Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

দু’মুখো কচ্ছপছানা! জন্মের পরেই মৃত্যু, পশুপ্রেমী মহলে তোলপাড়

সংবাদ সংস্থা
কুয়ালা লামপুর ২০ জুলাই ২০১৯ ০৯:৩০
দু'মাথাওয়ালা কচ্ছপ মিলল মবুল দ্বীপে। ছবি সৌজন্যে: এএফপি।

দু'মাথাওয়ালা কচ্ছপ মিলল মবুল দ্বীপে। ছবি সৌজন্যে: এএফপি।

মালয়েশিয়ার মবুল দ্বীপে সন্ধান মিলল দু’মাথাওয়ালাএক সবুজ রঙের সামুদ্রিক কচ্ছপ। কিন্তু সদ্যজাত সেই কচ্ছপছানাকে বেশিদিন বাঁচানো যায়নি। সোমবার সমুদ্র উপকূলবর্তী বালির চরেরবাসায় পাওয়া যায় ওই বাচ্চা কচ্ছপটিকে। একই সঙ্গে আরও ৯০টি কচ্ছপছানা মিলেছে ওই বাসা থেকে।

সমুদ্র জীববিজ্ঞানী তথা সামুদ্রিক জীবদের নিয়ে কাজ করা একটি সংস্থার কনজারভেশন ম্যানেজার ডেভিড ম্যাকান জানিয়েছেন, ওই কচ্ছপটিকে দেখে তিনি মুগ্ধ হয়ে গিয়েছিলেন। বাচ্চা কচ্ছপটির দুটো মাথা। কিন্তু দুটো মাথাথাকার ফলে শরীর ভারী হয়ে গিয়ে তো তার ডুবে যাওয়ার কথা। জলের ভিতর সে সাঁতার কাটত কী ভাবে? ডেভিডের ব্যাখ্যা, সামুদ্রিক প্রাণীদের সাঁতার কাটার ‘ফ্লিপার’থাকে। দু’মাথাওয়ালা এই কচ্ছপটির ডানদিকের ফ্লিপার জলের মধ্যে নিয়ন্ত্রণ করত তার ডানদিকের মাথা। আর বাঁ দিকের ফ্লিপারটি নিয়ন্ত্রণ করতআর একটিকে। ফলে সাঁতার কাটা বা হাঁটার সময় তার কোনও রকমের অসুবিধা হওয়ার কথা ছিল না।

Advertisement



বিশেষজ্ঞের মতে দু'মুখো সদ্যজাত কচ্ছপটির সাঁতার কাটা বা হাঁটার সময় কোনও রকমের অসুবিধা হয়না। ছবি সৌজন্য: এএফপি।

ডেভিড যে সংস্থার কনজারভেশন ম্যানেজারতার চেয়ারম্যানমহম্মদ খাইরুদ্দিন রিমান জানিয়েছেন, এর আগেতাঁরা প্রায় ১৩ হাজারেরওবেশি সামুদ্রিক কচ্ছপ উদ্ধার করেছেন। কিন্তু এমন দু’মাথাওয়ালা কচ্ছপ তাঁরা আগে কখনও দেখেননি।

সেন নাথননামে এক পশু চিকিৎসক জানিয়েছেন, গত সোমবার ওই কচ্ছপটির সন্ধান মেলার পর বুধবারই সে মারা যায়। মৃত্যুর কারণ এখনও জানা যায়নি। তবে তাঁর দাবি, এটাই প্রথম নয়, এর আগে ২০১৪ সালে মালয়েশিয়ার পূর্ব উপকূলে পাওয়া গিয়েছিল এমনই একটি দু’মাথাওয়ালা কচ্ছপ। সেটি বেঁচে ছিল তিন মাস।

আরও পড়ুন: রবীন্দ্র সরোবরে কচ্ছপ, সম্মতি বন দফতরের

আরও পড়ুন

Advertisement