Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

কোচ নিয়ে নাটক

সৌরভ যবনিকা নামালেও থামছে না সিএবি-কাজিয়া

একদিকে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। অন্যদিকে সিএবি-র অন্য শীর্ষকর্তারা। বাংলা দলের কোচের নাম ঘোষণার পর থেকে সিএবি-তে এই বিভাজন ক্রমশ স্পষ্ট হয়ে উঠছে।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৬ অগস্ট ২০১৫ ০৪:০১
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

একদিকে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। অন্যদিকে সিএবি-র অন্য শীর্ষকর্তারা। বাংলা দলের কোচের নাম ঘোষণার পর থেকে সিএবি-তে এই বিভাজন ক্রমশ স্পষ্ট হয়ে উঠছে। বুধবার শহরে ফিরে যা মেটানোর চেষ্টা করেও পারলেন না সৌরভ। বললেন বটে, ‘‘কোচের নাম সিএবি প্রেসিডেন্ট-সহ শীর্ষকর্তারা সবাই জানতেন।’’ কিন্তু সিএবি-তে দাঁড়িয়ে এ দিন সৌরভ এই কথা বলার পরও তাঁরা তাঁদের জায়গায় অনড় রইলেন।

আগের দিন সিএবি-র শীর্ষমহল থেকে যে সবাইকে অন্ধকারে রেখে বাংলার কোচ বাছাই করে ফেলার অভিযোগ উঠেছিল তাঁর বিরুদ্ধে, সেই অভিযোগ এ দিন নস্যাৎ করে দিয়ে সন্ধ্যায় সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় সাফ বলে দেন, ‘‘সবাইকে জানিয়েই কোচ বেছেছি। পাঁচজনের নাম বেছে প্রেসিডেন্ট জগমোহন ডালমিয়াকে দিয়েছিলাম। তার মধ্যে থেকে উনিই সাইরাজের নাম বেছে নেন। সবাই তা জানেনও। এখন তাঁরা কেন বলছেন, জানতাম না, তা আমি জানি না। ওদের জিজ্ঞাসা করুন।’’ যা শুনে অপর যুগ্মসচিব সুবীর গঙ্গোপাধ্যায় সিএবি-তে নিজের ঘরে বসে বললেন, ‘‘আমি এখনও বলছি, খবরটা জানতাম না। মিডিয়া থেকেই জেনেছি।’’ কোষাধ্যক্ষ বিশ্বরূপ দে-র সরস মন্তব্য, ‘‘এ কি ঐশ্বর্যা রাই-রানি মুখোপাধ্যায়ের বিয়ের গোপন খবর যে, জানা সত্ত্বেও বলব, জানি না? এমন সাধারণ একটা ব্যাপার নিয়ে এত গোপনীয়তা অবলম্বনের দরকার কী?’’

সৌরভের বক্তব্য, ‘‘লক্ষ্ণীকেও (লক্ষ্মীরতন শুক্ল) আমি জানিয়েছিলাম, সাইরাজ কোচ হচ্ছে।’’ লক্ষ্মীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে রাতে তিনি বলেন, ‘‘যে দিন দাদি সাইরাজের নাম ঘোষণা করে, সে দিন সকালেই আমাকে খবরটা জানিয়েছিল।’’ সহ-সচিব অনু দত্তও এ দিন সদর্পে ঘোষণা করেন, ‘‘আমি জানতাম। অনেকেই জানত কে কোচ হচ্ছে। বিশ্বরূপ বোধহয় ঠিক বলছে না।’’ যার পর নতুন করে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, শুধু কি অনুগতদেরই খবরটা জানিয়েছিলেন সৌরভ?

Advertisement

সৌরভ অনুগামীদের অনেকেই বলছেন, যখন প্রণব নন্দীকে বাংলার অনূর্ধ্ব ১৯ দলের কোচ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সুবীরবাবু, তখন সেই খবর সৌরভকে জানাননি, পরে জানানো হয়েছিল তাঁকে। কেউ কেউ মনে করছেন, এই ঘটনা হয়তো সেই ঘটনারই রেশ। সহ-সচিবের মন্তব্য নিয়ে বিশ্বরূপ পাল্টা দিলেন, ‘‘অনু দত্ত তো আপাতত কোনও পদেই নেই। আদৌ থাকবে কি না, তাও নিশ্চিত নয়। সে কী জানল, তাতে কিছু যায় আসে না কি?’’

প্রশ্ন উঠছে সৌরভের দিল্লিতে গিয়ে কোচের নাম ঘোষণা নিয়েও। যার উত্তরে এ দিন তিনি বলেন, ‘‘প্রেসিডেন্ট আমাকে এখন কোচের নাম ঘোষণা করতে বারণ করেছিলেন। দিল্লিতে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করতে আমি বলেছিলাম, সাইরাজের সঙ্গে প্রায় পাকা কথা হয়ে গিয়েছে। এখনও কিন্তু সরকারি ভাবে এই খবর ঘোষণা করিনি।’’ তবে এ দিন সৌরভ বলে দিলেন, ‘‘আগামী সপ্তাহেই এসে সাইরাজের একটা শিবির করার কথা। দু’বছরের চুক্তি হবে ওর সঙ্গে। তা ছাড়া প্রাক্তন কোচ অশোক মলহোত্রকে আমরা আরও বড় দায়িত্ব দিতে চাই।’’ সন্ধ্যায় মলহোত্র এই নিয়ে বলেন, ‘‘কী দায়িত্ব জানি না। হয়তো ব্যাটিং উপদেষ্টা বা দলের উপদেষ্টা। আজ আমার সঙ্গে এই নিয়ে কথা হয়েছে সৌরভের। তবে স্পষ্ট করে কিছু বলেনি।’’ আর সৌরভের নিজের ভূমিকা কী হতে চলেছে? এর উত্তরে তিনি বলেন, ‘‘আমি সব সময়ই বাংলার জন্য আছি। সিএবি যুগ্মসচিব হিসেবে যতটা থাকা যায়, ততটাই থাকব।’’

তার পরেই সিএবি কর্তাদের উদ্দেশ্যে তাঁর বক্তব্য, ‘‘আমাকে বাংলার ক্রিকেটের উন্নতির জন্য সিএবি যুগ্মসচিব করে আনা হয়েছে। তাই আমাকে স্বাধীন ভাবে কাজ করতে দেওয়া উচিত। যা করছি বাংলার ক্রিকেটের ভালর জন্যই। এ রাজ্যের ক্রিকেটকে একটা সিস্টেমের মধ্যে আনতে চাই। সে জন্য আমাদের বাস্তববাদী হতে হবে। সাইরাজ তরুণ। ওর মধ্যে ভাল কিছু করার খিদে রয়েছে। দলটাকে লিড করতে পারবে। দলের ছেলেদের আরও লড়াকু করে তুলতে পারবে।’’ কেরল, বিদর্ভের মতো ছোট দলকে কোচিং করিয়ে এলেও সাইরাজের কাছ থেকে ভাল কিছুই প্রত্যাশা করছেন সৌরভ। বললেন, ‘‘আমাদের দলও তো গত চার-পাঁচ বছর এমন কিছু আহামরি খেলছে না। তাই ও কাদের কোচিং করিয়ে এসেছে, এটা বড় ফ্যাক্টর নয়।’’

সৌরভের এই বিবৃতিতে সিএবি-র কাজিয়ায় যবনিকা নামল, না ধিকিধিকি আগুন এখনও জ্বলছে, তা অবশ্য এখনই বোঝা যাচ্ছে না।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement