শরীরে ১৬টি ভারতীয় ভাষায় হার্দিক পাণ্ড্যর নামের ট্যাটু। কোয়ম্বত্তুরের মুগুনাথন দ্রুত সাড়া ফেলেছেন হার্দিকের ফ্যান হিসেবে। এ বার সেই সুপারফ্যানের চিকিৎসার খরচ দিতে এগিয়ে এলেন বদোদরার অলরাউন্ডার।

গত জানুয়ারিতে এক টক শো-তে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য হার্দিক যখন ফিরে এসেছিলেন অস্ট্রেলিয়া থেকে, তখন মাথা মুড়িয়ে ফেলেছিলেন মুগুনাথন। জাতীয় দলে হার্দিকের দ্রুত প্রত্যাবর্তনের জন্য প্রার্থনাও করেছিলেন। হার্দিক যেহেতু ঘন ঘন হেয়ারস্টাইল বদলে ফেলেন, সে দিকেও নজর থাকে ভক্তের। হার্দিকের হেয়ারস্টাইল সঙ্গে সঙ্গে উঠে আসে মুগুনাথনের মাথায়।

মুগুনাথন যেন ক্রিকেট মাঠে আসেন হার্দিকের জন্যই। বঞ্চিত করেন না হার্দিকও। অটোগ্রাফ দেন, একসঙ্গে ছবিও তোলেন। সেই তিনিই সম্প্রতি দুর্ঘটনায় পড়েছেন।

আরও পড়ুন: মেসি ভোট দিলেও, ফিফার বর্ষসেরা বাছাইয়ে মেসিকে গত দশ বছরে কখনই ভোট দেননি রোনাল্ডো!​

আরও পড়ুন: কোথায় সমস্যা ঋষভ পন্থের, চিনিয়ে দিলেন কপিল

ধর্মশালায় দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে হার্দিককে দেখতে সড়ক পথে আসছিলেন মুগুনাথন। কোয়ম্বত্তুর থেকে ট্রেনে আসার সুযোগ থাকলেও তা নেননি। ৩০০০ কিলোমিটার সফর সড়ক পথেই করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি। জব্বলপুরের কাছে এসে দুর্ঘটনায় পড়েন তিনি। হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিত্সকরা জানান, তাঁর অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন।

খবর পেয়ে ভক্তের সাহায্যে এগিয়ে আসেন হার্দিক। তাঁর চিকিত্সার যাবতীয় খরচ দেওয়ার কথা জানান। অস্ত্রোপচারের পর আপাতত কোয়ম্বত্তুরের বাড়িতে রয়েছেন তিনি। চিকিত্সকরা জানিয়েছেন, আস্তে আস্তে সুস্থ হয়ে উঠছেন তিনি।