রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর-এর বিরুদ্ধে প্রায় অসম্ভবকে সম্ভব করে ফেলেছিলেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি।

রবিবার চেন্নাই অধিনায়কের মারমুখী ইনিংস দেখার পরে স্থির থাকতে পারেননি ভক্তরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁদের দাবি, ধোনিকে দেশের প্রধানমন্ত্রী করা হোক। 

কেরিয়ারের সায়াহ্নে পৌঁছে গিয়েছেন ধোনি। এখনও তাঁর ব্যাট ঝলসে ওঠে। মোক্ষম সময়ে ৪৮ বলে ৮৪ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন চেন্নাই অধিনায়ক।

আরও পড়ুন: টানা হারে রক্তাক্ত প্রাক্তন নাইট অধিনায়ক, দিলেন পুরনো দলকে জয়ে ফেরার মন্ত্র

আরও পড়ুন: দল নির্বাচন না মানসিকতা, ঠিক কোন জায়গায় সমস্যা হচ্ছে প্রায় ছিটকে যাওয়া নাইটদের

শেষ ওভারে জেতার জন্য সিএসকে-র দরকার ছিল ২৬ রান। উমেশ যাদবের ওভার থেকে একটি বাউন্ডারি ও তিনটি ওভার বাউন্ডারি হাঁকান ধোনি। শেষ বলটা ঠিকঠাক সংযোগ না হওয়ায় সিএসকে-কে ম্যাচটা হারতে হয়েছে। খেলার শেষে কোহালি পর্যন্ত বলেছেন, ধোনি ভয় পাইয়ে দিয়েছিলেন তাঁদের। হেরে গেলেও ধোনি জিতে নিয়েছেন সবার মন। 

 

ধোনির বিধ্বংসী ইনিংস দেখার পরে দেশের ক্রিকেটভক্তদের মাথায় নায়ক হিসেবে ঘুরপাক খাচ্ছে একজনেরই নাম। তিনি ধোনি। এক ভক্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, জানি না ভবিষ্যতে ধোনি কোনওদিন নির্বাচনে দাঁড়াবেন কি না। যদি নির্বাচনে দাঁড়ান, তা হলে ধোনিকেই ভোট দেব। আর এক ভক্ত একই সুরে লিখেছেন, ‘‘ধোনি ফর পিএম।’’

 

দেশে এখন নির্বাচনের হাওয়া। দেশের ছোট বড় সব নেতারা ভোটযুদ্ধে অবতীর্ণ হয়েছেন মসনদ দখল করার জন্য। কিন্তু ধোনি এমনই একজন নেতা, যাঁর উপরে অগাধ আস্থা দেশের ক্রিকেটভক্তদের।

 

তাঁদের বিশ্বাস ধোনি নেতা হলে দল সাফল্যের পথে এগিয়ে যাবে। দেশের মন জিততে ধোনির মতো নেতার নির্বাচনী যুদ্ধে নামার প্রয়োজনই নেই। তিনি যে অনেক আগেই জিতে নিয়েছেন দেশের মন।