×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ জুন ২০২১ ই-পেপার

গাঁটছড়া নিয়ে উত্তপ্ত হতে পারে মোহনবাগানের সভা

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৬:৪৭
—প্রতীকী ছবি।

—প্রতীকী ছবি।

চলতি মরসুমের ইন্ডিয়ান সুপার লিগে জামশেদপুর এফসি-র বিরুদ্ধে হেরে প্রথম ধাক্কা খেয়েছিল এটিকে-মোহনবাগান। রবিবার আওয়েন কয়েলের প্রশিক্ষণাধীন সেই জামশেদপুরের বিরুদ্ধে খেলতে নামার ২৪ ঘণ্টা আগে ক্লাবের বার্ষিক সাধারণ সভা নিয়ে উত্তপ্ত হতে পারে মোহনবাগান তাঁবু। যদিও শুক্রবার এসসি ইস্টবেঙ্গল বনাম হায়দরাবাদ ম্যাচ ড্র হওয়ায় প্লে-অফে খেলার ছাড়পত্র পেয়ে গেল সবুজ-মেরুন। কিন্তু তাতেও সমর্থকদের একাংশের ক্ষোভ যাচ্ছে না।

তিন বছর আগে শতাব্দীপ্রাচীন এই ক্লাবের বার্ষিক সাধারণ সভায় পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল। অভিযোগ ও পাল্টা অভিযোগের জেরে পরিস্থিতি উত্তেজক হয়ে ওঠে যে, তার জল গড়িয়েছিল থানা-পুলিশ পর্যন্ত। আবার যাতে তেমন পরিস্থিতি তৈরি না হয়, তার জন্য সতর্ক পদক্ষেপ করছে ক্লাব প্রশাসন। এর আগে ‍ফুটবল দলের নাম থেকে এটিকে শব্দটি সরানোর জন্য স্লোগান দিয়ে ক্লাবের সামনে বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন একদল সমর্থক। ফের সেই দাবি নিয়ে শনিবার দুপুরে সেই সমর্থকেরাই ক্লাবের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে পারেন বলে জানা গিয়েছে। তাই সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে বড় পুলিশ মোতায়েন থাকবে বলে খবর। যদিও মোহনবাগান কর্তারা আশাবাদী কোনও বিক্ষোভ না হওয়ার ব্যাপারে। ক্লাবের এক শীর্ষ কর্তা এ দিন ফোনে বললেন, ‍‘‍‘আশা করি, কোনও বিক্ষোভ হবে না। সদস্যদের মধ্যে যাঁরা আসবেন তাঁরা ক্লাবের ঐতিহ্য মেনেই আচরণ করবেন। অতীতে বার্ষিক সাধারণ সভায় ঝামেলা হলেও তা মোটেও শোভন ছিল না। তাই ওই ধরনের ঘটনা কাম্য নয়।’’ তবে রাত পর্যন্ত খবর, বিক্ষোভ দেখাতে বেলা বারোটার পরে ক্লাব তাঁবুর সামনে জমায়েত হতে পারেন প্রতিবাদী সমর্থকেরা। ক্লাবের বার্ষিক সাধারণ সভা শুরু হবে দুপুর তিনটে নাগাদ।

যদিও এটিকে-মোহনবাগান শিবির এই তপ্ত আবহ থেকে অনেক দূরে। গোয়ার মাঠে শুক্রবারেও এটিকে-মোহনবাগান কোচ আন্তোনিয়ো লোপেস হাবাস অনুশীলন সেরেছেন দলকে নিয়ে। জবি জাস্টিন, এদু গার্সিয়া-সহ একাধিক চোটগ্রস্ত ফুটবলার এ দিন অনুশীলন করেন। জামশেদপুরের পোক্ত রক্ষণ ভাঙার জন্য রয় কৃষ্ণ, মার্সেলিনহোদের বিশেষ অনুশীলন করান হাবাস।

Advertisement

১৬ ম্যাচে ৩৩ পয়েন্ট এটিকে-মোহনবাগানের। শীর্ষে থাকা মুম্বই সিটির চেয়ে এক পয়েন্ট পিছনে প্রীতম কোটালরা। তাঁদের লক্ষ্য লিগ শীর্ষে থেকে এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার যোগ্যতা অর্জন করা।

Advertisement