Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

ডার্বি বন্ধ, এটিকের খেলা যুবভারতীতে

ডার্বি না হলেও তার তিন দিন পরে বড়দিনে এটিকে বনাম বেঙ্গালুরুর ম্যাচের অনুমতি দিয়ে দিল পুলিশ। তবে ইন্ডিয়ান সুপার লিগের ওই গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২০ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৩:০১
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

কুড়ি হাজার দর্শক রেখে যুবভারতীতে রবিবারের ডার্বি করতে বলেছিল বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেট। মোহনবাগান এবং ফেডারেশন তাতে রাজি না হওয়ায় ভেস্তে গিয়েছে ২২ ডিসেম্বরের খেলা।

ডার্বি না হলেও তার তিন দিন পরে বড়দিনে এটিকে বনাম বেঙ্গালুরুর ম্যাচের অনুমতি দিয়ে দিল পুলিশ। তবে ইন্ডিয়ান সুপার লিগের ওই গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচেও যুবভারতীর বেশির ভাগ গ্যালারিই খালি থাকবে। ২৫ ডিসেম্বর সল্টলেকে অসংখ্য মানুষ আসেন নানা পার্কে বা সায়েন্স সিটির মতো জায়গায় আনন্দ করতে। সে জন্যই রয় কৃষ্ণ বনাম সুনীল ছেত্রীর দ্বৈরথের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল পুলিশ। কিন্তু এটিকের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ঠাসা সূচি রয়েছে। খেলা না হলে সমস্যা হবে। দরকার হলে খালি স্টেডিয়াম রেখেই ম্যাচ হবে। এই অবস্থায় আলোচনার পর ভি আই পি-সহ তিনটি গেট খোলার অনুমতি পেয়েছে এটিকে। সব মিলিয়ে কুড়ি হাজার দর্শক ঢুকতে পারবেন।

বড় দিনের ম্যাচের আগে অবশ্য ২১ ডিসেম্বর হায়দরাবাদের সঙ্গে খেলা রয়েছে আন্তোনিও হাবাসের দলের। সেই ম্যাচ খেলতে যাওয়ার আগে এটিকে কোচ বৃহস্পতিবার বলে দিলেন, ‘‘হায়দরাবাদ শক্তিশালী দল। গত বার ওদের এটিকে পাঁচ গোল দিলেও এ বার অন্য কোচ, অন্য দল। আমরা সতর্ক। গোয়ার বিরুদ্ধে শুধু রেফারিংয়ের জন্য নয়, আমরা খেলতে পারিনি বলেও হেরেছি।’’ তাঁর পাশে বসে দলের সেরা স্ট্রাইকার রয় কৃষ্ণ বলে দিয়েছেন, ‘‘অনেক দিন একসঙ্গে খেলছি বলে ডেভিড উইলিয়ামসের সঙ্গে আমার একটা বোঝাপড়া রয়েছে। সেটা কাজে লাগবে।’’ এটিকের বড় ধাক্কা অবশ্য চোটের জন্য আনাস এথানোডিকার দু’সপ্তাহ মাঠের বাইরে চলে যাওয়াটা।

Advertisement

আরও পড়ুন: রেনিয়ার জেতালেন মুম্বইকে

এ দিকে স্থগিত হয়ে যাওয়া আই লিগ ডার্বি করতে জানুয়ারির শেষের দিকের দু’টি ম্যাচের সূচি বদলানো হচ্ছে। দুই প্রধানের দুটি ম্যাচ বন্ধ করে বড় ম্যাচ করার চেষ্টা হচ্ছে। শনিবার বা সোমবার ডার্বির দিন ঘোষণা হতে পারে। এ দিকে পনেরো দিন খেলা না থাকলেও দুই প্রধানের অনুশীলন শুরু হয়ে গেল। মোহনবাগান কোচ কিবু ভাকুনা ২৩-২৮ ডিসেম্বর ছুটি দিয়েছেন জোসেবা বেইতিয়াদের। এরই মধ্যে জুলেন কলিনাসের বদলি ফুটবলার খুঁজতে নেমেছেন সবুজ-মেরুন কর্তারা। চোটের জন্য পুরো মরসুমেই নেই স্প্যানিশ মিডিয়ো। ইস্টবেঙ্গল কোচ আলেসান্দ্রো মেনেন্দেস এ দিন দলকে অনুশীলন করিয়েছেন। সে রকম কিছু ঘোষণা করেননি। হয়তো ক্রিসমাসের ছুটি ঘোষণা করে দেবেন।

আরও পড়ুন

Advertisement