Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

৩০ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

পেস ত্রয়ীর দাপটে রঞ্জি সেমিফাইনালের দিকে এক ধাপ এগোল বাংলা

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৬:৫৫
উচ্ছ্বসিত বাংলার ক্রিকেটাররা। কটকে শনিবার। ছবি: পিটিআই।

উচ্ছ্বসিত বাংলার ক্রিকেটাররা। কটকে শনিবার। ছবি: পিটিআই।

কটকে ওড়িশার বিরুদ্ধে রঞ্জির কোয়ার্টার ফাইনালে স্বস্তিতে বাংলা। নীলকন্ঠ দাস, মুকেশ কুমার, ঈশান পোড়েলদের দাপটে প্রথম ইনিংসে ৮২ রানের লিড মিলেছিল। তৃতীয় দিনের শেষে এখন ওড়িশার বিরুদ্ধে ১৬১ রানে এগিয়ে রয়েছে বাংলা। হাতে আট উইকেট। ম্যাচের বাকি আরও দু’দিন।

শনিবার সকালে চার উইকেটে ১৫১ নিয়ে শুরু করেছিল ওড়িশা। বাংলার চেয়ে তখনও প্রথম ইনিংসে ১৮১ রানে পিছিয়ে ছিল তারা। বাংলার বোলারদের দাপটে ওড়িশার ইনিংস শেষ হয় ২৫০ রানে। নীলকন্ঠ দাস (৩-৪৩), মুকেশ কুমার (৩-৫১) ও ঈশান পোড়েল (৩-৭২)—তিন পেসারই নেন তিনটি করে উইকেট। ত্রয়ীর সামনে ওড়িশার ব্যাটসম্যানরা বেশি ক্ষণ প্রতিরোধ গড়তে পারেননি। উইকেট নেন স্পিনার শাহবাজ আহমেদও (১-৬০)।

আরও পড়ুন: ‘পরিস্থিতি যা-ই হোক না কেন, নিজেকে বলি, পারতেই হবে’

Advertisement

আরও পড়ুন: ‘জাডেজার মতো খেলতে চাই, ও আমার প্রিয় ক্রিকেটার’, ঘোষণা করলেন অজি স্পিনার​

ওড়িশার অধিনায়ক শুভ্রাংশু সেনাপতি (৪৬) একাই লড়ছিলেন। কিন্তু, তিনি উল্টোদিকে কাউকে সঙ্গী হিসেবে পাননি। ১৯১ রানে পঞ্চম উইকেট পড়েছিল ওড়িশার। সেখান থেকে ২৫০ রানে শেষ হয় ইনিংস। ৮২ রানে পিছিয়ে পড়ে ওড়িশা।

দ্বিতীয় ইনিংসে ধীরেসুস্থে শুরু করে বাংলা। অধিনায়ক অভিমন্যু ঈশ্বরন ও কৌশিক ঘোষ, দু’জনেই সময় নেন থিতু হতে। পড়ন্ত বেলায় দুই ওপেনারই অবশ্য ফিরে গিয়েছেন ড্রেসিংরুমে। অভিমন্যু ৮৯ বলে করেন ৩০। আর কৌশিক ঘোষ ১৩০ বল খেলে করেন ৪১। দু’জনেই রীতিমতো সাবধানী ছিলেন ব্যাটিংয়ে। বাংলার প্রথম উইকেট পড়ে ৬০ রানে। দ্বিতীয় উইকেট পড়ে ৭৬ রানে। দিনের শেষে ৪৫ ওভারে দুই উইকেটে ৭৯ তুলেছে বাংলা। অভিষেক রমন (৪) ও মনোজ তিওয়ারি (৩) অপরাজিত রয়েছেন।

আরও পড়ুন: ভারতের ব্যাটিং বিপর্যয়, ইশান্তের লড়াই... বেসিন রিজার্ভে দ্বিতীয় দিনেও কিউয়ি-রাজ​

আরও পড়ুন

Advertisement