Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

লা লিগা// বার্সেলোনা ২ : সেভিয়া ১

স্বাধীনতার গর্জনের মাঝে ছুটছে বার্সেলোনার রথ

বার্সেলোনা বনাম সেভিয়া ম্যাচ শুরুর আগে দেখা যায় গ্যালারিতে এক বিশাল পতাকা। যাতে ইংরেজি এবং ক্যাটালোনিয়ার ভাষা লেখা ছিল, ‘জাস্টিস।’ নব্বই মিন

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৬ নভেম্বর ২০১৭ ০৫:০৬
Save
Something isn't right! Please refresh.
ক্যাম্প ন্যু-তে বার্সেলোনা বনাম সেভিয়া ম্যাচ শুরুর আগে গ্যালারিতে সেই ব্যানার। ছবি: গেটি ইমেজেস

ক্যাম্প ন্যু-তে বার্সেলোনা বনাম সেভিয়া ম্যাচ শুরুর আগে গ্যালারিতে সেই ব্যানার। ছবি: গেটি ইমেজেস

Popup Close

গ্যালারির গর্জনে চাপা পড়ে যাচ্ছিল ফুটবলারদের উল্লাসও। যন্ত্রণা মিশে যাচ্ছিল আনন্দের সঙ্গে। ক্যাম্প ন্যু-তে বার্সেলোনার আধিপত্য বজায় থাকার দিনে গ্যালারিতে দেখা গেল ক্যাটালোনিয়া আন্দোলনের ছাপ।

বার্সেলোনা বনাম সেভিয়া ম্যাচ শুরুর আগে দেখা যায় গ্যালারিতে এক বিশাল পতাকা। যাতে ইংরেজি এবং ক্যাটালোনিয়ার ভাষা লেখা ছিল, ‘জাস্টিস।’ নব্বই মিনিটের ম্যাচে বার বার শোনা গিয়েছে সেই পরিচিত গর্জন— ‘‘স্বাধীনতা।’’

আরও দু’টো ব্যানার দেখা গিয়েছে স্টেডিয়ামে। একটায় লেখা ছিল, ‘‘রাজনৈতিক বন্দিদের মুক্তি চাই’’ এবং ‘‘ইউরোপ, তোমার লজ্জিত হওয়া উচিত।’’ ক্যাটালোনিয়া আন্দোলন এবং বার্সেলোনা ফুটবল ক্লাব— এই দু’টোই যেন এখন একসঙ্গে জড়িয়ে গিয়েছে। কিছু দিন আগে আন্দোলনের জেরে ক্যাম্প ন্যু ফাঁকা করে দিয়ে ম্যাচ খেলতে হয়েছিল লিওনেল মেসিদের। তার পরে বার্সা প্রেসিডেন্ট জোসেপ মারিয়া বার্তেমেউ ইঙ্গিত দিয়েছিলেন, ক্যাটালোনিয়া স্বাধীনতা পেলে বার্সা সরে যেতে পারে লা লিগা থেকে। যা নিয়ে এখনও বিতর্ক চলছে। এই অবস্থায় শনিবার রাতের ম্যাচে আবার এসে পড়ল ক্যাটালোনিয়া আন্দোলনের ছায়া।

Advertisement

আগের সপ্তাহে বার্সা কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে একটু মজা করেই বলেছিলেন, মাঠের বাইরে যা চলছে তাদের ফুটবলারদের আরও দৃঢ় প্রতিজ্ঞ করে তুলছে। ভালভার্দে ঠাট্টা করে বলে থাকলেও দেখা যাচ্ছে এ বারের লা লিগায় বার্সা রথ দুর্দান্ত ভাবে ছুটছে। এগারো নম্বর ম্যাচে দশ নম্বর জয় পেয়ে গেল মেসিদের দল। সেভিয়াকে হারাল ২-১ গোলে। যার পরে ভালভার্দে বলেছেন, ‘‘আমাদের ফুটবলাররা বুঝিয়ে দিচ্ছে ওদের মনঃসংযোগ নষ্ট হয়নি।’’

সেটা যে রকম বোঝা যাচ্ছে, আরও একটা কথা বোঝা যাচ্ছে যখনই কোনও ম্যাচ থাকছে ক্যাম্প ন্যু-তে। এই মাঠকেই নিজেদের ক্ষোভ, যন্ত্রণা, আকাঙ্খা প্রদর্শনের ম়ঞ্চ হিসেবে বেছে নিয়েছে বার্সেলোনার মানুষ। যাঁরা লড়ছেন ক্যাটালোনিয়ার স্বাধীনতার জন্য। যা নিয়ে ভালভার্দে বলেছেন, ‘‘মানুষ ক্যাম্প ন্যু-তে আসছে শান্তিপূর্ণ ভাবে নিজেদের মনোভাব তুলে ধরতে। ওরা টিমকেও সমর্থন করছে। আমরা ওদের জন্য খেলছি।’’

সেভিয়ার সঙ্গে প্রথম দশ মিনিটেই তিন গোল করে দিতে পারত বার্সেলোনা। শেষ পর্যন্ত প্রথম গোলটি আসে পাকো আলকাসেরের কাছ থেকে। যাঁকে প্রথম একাদশে নামিয়ে কিছুটা চমকই দিয়েছিলেন ভালভার্দে। জোড়া গোল করে আলকাসের বলে যান, ‘‘কোচ আপনাকে যখন সুযোগ দেবে, তখন সেটা তো কাজে লাগাতেই হবে।’’

এই ম্যাচই ছিল মেসির বার্সেলোনার হয়ে ৬০০তম ম্যাচ। যে ম্যাচে মহানায়ক গোল করতে না পারলেও তাঁর টিমের জিততে কোনও সমস্যাই হয়নি। এই জয়ের ফলে তাদের চিরশত্রু রিয়াল মাদ্রিদের চেয়ে ১১ পয়েন্টে এগিয়ে গেল বার্সেলোনা।

সামনে দেশের হয়ে ম্যাচ থাকার জন্য ক্লাব ফুটবলে সাময়িক বিরতি। তার আগে নিজের দলের পারফরম্যান্স নিয়ে খুশি ভালভার্দে। বার্সা ম্যানেজার বলেছেন, ‘‘আমরা সবার ওপরে আছি। আমরা কোনও পয়েন্ট হারাচ্ছি না। ফলে আন্তর্জাতিক ব্রেকে যাওয়ার আগে সব মিলিয়ে আমরা যথেষ্ট খুশি।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement