Advertisement
২২ মে ২০২৪
Presents
HRA tax exemption

আয়করে এইচআরএ ছাড় দাবি করবেন ভাবছেন? মাথায় থাকুক এই ৬ নিয়ম

নতুন কর ব্যবস্থায় এইচআরএ ছাড়ের অনুমতি নেই। সুতরাং, আপনি যদি ভাড়া ভাতার জন্য কর ছাড়ের দাবি করতে চান তবে আপনাকে অবশ্যই পুরনো কর ব্যবস্থার অধীনে আয়কর জমা দিতে হবে।

প্রতীকী চিত্র

প্রতীকী চিত্র

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
শেষ আপডেট: ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৭:২২
Share: Save:

ফেব্রুয়ারি মাস পড়ে গিয়েছে। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ ইতিমধ্যেই পেশ করেছেন অন্তর্বর্তী বাজেট ২০২৪-২৫। এ বছর লোকসভা ভোট থাকার দরুণ বাজেটে কিছু অতিরিক্ত ছাড় আশা করলেও, আয়করের ক্ষেত্রে সেই রকম কোনও ঘোষণা করেননি অর্থমন্ত্রী। বরং পূর্বের নিয়মই বহাল রেখেছে মোদী সরকার।

এমতাবস্থায় সকলেই ব্যস্ত কী ভাবে একটু বেশি আয়কর বাঁচানো যায়, সেই চিন্তায়। আয়কর ছাড়ের উপায়গুলির মধ্যে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ হল বাড়ি ভাড়া ভাতা (এইচআরএ) যা বাড়ির ভাড়াটে হিসেবে দাবি করা যায়। এমনকি যদি বাড়িটি আপনার স্ত্রীর মালিকানাধীনও হয়, তা হলেও যত ক্ষণ না এটি আপনার বেতনের অংশ হয়, তত ক্ষণ আপনি গৃহভাড়া ভাতা দাবি করতে পারেন। এমনকি এই ভাড়ার জন্য আপনি আয়করে ছাড়ও দাবি করতে পারেন।

কিন্তু নতুন কর ব্যবস্থায় এইচআরএ ছাড়ের অনুমতি নেই। সুতরাং, আপনি যদি বাড়িভাড়া ভাতার জন্য কর ছাড়ের দাবি করতে চান, তবে আপনাকে অবশ্যই পুরনো কর ব্যবস্থার অধীনে আয়কর জমা দিতে হবে। তবে শুধু পুরনো আয়কর ব্যবস্থার অধীনে থাকলেই তো আর হল না। ঠিক মতো নিয়ম না মানলে কিন্তু এই এইচআরএ ছাড়ের সুবিধা থেকে বঞ্চিতই থেকে যাবেন আপনি।

তাই বাড়ি ভাড়া ভাতা বাবদ আপনি যদি আয়করে ছাড়ের সুবিধা পেতে চান, তা হলে মাথায় রাখুন এই বিষয়গুলি।

মনে রাখবেন স্বামী বা স্ত্রীকে প্রদত্ত ভাড়া এইচআরএ (বাড়ি ভাড়া ভাতা)-এর অধীনে ছাড় হিসাবে দাবি করা যেতে পারে। আমন কুমার জৈনের মামলায় ২০২৩ সালের জুন মাসে আয়কর অ্যাপেলেট ট্রাইব্যুনালের (আইটিএটি) সাম্প্রতিক একটি রায়-সহ বেশ কয়েকটি আদালতের রায়ে বলা হয়েছে যে স্বামী তাঁর স্ত্রীকে যে ভাড়া দিয়েছিলেন, তা এইচআরএ হিসাবে মঞ্জুর করা হবে এবং এর জন্য আয়করে ছাড় দাবি করা যাবে। রায়ে বলা হয়েছে, "স্বামী স্ত্রীকে ভাড়া দিতে পারবেন না, এটা আইনি ভাবে যুক্তিযুক্ত নয়।

বরং সুপারিশ করা হয় যে স্ত্রী অন্য কোনও বাড়িওয়ালা-ভাড়াটে চুক্তির মতোই স্বামীকে ভাড়ার রসিদ জারি করতে পারেন। তা হলে সব কিছু সাধারণ নিয়মমাফিক হবে। স্ত্রীর আয়ের মধ্যে ভাড়ার টাকা অন্তর্ভুক্ত করা জরুরি। এমনকি যদি তাঁর আয় করযোগ্য সীমার নীচে হয়, তবুও আয়কর রিটার্ন ফাইল করতে হবে। এ ক্ষেত্রে স্ত্রীর পুরো বাড়ির মালিক হওয়া উচিত এবং স্বামীর কোনও অংশের উপরে অধিকার থাকা উচিত নয়।

আয়করে ছাড় পেতে করদাতাকে এইচআরএ দাবি করার জন্য নিয়োগকর্তার কাছে ফর্ম ১২(১২বিবি)-সহ ভাড়ার চুক্তি, ভাড়ার রসিদ জমা দিতে হবে। ভাড়ার রসিদে ভাড়াটে, বাড়িওয়ালা, প্রদত্ত ভাড়া, বাড়িওয়ালার স্বাক্ষর এবং প্যান নম্বর উল্লেখ থাকা বাধ্যতামূলক। এই সব নিয়ম মেনে চললে আপনিও খুব সহজেই বাড়ি ভাড়া বাবদ আয়করে ছাড় উপভোগ করতে পারবেন।

বিশেষজ্ঞদের কাছে সমাধান খুঁজতে সঞ্চয় নিয়ে আমাদের প্রশ্ন পাঠান — takatalk2023@abpdigital.in এই ঠিকানায় বা হোয়াটস অ্যাপ করুন এই নম্বরে — ৮৫৮৩৮৫৮৫৫২আপনার আয়, খরচ এবং সঞ্চয় জানাতে ভুলবেন না। পরিচয় গোপন রাখতে চাইলে অবশ্যই জানান।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Tax Income Tax
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE