• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পয়েন্ট ‘০’ তো কী, খেলরত্ন পাচ্ছেন বিরাট কোহালি!

Virat and Bajrang
বজরংকে টপকে খেল রত্ন পুরস্কার পাচ্ছেন বিরাট।

বিরাট কোহালি ও মীরাবাই চানুর রাজীব গাঁধী খেলরত্ন পুরস্কার পাওয়া নিয়ে বিতর্ক চরমে। কারণ, এই পুরস্কারের ক্ষেত্রে যে পয়েন্ট বিবেচনা করা হয়, তাতে বিরাট কোহালি বা চানুর চেয়ে বজরং পুনিয়া ও ভিনেশ ফোগত, দুই জনেই অনেক এগিয়ে ছিলেন।

১১ সদস্যের নির্বাচকমণ্ডলীর কাছে পয়েন্টের যে হিসেব ছিল, তাতে বিরাটের নামের পাশে কোনও পয়েন্টই ছিল না। যেহেতু ক্রিকেটীয় পারফরম্যান্সের জন্য কোনও পয়েন্ট নেই, তাই ভারত অধিনায়ক পেয়েছিলেন ‘০’ পয়েন্ট। জানা গিয়েছে, বক্সার মীরাবাই চানু পেয়েছিলেন ৪৪ পয়েন্ট।

অথচ, দুই কুস্তিগির বজরং ও ভিনেশ উভয়েরই পয়েন্ট ৮০। জানা গিয়েছে, অন্তত ছয় জনের পয়েন্ট ছিল মীরাবাইয়ের চেয়ে বেশি। এঁরা হলেন প্যারা-অ্যাথলিট দীপা মালিক (৭৮.৪ পয়েন্ট), টেবল টেনিস খেলোয়াড় মণিকা বাত্রা (৬৫ পয়েন্ট), বক্সার বিকাশ কৃষ্ণান (৫২ পয়েন্ট) ও তিরন্দাজ অভিষেক বর্মা (৫৫.৩ পয়েন্ট)।

আরও পড়ুন: খেলরত্ন না পাওয়ায় আদালতে যাওয়ার হুমকি কুস্তিগির বজরঙের​

আরও পড়ুন: ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ফের ম্যাচ, পেরোতে হল ১৪০ কিমি, ক্ষোভে ফুটছে বাংলাদেশ​

 

কিন্তু, কেন কোহালির পয়েন্ট শূন্য? জানা গিয়েছে, ক্রিকেট অলিম্পিক ক্রীড়া নয়। তাই বিরাটের পারফরম্যান্স যত উজ্জ্বলই হোক না কেন, তার জন্য কোনও পয়েন্ট নেই। সম্ভবত এই কারণেই ২০১৬ ও ২০১৭ সালে বিরাটকে ভারতীয় ক্রীড়ার এই সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়া হয়নি। কোহালির খেলরত্ন পাওয়া নিয়ে এ বারও চলেছে তর্ক-বিতর্ক। কিন্তু, ১১ জনের মধ্যে আট জন কোহালির সমর্থনে হাত তোলেন।

মীরাবাইয়ের সঙ্গে আবার লড়াইয়ে ছিলেন কিদাম্বি শ্রীকান্ত। কিন্তু, এখানে সাত জন হাত তোলেন মীরাবাইয়ের পক্ষে। শ্রীকান্তের সমর্থনে হাত তোলেন ছয় জন। আলোচনায় বজরং ও ভিনেশের নাম উঠেছিল। কিন্তু, তারপর চর্চা এগোয়নি। পুরস্কার ঘোষণা হওয়ার পর ক্ষুব্ধ বজরং আদালতে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন।

(অলিম্পিক্স, এশিয়ান গেমস, কমনওয়েলথ গেমস হোক কিংবা ফুটবল বিশ্বকাপ, ক্রিকেট বিশ্বকাপ - বিশ্ব ক্রীড়ার মেগা ইভেন্টের সব খবর আমাদের খেলা বিভাগে।)

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন