Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

‘ধোনির ডাক ফেরানোর আফশোস আজও তাড়া করে’

১৯৯৯ সালে টেস্টে অভিষেক ঘটেছিল নেহরার। ২০১৭ সালে শেষ টি টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেন তিনি। তবুও তাঁর নামের পাশে লেখা রয়েছে মাত্র ১৭টি টেস্ট।  

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ০৫ এপ্রিল ২০২০ ১৩:০৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
নেহরার কেরিয়ারে থাবা বসিয়েছিল চোট আঘাত। — নিজস্ব চিত্র।

নেহরার কেরিয়ারে থাবা বসিয়েছিল চোট আঘাত। — নিজস্ব চিত্র।

Popup Close

মহেন্দ্র সিংহ ধোনির খুবই পছন্দের বোলার তিনি। ২০০৯ সালে সেই ধোনির প্রস্তাবই প্রত্যাখ্যান করেছিলেন আশিস নেহরা। সেই সিদ্ধান্তের জন্য এখনও অনুশোচনা হয় দেশের বাঁ হাতি ফাস্ট বোলারের।

১৯৯৯ সালে টেস্টে অভিষেক ঘটেছিল নেহরার। ২০১৭ সালে শেষ টি টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেন তিনি। তবুও তাঁর নামের পাশে লেখা রয়েছে মাত্র ১৭টি টেস্ট। তা থেকে উইকেট নিয়েছেন ৪৪টি।

চোট আঘাত তাঁর কেরিয়ারে বার বার থাবা বসিয়েছে। এ হেন নেহরা এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘‘২০০৫ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত আমি দেশের হয়ে খেলিনি। সেই সময়ে ভারতীয় ক্রিকেটে অনেক পরিবর্তন ঘটে গিয়েছে। আমি যখন ফিরে আসি, তখন জাতীয় দলের নেতৃত্বে ধোনি। এ রকম নয় যে সেই সময়ে আমরা কেউ কারও সঙ্গে কথা বলতাম না। ২০০৯ সালে ধোনি আমাকে টেস্ট ক্রিকেটে নামার প্রস্তাব দিয়েছিল। কিন্তু ধোনির প্রস্তাব আমি ফিরিয়ে দিয়েছিলাম। সেই সিদ্ধান্তের জন্য আমার এখন আফশোসই হয়।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: বিধিনিষেধ উঠলেই হোক আইপিএল, চাইছেন সঞ্জয়

২০০৯ সালে ফিরে এসেই বল হাতে ম্যাজিক দেখান নেহরা। সেই বছরই ওয়ানডে-তে ৩১টি উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। পরের বছর ২৮টি উইকেট নিয়ে ২০১১ সালের বিশ্বকাপ দলে নিজের জায়গা পাকা করে ফেলেন।

ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পিছনে নেহরার ভূমিকা ছিল। তার পরেই আবার দল থেকে ছিটকে যান তিনি। ২০১৬ সালে ফের জাতীয় দলে প্রত্যাবর্তন ঘটে নেহরার। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে শেষ টি টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেন নেহরা।

আরও পড়ুন: বাবার সঙ্গে নাচের ভিডিয়ো, রোহিতের ট্রোলে ক্লিন বোল্ড চহাল

তাঁর কেরিয়ার ১৮ বছরের হলেও উইকেট প্রাপ্তির নিরিখে নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি নেহরা।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement