ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর সাক্ষাৎকার দেওয়া মানে সেখানে অবধারিত ভাবে আসবে লিয়োনেল মেসি প্রসঙ্গ। কে বড়, রোনাল্ডো না মেসি তা নিয়ে তর্ক থামার নয়। এ বার পর্তুগিজ মহাতারকা স্বয়ং সেই বিতর্কে যোগ দিলেন এবং পরিষ্কার দাবি করলেন যে মেসির থেকে একটা জায়গাতে অন্তত তিনি এগিয়ে। সেটা হচ্ছে, ইউরোপের একাধিক ক্লাবের হয়ে খেলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতা। মেসির সাফল্য সেখানে একটা মাত্র ক্লাবে।

রোনাল্ডো সাক্ষাৎকারে মেসিকে নিয়ে বলেছেন, ‘‘ও অসাধারণ ফুটবলার। পাঁচ বার ব্যালন ডি’ওর পাওয়ার জন্য লোকে ওকে মনে রাখবে না। মনে রাখবে ঠিক আমার মতো বছরের পর বছর নিজের খেলায় উন্নতি করার জন্য।’’ রোনাল্ডোর আরও কথা, ‘‘রোজ সকালে ঘুম থেকে উঠে আরও ভাল কিছু করার শপথ নিই। শুধু অর্থ উপার্জনের জন্য ফুটবলটা খেলি না। ঈশ্বরকে ধন্যবাদ যে আমার অর্থের অভাব নেই। তাই যা করি তা ফুটবল ইতিহাসে জায়গা স্থায়ী করতে।’’ 

মেসি চার বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছেন। রোনাল্ডো পাঁচ বার। একবার জিতেছেন ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডে। রিয়াল মাদ্রিদের চার বার। মেসির যাবতীয় সাফল্য বার্সেলোনাতেই। ইউরোপের সেরা টুর্নামেন্টে সব চেয়ে বেশি গোলও রোনাল্ডোর। ১৬২ ম্যাচে ১২৬টি। মেসির ১১২ টি। ১৩৫ ম্যাচে। যে প্রসঙ্গ টেনে রোনাল্ডোর মন্তব্য, ‘‘মেসির সঙ্গে আমার ফারাকটা হচ্ছে আমি একাধিক ক্লাবে খেলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছি। ছ’টি মরসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েছি। মনে হয় না খুব বেশি ফুটবলার পাঁচ বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগজয়ী দলে ছিল। তাই এই জায়গাটাতে নিজেকে আমি আলাদা ভাবতেই পারি।’’      

সাক্ষাৎকারে জ়িনেদিন জ়িদানকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন রোনাল্ডো। বলেছেন, ‘‘জ়িদান আমাকে প্রচুর সাহায্য করেছেন। এমনিতেই ফুটবলার হিসেবে ওঁকে অসম্ভব শ্রদ্ধা করতাম। কিন্তু একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে ওঁর প্রতি শ্রদ্ধা অনেক বেড়ে যায় আমার। উনি যে ভাবে ফুটবলারদের সঙ্গে মিশতেন, যে ভাবে কথা বলতেন, বিশেষ করে আমার সঙ্গে যে ব্যবহার করতেন, তা সব সময়ই মুগ্ধ করত।’’