ভারতে এটা ভাবাই যায় না। জাতীয় দলের কোনও ক্রিকেটার ট্রেনে করে মাঠে আসছেন, এটা কল্পনাও করা যায় না। এমনকী, আইপিএলে খেলেন, এমন ক্রিকেটারও তা করবেন না। রনজি খেলতেও তা করেন না কেউ। অ্যালেস্টেয়ার কুক সেজন্যই ব্যতিক্রমী।

শনিবার কেরিয়ারের বিদায়ী টেস্ট খেলতে টিউব রেল চড়ে কেনিংটন ওভালে এসেছিলেন কুক। এমনিতে ম্যাচের দিন তারকা ক্রিকেটাররা সাধারণত কোথাও আমজনতার সঙ্গে একই পরিবহন মাধ্যমে  খেলতে আসেন না। আর কুকের এটা শুধু আরও একটা টেস্ট ছিল না। ছিল কেরিয়ারের শেষ টেস্ট। সেখানে তিনি লন্ডনের ভূগর্ভস্থ রেলে চড়ে মাঠে আসায় সৃষ্টি হয়েছে চাঞ্চল্যের।

কুক অবশ্য একা ছিলেন না। তাঁর সঙ্গেই টিউবে চড়ে স্টেডিয়ামে এসেছিলেন ইংল্যান্ডের জেমস অ্যান্ডারসন, অলি পোপ, কিটন জেনিংস ও দল পরিচালন সমিতির আরও কয়েকজন সদস্য।

আরও পড়ুন: এশিয়া কাপে বাকি সব দল এক হোটেলে, রোহিতরা অন্য হোটেলে

আরও পড়ুন: ক্যাপ্টেন কোহালিকে সরিয়ে দিচ্ছে আরসিবি?

আরও পড়ুন: আম্পায়ারকে চোর-মিথ্যুক বলে গাল, ২৪তম গ্র্যান্ড স্লাম জেতা হল না সেরেনার

ইংল্যান্ড শিবির সূত্রে জানা গিয়েছে, এটাই কুকের প্রথমবার টিউবে চ়ড়ে টেস্ট খেলতে আসা নয়। কুক যেখানে থাকেন, সেখান থেকে টিউবই হল মাঠে আসার সবথেকে সহজ পথ। টিউবে চড়ে আসার সময় কুককে অবশ্য সমর্থকদের আবদারের মুখে পড়তে হচ্ছে। কেউ সেলফি তুলছেন। কেউ চাইছেন অটোগ্রাফ। বিরক্ত না হয়ে হাসি মুখে সব আবদার মিটিয়েছেন কুক। মনঃসংযোগের সমস্যা হতে পারে টেস্টে, এমন কথা বলেননি। কাউকে দূরে সরাননি। বরং যে ভাবে তাঁকে দেখে সহযাত্রীরা হাততালি দিয়ে উঠেছেন, তা উপভোগ করেছেন। তাই ইংল্যান্ড শিবির জানিয়েছে, পঞ্চম টেস্টের বাকি দিনগুলোতেও কুক মাঠে আসবেন টিউবে চড়েই।

(ক্রিকেটের খবর,ফুটবলের খবর, টেনিসের খবর, হকির খবর - খেলার খবরের সেরা ঠিকানা আমাদের খেলা বিভাগ।)