সুরক্ষার প্রশ্নে পাকিস্তানে গিয়ে সিরিজ খেলতে রাজি হননি মালিঙ্গা-ম্যাথিউজরা। ফলে প্রশ্নের মুখে এসে দাঁড়িয়েছে শ্রীলঙ্কা-পাকিস্তান সিরিজ। শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটারদের এই সরে দাঁড়ানোয় তাঁদের আক্রমণ করেছিলেন রামিজ রাজা-সহ একাধিক পাক প্রাক্তনী। এ বার সেই সুরেই টুইটে আক্রমণ শানালেন শোয়েব আখতার।

পাকিস্তানের প্রাক্তন পেসার শোয়েব আখতার টুইটে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন শ্রীলঙ্কার ১০ ক্রিকেটারের প্রতি। শোয়েব জানিয়েছেন, ‘যে দশ ক্রিকেটার পাকিস্তানে খেলতে আসতে রাজি নন, তাঁদের প্রতি আমি অসন্তুষ্ট। পাকিস্তান সব সময় শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটকে সাপোর্ট করে এসেছে। শ্রীলঙ্কায় ইস্টারের দিন জঙ্গি হানা হওয়ার পরে পাকিস্তানই সে দেশে প্রথম বিদেশি দল হিসেবে অনূর্ধ্ব-১৯ দল পাঠিয়েছিল।’

 

কিছু ক্ষণের মধ্যেই আবার তিনি টুইট করে বলেন, ‘১৯৯৬ সালে অস্ট্রেলিয়া এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ যখন শ্রীলঙ্কা যেতে আপত্তি জানায়, তখন ভারতের সঙ্গে শ্রীলঙ্কায় দল পাঠায় পাকিস্তান।’

 

২০০৯ সালে লাহৌরে টেস্ট চলাকালীন শ্রীলঙ্কার টিম বাসে সন্ত্রাসবাদী হামলা হয়। ছ’জন ক্রিকেটার আহত হয়েছিলেন সেই হামলায়। পাকিস্তানের ছয় পুলিশ কর্মী ও দু’জন সাধারণ মানুষ মারা গিয়েছিলেন। এই ঘটনার পর থেকেই অধিকাংশ দেশ পাকিস্তানে খেলতে রাজি হয়নি।

আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে ৯ অক্টোবর পর্যন্ত পাকিস্তানের মাটিতে তিনটি ওয়ান-ডে,  সম সংখ্যক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার কথা শ্রীলঙ্কার। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে ক্রিকেটাররা আলোচনায় বসেছিলেন। তার পরেই করুণারত্নে, মালিঙ্গা, ম্যাথিউজ, দীনেশ চান্দিমল, সুরঙ্গ লাকমল, আকিলা ধনঞ্জয়, ধনঞ্জয় ডি’ সিলভা, কুশল পেরেরা, থিসারা পেরেরা ও নিরোশান ডিকওয়েলা সরে দাঁড়িয়েছেন। তাঁদের উদ্দেশেই অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন শোয়েব।