Advertisement
১৫ জুন ২০২৪

ঘরের তিন ম্যাচে মলিনার লক্ষ্য সাত

হেল্ডার পস্টিগা কি পরের এফসি গোয়া ম্যাচ খেলতে পারবেন? আটলেটিকো দে কলকাতার টিম ম্যানেজমেন্টের দাবি, রবিবার দিন ঘরের মাঠে জিকোর টিমের বিরুদ্ধে খেলতে নামবেন পস্টিগা।

মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে গোলের পর জাভি লারার উৎসব।

মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে গোলের পর জাভি লারার উৎসব।

নিজস্ব সংবাদদাতা
শেষ আপডেট: ১৩ অক্টোবর ২০১৬ ০৪:১৯
Share: Save:

হেল্ডার পস্টিগা কি পরের এফসি গোয়া ম্যাচ খেলতে পারবেন?

আটলেটিকো দে কলকাতার টিম ম্যানেজমেন্টের দাবি, রবিবার দিন ঘরের মাঠে জিকোর টিমের বিরুদ্ধে খেলতে নামবেন পস্টিগা। ইতিমধ্যেই তিনি প্র্যাকটিস শুরু করে দিয়েছেন। পাঁজরে চোটের জায়গায় তাঁর কোনও সমস্যা হচ্ছে না। আটলেটিকোর কোচিং স্টাফেদের একজন তো বলেই দিলেন, ‘‘মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ম্যাচে ওকে খেলানোর ঝুঁকি নেওয়া হয়নি। কারণ আটলেটিকোকে টানা তিনটে ঘরের মাঠে ম্যাচ খেলতে হবে। যেটা আমাদের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তবে পস্টিগা খেলার মতো ফিট রয়েছে। হয়তো এফসি গোয়া ম্যাচেই নেমে পড়বে।’’

ঘরের মাঠে তিন ম্যাচ থেকে কম করে সাত পয়েন্ট লক্ষ্য রাখছে আটলেটিকো। তবে কলকাতা টিমের কোচ জোসে মলিনা নাকি ফুটবলারদের টিম মিটিংয়ে বলেছেন, ‘‘আমরা ম্যাচ বাই ম্যাচ এগোব। তবে ঘরের মাঠে যে টানা তিনটি ম্যাচ রয়েছে, সেটা থেকে নয় পয়েন্ট আমাদের প্রথম লক্ষ্য থাকবে। তবে যে কোনও পরিস্থিতিতে যেন সাত পয়েন্টের কম আমরা না পাই।’’

চোটের জন্য নাতো তো আগে থেকেই টিমের বাইরে। এ ছাড়া পস্টিগার চোট ছিল। তবে পর্তুগিজ স্ট্রাইকার চোট সারিয়ে উঠেছেন বলে দাবি করছে আটলেটিকো টিম ম্যানেজমেন্ট। এর বাইরে টিমে আপাতত কোনও চোট-আঘাত সমস্যা নেই। নেই কার্ড সমস্যাও। পরের ম্যাচে এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে মোটামুটি পুরো টিমকেই পাচ্ছেন জোসে মলিনা। তবু টিমের মধ্যে একটা অস্বস্তি কাজ করছে। সেটা হল, তিন ম্যাচের মধ্যে দু’টিতেই ড্র করেছে আটলেটিকো। জিতেছে একটি ম্যাচ। এমনকী শেষ মুম্বই সিটি এফসি ম্যাচের দিন হিউমদের পারফরম্যান্স মোটেও ভাল ছিল না। মঙ্গলবার দিয়েগো ফোরলানের মতো ফুটবলারকে ছাড়াই খেলতে নেমেছিল মুম্বই। তার উপর আবার প্রণয় হালদার লালকার্ড দেখায় প্রায় কুড়ি মিনিট মুম্বই দশ জনে খেলেছিল। সেই সময়ই অবশ্য গোলশোধ করে আটলেটিকো। জাভি লারার অসাধারণ গোলটির জন্যই শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি ১-১ ড্র হয়। তবে প্রণয় লালকার্ড না দেখলে কলকাতা টিম কি আদৌ সমতা ফেরাতে পারত? আটলেটিকো কোচ মলিনা তো পরিষ্কার বলে দিয়েছেন, ‘‘বিরতির পর ওদের প্লেয়ার লালকার্ড দেখে বেরিয়ে যায়। মুম্বই দশ জন হয়ে যাওয়ায় আমাদের সুবিধে হয়। তা ছাড়া ওদের ডিফেন্ডাররা যে ভাবে রক্ষণ সামলেছে, তারও প্রশংসা করতে হবে।’’ তবে এখন যা পরিস্থিতি তাতে পরের গোয়া ম্যাচটি হিউম-দ্যুতিদের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

আটলেটিকো কোচও সে কথা মেনে নিয়েছেন। তবে মুম্বই ম্যাচের পর মলিনা দাবি করেন, ‘‘বিরতির আগে পর্যন্ত আমার টিমের ফুটবলারদের পারফরম্যান্স মোটেও ভাল ছিল না। এটা মানতেই হবে। ০-১ আমরা পিছিয়ে ছিলাম। তবে দ্বিতীয়ার্ধে আটলেটিকো কিন্তু ঘুরে দাঁড়িয়েছে। আমার মনে হয় অ্যাওয়ে ম্যাচ থেকে এক পয়েন্ট খারাপ নয়। এখন আমাদের হোম ম্যাচগুলো নিয়ে ভাবতে হবে। পর পর তিনটে হোম ম্যাচ আমাদের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’’

ঘরের মাঠে চেন্নাইয়ের সঙ্গে ড্র করেছিল আটলেটিকো। এ বার মুম্বই সিটি এফসি-র সঙ্গেও এক পয়েন্টে সন্তুষ্ট থাকতে হল। তিন ম্যাচে তাদের পয়েন্ট এখন পাঁচ। উল্টোদিকে জিকোর এফসি গোয়া আবার দু’টি ম্যাচ খেলে দু’টিতেই হেরেছে। আজ বৃহস্পতিবার মাতেরাজ্জির চেন্নাইয়ানের মুখোমুখি হবে তারা। এই মুহূর্তে গোয়া খুব একটা ভাল ছন্দে নেই। তবু গোয়াকে নিয়েই সতর্ক থাকছে পুরো কলকাতা টিমই। জিকোর টিমের বিরুদ্ধে অর্ণব মণ্ডলরা রবিবার নামবেন। তার আগে টিমকে গুছিয়ে নেওয়ার জন্য হাতে কিছুটা সময় পাচ্ছেন মলিনা। বুধবার বিকেলে মুম্বই থেকে কলকাতায় ফিরে অর্ণব-প্রীতমরা যে যার বাড়ি ফিরে গিয়েছেন। আজ আবার টিমের সঙ্গে তাদের যোগ দেওয়ার কথা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Jose Molina ATK Coach ISL 2016
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE