুন এই নম্বরে — ৮৫৮৩৮৫৮৫৫২আপনার আয়, খরচ এবং সঞ্চয় জানাতে ভুলবেন না। পরিচয় গোপন রাখতে চাইলে অবশ্যই জানান।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Invest Investment
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE