Advertisement
০৯ ডিসেম্বর ২০২২
Sukesh Chandrasekhar

জ্যাকলিন-নোরার সঙ্গে ‘সম্পর্ক’, ২০০ কোটি তছরুপে যুক্ত সুকেশের সঙ্গে সখ্য ছিল চার অভিনেত্রীর!

নিকিতা তম্বোলী, চাহত খন্না, সোফিয়া সিংহ, আরুষা পাটিলের মতো চার মডেল-অভিনেত্রীকে নাকি লক্ষ লক্ষ টাকার উপহার দিয়েছিলেন সুকেশ। ওই চার জনই সুকেশের সঙ্গে দেখা করতে তিহাড়ে গিয়েছিলেন।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৬:০৭
Share: Save:
০১ ২২
জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজের সঙ্গে ‘প্রেমের সম্পর্ক’ গড়েছেন। নোরা ফতেহির সঙ্গে জোর করে সম্পর্ক গড়তে চেয়েছেন। বলিউডের এই দুই অভিনেত্রীকেই নামীদামি উপহারে ভরিয়ে দিয়েছেন সুকেশ চন্দ্রশেখর। ২০০ কোটি টাকা তোলাবাজিতে অভিযুক্ত সুকেশের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ আগেই ছিল। এ বার তদন্তকারীদের দাবি, নিকিতা তম্বোলী, চাহত খন্না, সোফিয়া সিংহ, আরুষা পাটিলের মতো চার মডেল-অভিনেত্রীকে লক্ষ লক্ষ টাকার উপহার দিয়েছিলেন সুকেশ। এমনকি, ওই চার জনই সুকেশের সঙ্গে দেখা করতে তিহাড় জেলেও গিয়েছিলেন।

জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজের সঙ্গে ‘প্রেমের সম্পর্ক’ গড়েছেন। নোরা ফতেহির সঙ্গে জোর করে সম্পর্ক গড়তে চেয়েছেন। বলিউডের এই দুই অভিনেত্রীকেই নামীদামি উপহারে ভরিয়ে দিয়েছেন সুকেশ চন্দ্রশেখর। ২০০ কোটি টাকা তোলাবাজিতে অভিযুক্ত সুকেশের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ আগেই ছিল। এ বার তদন্তকারীদের দাবি, নিকিতা তম্বোলী, চাহত খন্না, সোফিয়া সিংহ, আরুষা পাটিলের মতো চার মডেল-অভিনেত্রীকে লক্ষ লক্ষ টাকার উপহার দিয়েছিলেন সুকেশ। এমনকি, ওই চার জনই সুকেশের সঙ্গে দেখা করতে তিহাড় জেলেও গিয়েছিলেন।

০২ ২২
পুলিশের খাতায় সুকেশের বিরুদ্ধে ১০টি অপরাধের অভিযোগ রয়েছে। তবে ২০০ কোটির কেলেঙ্কারিতে জড়িত থাকার অভিযোগে তিহাড় জেলে ঠাঁই হয়েছে তাঁর। এই মামলায় জ্যাকলিন এবং নোরাকে জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়তে হয়েছে। এ বার তাঁদের মতোই তদন্তকারীদের নজরে পড়ে গিয়েছেন ওই চার মডেল-অভিনেত্রী। সংবাদমাধ্যমের দাবি, সুকেশের সহকারী পিঙ্কি ইরানির মাধ্যমেই তিহাড়ে গিয়ে এই ধনকুবের ‘কনম্যানের’ সঙ্গে দেখা করেন চার জন।

পুলিশের খাতায় সুকেশের বিরুদ্ধে ১০টি অপরাধের অভিযোগ রয়েছে। তবে ২০০ কোটির কেলেঙ্কারিতে জড়িত থাকার অভিযোগে তিহাড় জেলে ঠাঁই হয়েছে তাঁর। এই মামলায় জ্যাকলিন এবং নোরাকে জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়তে হয়েছে। এ বার তাঁদের মতোই তদন্তকারীদের নজরে পড়ে গিয়েছেন ওই চার মডেল-অভিনেত্রী। সংবাদমাধ্যমের দাবি, সুকেশের সহকারী পিঙ্কি ইরানির মাধ্যমেই তিহাড়ে গিয়ে এই ধনকুবের ‘কনম্যানের’ সঙ্গে দেখা করেন চার জন।

০৩ ২২
চার্জশিটে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)-র অভিযোগ, তিহাড়ে চার জনের সঙ্গে সুকেশের সাক্ষাৎ করিয়ে দেন পিঙ্কিই। সে জন্য ওই চার জনই গুচি, এলভি, ভারসাচের মতো নামী বিদেশি ব্র্যান্ডের বহুমূল্য উপহারও পেয়েছিলেন। এর বিনিময়ে পিঙ্কিরও ব্যাঙ্কে মোটা টাকা ঢুকিয়েছিলেন সুকেশ।

চার্জশিটে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)-র অভিযোগ, তিহাড়ে চার জনের সঙ্গে সুকেশের সাক্ষাৎ করিয়ে দেন পিঙ্কিই। সে জন্য ওই চার জনই গুচি, এলভি, ভারসাচের মতো নামী বিদেশি ব্র্যান্ডের বহুমূল্য উপহারও পেয়েছিলেন। এর বিনিময়ে পিঙ্কিরও ব্যাঙ্কে মোটা টাকা ঢুকিয়েছিলেন সুকেশ।

০৪ ২২
ইডির দাবি, এই চার জনের মধ্যে আরুষা স্বীকার করেছেন যে পিঙ্কিই তাঁকে সুকেশের সঙ্গে দেখা করিয়ে দিয়েছিলেন। তবে তিহাড়ে তাঁদের সাক্ষাতের অভিযোগ মানতে নারাজ আরুষা। যদিও সুকেশের থেকে তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে যে টাকা ঢুকেছে, তা মেনে নিয়েছেন। চার্জশিটে এ সবই জানিয়েছে ইডি।

ইডির দাবি, এই চার জনের মধ্যে আরুষা স্বীকার করেছেন যে পিঙ্কিই তাঁকে সুকেশের সঙ্গে দেখা করিয়ে দিয়েছিলেন। তবে তিহাড়ে তাঁদের সাক্ষাতের অভিযোগ মানতে নারাজ আরুষা। যদিও সুকেশের থেকে তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে যে টাকা ঢুকেছে, তা মেনে নিয়েছেন। চার্জশিটে এ সবই জানিয়েছে ইডি।

০৫ ২২
চার জনের মধ্যে টেলিভিশনের রিয়্যালিটি শো ‘বিগ বস্‌’-এ মুখ দেখিয়ে বেশ নাম কামিয়েছেন নিকিতা। অভিযোগ, তাঁর সঙ্গে আলাপের সময় সুকেশকে ‘শেখর’ নামে পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন পিঙ্কি। সে সময় সুকেশকে দক্ষিণী সিনেমার প্রযোজক তথা বন্ধু বলে জাহির করেছিলেন তিনি।

চার জনের মধ্যে টেলিভিশনের রিয়্যালিটি শো ‘বিগ বস্‌’-এ মুখ দেখিয়ে বেশ নাম কামিয়েছেন নিকিতা। অভিযোগ, তাঁর সঙ্গে আলাপের সময় সুকেশকে ‘শেখর’ নামে পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন পিঙ্কি। সে সময় সুকেশকে দক্ষিণী সিনেমার প্রযোজক তথা বন্ধু বলে জাহির করেছিলেন তিনি।

০৬ ২২
চার্জশিটে ইডির দাবি, সুকেশের সঙ্গে দু’বার দেখা করেছিলেন নিকিতা। এক বার তিহাড় জেলের ভিতরে এবং আর এক বার দিল্লিতে তাঁর অফিসে। প্রথম বার তাঁদের দেখা হয়েছিল ২০১৮ সালের এপ্রিলে। সেই সাক্ষাতের পরিবর্তে সুকেশের কাছ থেকে নগদে ১০ লক্ষ টাকা পেয়েছিলেন পিঙ্কি।

চার্জশিটে ইডির দাবি, সুকেশের সঙ্গে দু’বার দেখা করেছিলেন নিকিতা। এক বার তিহাড় জেলের ভিতরে এবং আর এক বার দিল্লিতে তাঁর অফিসে। প্রথম বার তাঁদের দেখা হয়েছিল ২০১৮ সালের এপ্রিলে। সেই সাক্ষাতের পরিবর্তে সুকেশের কাছ থেকে নগদে ১০ লক্ষ টাকা পেয়েছিলেন পিঙ্কি।

০৭ ২২
ইডির আরও দাবি, সুকেশের থেকে পাওয়া টাকা থেকেই নিকিতাকে দেড় লক্ষ টাকা নগদে দিয়েছিলেন পিঙ্কি। সুকেশের সঙ্গে নিকিতার প্রথম সাক্ষাতের দু’তিন সপ্তাহ পরে আবার তাঁদের দেখা হয়েছিল। এ বার নাকি সুকেশের সঙ্গে দেখা করতে একাই গিয়েছিলেন নিকিতা।

ইডির আরও দাবি, সুকেশের থেকে পাওয়া টাকা থেকেই নিকিতাকে দেড় লক্ষ টাকা নগদে দিয়েছিলেন পিঙ্কি। সুকেশের সঙ্গে নিকিতার প্রথম সাক্ষাতের দু’তিন সপ্তাহ পরে আবার তাঁদের দেখা হয়েছিল। এ বার নাকি সুকেশের সঙ্গে দেখা করতে একাই গিয়েছিলেন নিকিতা।

০৮ ২২
দ্বিতীয় সাক্ষাতেও নিকিতার প্রাপ্তি কম হয়নি বলে দাবি ইডির। সে বার নাকি তাঁকে দু’লক্ষ টাকার পাশাপাশি একটি গুচির ব্যাগও উপহার দেন সুকেশ। এ সবই চার্জশিটে উল্লেখ করেছে কেন্দ্রীয় সংস্থাটি।

দ্বিতীয় সাক্ষাতেও নিকিতার প্রাপ্তি কম হয়নি বলে দাবি ইডির। সে বার নাকি তাঁকে দু’লক্ষ টাকার পাশাপাশি একটি গুচির ব্যাগও উপহার দেন সুকেশ। এ সবই চার্জশিটে উল্লেখ করেছে কেন্দ্রীয় সংস্থাটি।

০৯ ২২
সুকেশের সঙ্গে ‘সম্পর্কের’ জেরে ইডির নজরে পড়েছেন নিকিতা। গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর তাঁর বয়ান রেকর্ড করে ইডি। নিজের বয়ানে নিকিতার দাবি, ২০১৮ সাল নাগাদ হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে পিঙ্কিই তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করেন। সে সময় নাকি পিঙ্কি নিজেকে প্রযোজক তথা কোঅর্ডিনেটর বলে পরিচয় দিয়েছিলেন।

সুকেশের সঙ্গে ‘সম্পর্কের’ জেরে ইডির নজরে পড়েছেন নিকিতা। গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর তাঁর বয়ান রেকর্ড করে ইডি। নিজের বয়ানে নিকিতার দাবি, ২০১৮ সাল নাগাদ হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে পিঙ্কিই তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করেন। সে সময় নাকি পিঙ্কি নিজেকে প্রযোজক তথা কোঅর্ডিনেটর বলে পরিচয় দিয়েছিলেন।

১০ ২২
২০১৮ সালের এপ্রিলে পিঙ্কি নিজেকে ‘অ্যাঞ্জেল’ নামে পরিচয় দিয়েছিলেন বলে দাবি করেছেন নিকিতা। সে সময় সুকেশের সঙ্গে দেখা করানোর জন্য নিকিতার কাছে নাকি মুম্বই থেকে দিল্লিগামী বিমানটিকিটও পাঠিয়ে দেন তিনি। ওই টিকিটে করে দিল্লিতে গিয়েই নাকি সুকেশের সঙ্গে দেখা করেন নিকিতা।

২০১৮ সালের এপ্রিলে পিঙ্কি নিজেকে ‘অ্যাঞ্জেল’ নামে পরিচয় দিয়েছিলেন বলে দাবি করেছেন নিকিতা। সে সময় সুকেশের সঙ্গে দেখা করানোর জন্য নিকিতার কাছে নাকি মুম্বই থেকে দিল্লিগামী বিমানটিকিটও পাঠিয়ে দেন তিনি। ওই টিকিটে করে দিল্লিতে গিয়েই নাকি সুকেশের সঙ্গে দেখা করেন নিকিতা।

১১ ২২
ইডির দাবি, দিল্লিতে গিয়ে একটি বিএমডব্লিউ গাড়িতে চেপে তিহাড় জেলে যান নিকিতা। এর পর তিহাড় চত্বরে দাঁড়ানো একটি ইনোভা গাড়িতে বসে জেলের ভিতরে ঢোকেন তিনি। নিকিতার সঙ্গে তখন পিঙ্কিও ছিলেন বলে দাবি।

ইডির দাবি, দিল্লিতে গিয়ে একটি বিএমডব্লিউ গাড়িতে চেপে তিহাড় জেলে যান নিকিতা। এর পর তিহাড় চত্বরে দাঁড়ানো একটি ইনোভা গাড়িতে বসে জেলের ভিতরে ঢোকেন তিনি। নিকিতার সঙ্গে তখন পিঙ্কিও ছিলেন বলে দাবি।

১২ ২২
চার্জশিটে ইডির দাবি, ‘তিহাড় জেলে নিকিতাদের কোনও সিকিউরিটি চেক হয়নি। এমনকি, তাঁদের পরিচয়পত্রও দেখতে চায়নি কেউ।’ নিকিতার দাবি, তিহাড়ে সুকেশকে ‘শেখর’ বলে পরিচয় করিয়ে দেন পিঙ্কি। সুকেশকে বড়সড় প্রযোজকও বলেছিলেন। প্রথমে পিঙ্কি নাকি বলেছিলেন যে এটি সুকেশের অফিস। পরে অবশ্য বলা হয়েছিল যে নিকিতা জেলের ভিতরে রয়েছেন।

চার্জশিটে ইডির দাবি, ‘তিহাড় জেলে নিকিতাদের কোনও সিকিউরিটি চেক হয়নি। এমনকি, তাঁদের পরিচয়পত্রও দেখতে চায়নি কেউ।’ নিকিতার দাবি, তিহাড়ে সুকেশকে ‘শেখর’ বলে পরিচয় করিয়ে দেন পিঙ্কি। সুকেশকে বড়সড় প্রযোজকও বলেছিলেন। প্রথমে পিঙ্কি নাকি বলেছিলেন যে এটি সুকেশের অফিস। পরে অবশ্য বলা হয়েছিল যে নিকিতা জেলের ভিতরে রয়েছেন।

১৩ ২২
দ্বিতীয় সাক্ষাতেও তিহাড় জেলে গিয়েছিলেন নিকিতা। সে সময় নাকি তিহাড়ে দোতলায় তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয়। নিকিতার দাবি, সেখানে এলভি, গুচির মতো নানা ব্র্যান্ডের দামি ব্যাগ রাখা ছিল। সেগুলির থেকেই একটি পরে সুকেশ তাঁকে উপহার দিয়েছেন। সঙ্গে নগদে দু’লক্ষ টাকা।

দ্বিতীয় সাক্ষাতেও তিহাড় জেলে গিয়েছিলেন নিকিতা। সে সময় নাকি তিহাড়ে দোতলায় তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয়। নিকিতার দাবি, সেখানে এলভি, গুচির মতো নানা ব্র্যান্ডের দামি ব্যাগ রাখা ছিল। সেগুলির থেকেই একটি পরে সুকেশ তাঁকে উপহার দিয়েছেন। সঙ্গে নগদে দু’লক্ষ টাকা।

১৪ ২২
নিকিতার মতোই সুকেশের সঙ্গে নাম জড়িয়েছেন ‘বড়ে অচ্ছে লাগতে হ্যায়’ নামে টেলিভিশন ধারাবাহিকের অভিনেত্রী চাহত খন্নার। ইডির কাছে তাঁর দাবি, সুকেশকে একটি দক্ষিণী টেলিভিশন চ্যানেলের মালিক বলে পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন পিঙ্কি। সে সময় সুকেশের নাম বলেছিলেন, ‘শেখর রেড্ডি’।

নিকিতার মতোই সুকেশের সঙ্গে নাম জড়িয়েছেন ‘বড়ে অচ্ছে লাগতে হ্যায়’ নামে টেলিভিশন ধারাবাহিকের অভিনেত্রী চাহত খন্নার। ইডির কাছে তাঁর দাবি, সুকেশকে একটি দক্ষিণী টেলিভিশন চ্যানেলের মালিক বলে পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন পিঙ্কি। সে সময় সুকেশের নাম বলেছিলেন, ‘শেখর রেড্ডি’।

১৫ ২২
ইডির দাবি, ২০১৮ সালের মে মাসে তিহাড় জেলের ভিতরে সুকেশের ‘সাজানো অফিসে’ তাঁর সঙ্গে দেখা হয়েছিল চাহতের। সে সময় পিঙ্কি একটি নীল রঙের ভারসাচে ব্যাগ-সহ দু’লক্ষ টাকা দিয়েছিলেন চাহতকে। ওই সাক্ষাতের জন্য বিমানটিকিটেরও ব্যবস্থা করেছিলেন পিঙ্কি।

ইডির দাবি, ২০১৮ সালের মে মাসে তিহাড় জেলের ভিতরে সুকেশের ‘সাজানো অফিসে’ তাঁর সঙ্গে দেখা হয়েছিল চাহতের। সে সময় পিঙ্কি একটি নীল রঙের ভারসাচে ব্যাগ-সহ দু’লক্ষ টাকা দিয়েছিলেন চাহতকে। ওই সাক্ষাতের জন্য বিমানটিকিটেরও ব্যবস্থা করেছিলেন পিঙ্কি।

১৬ ২২
চার্জশিটে ওই সাক্ষাতের উল্লেখ করে ইডির দাবি, দিল্লি বিমানবন্দর থেকে একটি বিএমডব্লিউ গাড়িতে করে তিহাড়ের ৩ নম্বর গেট দিয়ে ঢুকেছিলেন চাহতেরা। সেখান থেকে ইনোভা গাড়িতে তিহাড়ে সুকেশের  অফিসে যান তাঁরা। সুকেশ যে হোমরাচোমরা, তা-ও নাকি দাবি করেছিলেন পিঙ্কি। সিসিটিভি ক্যামেরায় তাঁদের চেহারা যাতে ধরা না পড়ে, সে জন্যই চাহতকে মাথা নিচু করে বসতে বলেছিলেন সুকেশের সহযোগী। এমনকি, জেলের রেজিস্টারেও সই করেননি তিনি। সঞ্জয় চন্দ্র নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে জেলের দু’জন উর্দিপরা রক্ষীই নাকি তাঁদেরকে সুকেশের অফিসে নিয়ে গিয়েছিলেন।

চার্জশিটে ওই সাক্ষাতের উল্লেখ করে ইডির দাবি, দিল্লি বিমানবন্দর থেকে একটি বিএমডব্লিউ গাড়িতে করে তিহাড়ের ৩ নম্বর গেট দিয়ে ঢুকেছিলেন চাহতেরা। সেখান থেকে ইনোভা গাড়িতে তিহাড়ে সুকেশের অফিসে যান তাঁরা। সুকেশ যে হোমরাচোমরা, তা-ও নাকি দাবি করেছিলেন পিঙ্কি। সিসিটিভি ক্যামেরায় তাঁদের চেহারা যাতে ধরা না পড়ে, সে জন্যই চাহতকে মাথা নিচু করে বসতে বলেছিলেন সুকেশের সহযোগী। এমনকি, জেলের রেজিস্টারেও সই করেননি তিনি। সঞ্জয় চন্দ্র নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে জেলের দু’জন উর্দিপরা রক্ষীই নাকি তাঁদেরকে সুকেশের অফিসে নিয়ে গিয়েছিলেন।

১৭ ২২
তিহাড়ে সুকেশের অফিসে বড়সড় টিভি, প্লে-স্টেশন, সোফা, ফ্রিজ, ফোন থেকে শুরু করে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত যন্ত্রও ছিল বলে ইডির দাবি। ওই অফিসেই গুচি, এলভির মতো নানা ব্র্যান্ডে ব্যাগ, রোলেক্সের ঘড়িও পড়েছিল বলে চার্জশিটে লিখেছে ইডি।

তিহাড়ে সুকেশের অফিসে বড়সড় টিভি, প্লে-স্টেশন, সোফা, ফ্রিজ, ফোন থেকে শুরু করে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত যন্ত্রও ছিল বলে ইডির দাবি। ওই অফিসেই গুচি, এলভির মতো নানা ব্র্যান্ডে ব্যাগ, রোলেক্সের ঘড়িও পড়েছিল বলে চার্জশিটে লিখেছে ইডি।

১৮ ২২
২০২১ সালের ১৬ ডিসেম্বর চাহতের বয়ান রেকর্ড করে ইডি। নিজের বয়ানে চাহতের দাবি ছিল, ২০১৮ সালের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি নাগাদ পিঙ্কি তাঁকে ফোন করে জানিয়েছিলেন যে এক বন্ধুর একটি ইভেন্টের জন্য ব্লগারের খোঁজ করছেন তিনি। যদিও সেই ইভেন্টটি আর হয়নি। সে সময় নিজেকে অ্যাঞ্জেল নামে পরিচয় দেন তিনি। লস অ্যাঞ্জেলেস, দুবাই, মুম্বইয়ে তাঁর ট্যালেন্ট খোঁজার এজেন্সিও রয়েছে বলে জানিয়েছিলেন বলে পিঙ্কি। পাশাপাশি, নিজেকে লস অ্যাঞ্জেলেসে বসবাসকারী আইনজীবী হিসাবেও পরিচয় দেন তিনি।

২০২১ সালের ১৬ ডিসেম্বর চাহতের বয়ান রেকর্ড করে ইডি। নিজের বয়ানে চাহতের দাবি ছিল, ২০১৮ সালের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি নাগাদ পিঙ্কি তাঁকে ফোন করে জানিয়েছিলেন যে এক বন্ধুর একটি ইভেন্টের জন্য ব্লগারের খোঁজ করছেন তিনি। যদিও সেই ইভেন্টটি আর হয়নি। সে সময় নিজেকে অ্যাঞ্জেল নামে পরিচয় দেন তিনি। লস অ্যাঞ্জেলেস, দুবাই, মুম্বইয়ে তাঁর ট্যালেন্ট খোঁজার এজেন্সিও রয়েছে বলে জানিয়েছিলেন বলে পিঙ্কি। পাশাপাশি, নিজেকে লস অ্যাঞ্জেলেসে বসবাসকারী আইনজীবী হিসাবেও পরিচয় দেন তিনি।

১৯ ২২
নিকিতা এবং চাহতের মতো সোফিয়াকেও একই ভাবে বহুমূল্য উপহার দিয়েছিলেন বলে সুকেশের বিরুদ্ধে অভিযোগ। গুটি কয়েক সিনেমায় অভিনয় করা সোফিয়ার সঙ্গেও নাকি দেখা করেছিলেন পিঙ্কি। সুকেশের সঙ্গে একটি ছবি করার জন্যই নাকি তাঁর সঙ্গে তিহাড় জেলে দেখা করেছিলেন সোফিয়া। ২০১৮ সালের মে মাসে তাঁদের প্রথম দেখা হয়। সেই সাক্ষাতের পর ১৫ দিন পর সোফিয়া একা তাঁর সঙ্গে দেখা করতে গেলে তাঁকে নাকি দেড় লক্ষ টাকার একটি এলভি ব্যাগ দিয়েছিলেন সুকেশ।

নিকিতা এবং চাহতের মতো সোফিয়াকেও একই ভাবে বহুমূল্য উপহার দিয়েছিলেন বলে সুকেশের বিরুদ্ধে অভিযোগ। গুটি কয়েক সিনেমায় অভিনয় করা সোফিয়ার সঙ্গেও নাকি দেখা করেছিলেন পিঙ্কি। সুকেশের সঙ্গে একটি ছবি করার জন্যই নাকি তাঁর সঙ্গে তিহাড় জেলে দেখা করেছিলেন সোফিয়া। ২০১৮ সালের মে মাসে তাঁদের প্রথম দেখা হয়। সেই সাক্ষাতের পর ১৫ দিন পর সোফিয়া একা তাঁর সঙ্গে দেখা করতে গেলে তাঁকে নাকি দেড় লক্ষ টাকার একটি এলভি ব্যাগ দিয়েছিলেন সুকেশ।

২০ ২২
সোফিয়াদের মতোই আরুষাকেও টাকা দিয়েছিলেন সুকেশ। তবে আরুষার দাবি, সুকেশের সঙ্গে কথা হলেও দেখাসাক্ষাৎ হয়নি তাঁর। যদিও সুকেশের থেকে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ৫.২০ লক্ষ টাকা পেয়েছিলেন তিনি। আরুষার দাবি, তার থেকে এক লক্ষ টাকা তিনি পিঙ্কিকে দিয়েছিলেন। চলতি বছরের ৩  জানুয়ারি ইডিকে নিজের বয়ানে এই দাবি করেছিলেন আরুষা। সে সময় নাকি পিঙ্কি নিজেকে ‘আফরিন’ নামে পরিচয় দিয়েছিলেন।

সোফিয়াদের মতোই আরুষাকেও টাকা দিয়েছিলেন সুকেশ। তবে আরুষার দাবি, সুকেশের সঙ্গে কথা হলেও দেখাসাক্ষাৎ হয়নি তাঁর। যদিও সুকেশের থেকে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ৫.২০ লক্ষ টাকা পেয়েছিলেন তিনি। আরুষার দাবি, তার থেকে এক লক্ষ টাকা তিনি পিঙ্কিকে দিয়েছিলেন। চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি ইডিকে নিজের বয়ানে এই দাবি করেছিলেন আরুষা। সে সময় নাকি পিঙ্কি নিজেকে ‘আফরিন’ নামে পরিচয় দিয়েছিলেন।

২১ ২২
ইডির দাবি, ২০২০ সালে ডিসেম্বরে ‘শেখর’ ওরফে সুকেশের সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছিল সোফিয়ার। সুকেশ নাকি সোফিয়ার ছবি দেখার পর তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে চেয়েছিলেন। হোয়াটসঅ্যাপে তাঁদের কথাবার্তা হয়েছিল বলে সোফিয়ার দাবি। তাঁদের মধ্যে সুকেশের পরিবার নিয়েও কথা হয়েছিল বলে দাবি। এমনকি, পুণের এক পুলিশকর্তার নাম করে নাকি সুকেশের দাবি ছিল, সোফিয়া শহরে সুরক্ষিত থাকবেন।

ইডির দাবি, ২০২০ সালে ডিসেম্বরে ‘শেখর’ ওরফে সুকেশের সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছিল সোফিয়ার। সুকেশ নাকি সোফিয়ার ছবি দেখার পর তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে চেয়েছিলেন। হোয়াটসঅ্যাপে তাঁদের কথাবার্তা হয়েছিল বলে সোফিয়ার দাবি। তাঁদের মধ্যে সুকেশের পরিবার নিয়েও কথা হয়েছিল বলে দাবি। এমনকি, পুণের এক পুলিশকর্তার নাম করে নাকি সুকেশের দাবি ছিল, সোফিয়া শহরে সুরক্ষিত থাকবেন।

২২ ২২
ইডির চার্জশিটের পর এ বার দিল্লি পুলিশের নজরেও পড়ে গিয়েছেন ওই চার মডেল-অভিনেত্রী। জ্যাকলিন এবং নোরার মতো তাঁদেরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হতে পারে বলে সংবাদমাধ্যমের দাবি।

ইডির চার্জশিটের পর এ বার দিল্লি পুলিশের নজরেও পড়ে গিয়েছেন ওই চার মডেল-অভিনেত্রী। জ্যাকলিন এবং নোরার মতো তাঁদেরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হতে পারে বলে সংবাদমাধ্যমের দাবি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
আরও গ্যালারি

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.