স্বার্থ সংঘাতের অভিযোগ থেকে রাহুল দ্রাবিড়কে মুক্ত করল কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্স (সিওএ)। একই সঙ্গে জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে তাঁর নিয়োগে সম্মতিও দিল তারা। 

সিওএ-র নতুন সদস্য লেফটেন্যান্ট জেনারেল রবি থোড়গে বলেছেন, বল এখন ভারতীয় বোর্ডের অম্বাডসমান ও নীতি নির্ধারক অফিসার ডি কে জৈনের কোর্টে। ‘‘রাহুল স্বার্থসংঘাতের মধ্যে পড়ছে না। ওকে একটা নোটিস দেওয়া হয়েছিল। আমরা রাহুলের নিয়োগকে ছাড়পত্র দিয়ে দিয়েছি। তবে অম্বাডসমান যদি স্বার্থসংঘাত রয়েছে মনে করেন তা হলে আমরা নিজেদের যা মনে হয়েছে সেটা জানাব। কেন আমরা স্বার্থসংঘাতের কিছু দেখিনি, সেটা বলব,’’ বলেছেন তিনি।

দ্রাবিড়ের বিরুদ্ধে স্বার্থসংঘাতের অভিযোগ ওঠে জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমির ডিরেক্টর পদে যোগ দেওয়ার পরে। কারণ, তিনি ইন্ডিয়া সিমেন্টস কোম্পানির পদাধিকারী। যারা আইপিএল দল চেন্নাই সুপার কিংসের মালিক। দ্রাবিড় ইস্তফা দেননি, তবে বিনা পারিশ্রমিকে ছুটি চেয়েছেন।