Advertisement
০৩ ডিসেম্বর ২০২২
India

India vs Sri Lanka T20I: ঈশান-ঝড়ে মুগ্ধ রোহিত, এ বার লড়াই ধর্মশালায়

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসে রোহিত বলেছেন, ‘‘জাডেজার প্রত্যাবর্তনে আমরা খুব খুশি। তাই উপরের দিকেই ওকে ব্যাট করাতে চেয়েছি। আসন্ন ম্যাচগুলোতেও এই দৃশ্য আপনারা দেখতে পাবেন। আমি চাই জাডেজা উপরের দিকেই ব্যাট করুক।’’

প্রস্তুতি: ধর্মশালার পিচ তৈরির কাজে মাঠকর্মীরা। শুক্রবার।

প্রস্তুতি: ধর্মশালার পিচ তৈরির কাজে মাঠকর্মীরা। শুক্রবার। ছবি পিটিআই।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ০৫:৩৩
Share: Save:

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে রবীন্দ্র জাডেজাকে চার নম্বরে নামিয়ে পরীক্ষা করেছিলেন রোহিত শর্মা। জাডেজা তিন বলে চার রান করলেও ভারতীয় অধিনায়ক জানিয়ে দিয়েছেন, অভিজ্ঞ অলরাউন্ডারকে উপরের দিকেই নামাতে চান তিনি।

Advertisement

ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসে রোহিত বলেছেন, ‘‘জাডেজার প্রত্যাবর্তনে আমরা খুব খুশি। তাই উপরের দিকেই ওকে ব্যাট করাতে চেয়েছি। আসন্ন ম্যাচগুলোতেও এই দৃশ্য আপনারা দেখতে পাবেন। আমি চাই জাডেজা উপরের দিকেই ব্যাট করুক।’’ যোগ করেন, ‘‘ব্যাটার হিসেবে ও খুবই উন্নতি করেছে। তাই আমরাও চেষ্টা করব ব্যাটার হিসেবেই ওকে যোগ্য মর্যাদা দেওয়ার। সাদা বলের ক্রিকেটে ওকে কী ভাবে চাইছি, তা পরিষ্কার করেই বলে দেওয়া আছে।’’

প্রত্যাবর্তনে ব্যাট হাতে জাডেজা নিজেকে সে ভাবে মেলে ধরতে না পারলেও বল হাতে সফল। চার ওভারে মাত্র ২৮ রান দিয়ে দীনেশ চণ্ডীমলের উইকেট তুলে নিয়েছেন তিনি। আজ, শনিবার ধর্মশালায় দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। সেখানেও জাডেজার থেকে বিশেষ পারফরম্যান্স দেখার অপেক্ষায় ভক্তেরা।

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে সবচেয়ে বেশি নজর কেড়েছেন ঈশান কিশান। ৬২ বলে ৮৯ রানের ইনিংস গড়ে ভারতকে ১৯৯ রানে পৌঁছে দিতে সাহায্য করেছেন তিনি। ঈশানের ইনিংস দেখে রোহিতও মোহিত। তিনি বলেছেন, ‘‘ঈশানকে আমি বহু দিন ধরে কাছ থেকে দেখছি। আমরা একই ফ্র্যাঞ্চাইজ়ির হয়ে আইপিএল খেলি। ঈশানের দক্ষতা সম্পর্কে কোনও সন্দেহ নেই। কী করে ওকে ছন্দে ফিরিয়ে আনা যায়, সেটাই ছিল মূল চিন্তা।’’ যোগ করেন, ‘‘প্রথম ম্যাচে ওর ব্যাটিং দেখে আমি মুগ্ধ।’’

Advertisement

ঈশান প্রথম ছ’ওভারের পরে যে ভাবে ইনিংস সাজিয়েছেন, তা দেখে খুশি হয়েছেন রোহিত। বলেন, ‘‘পাওয়ারপ্লেতে ও বড় শট খেলে রান বার করে নিতে পারে। কিন্তু ছ’ওভারের পরে কী ভাবে ও ইনিংস সাজায়, সেটা দেখার অপেক্ষায় ছিলাম। ঈশান কিন্তু প্রত্যেক বল মারার মনোভাব নিয়ে ব্যাট করছিল না। ফিল্ডারদের মধ্যে ফাঁক খুঁজে বার করছিল। খুচরো রান নিয়ে ইনিংস সাজাচ্ছিল। আগে এ ভাবে ইনিংস সাজাতে ওকে দেখা যেত না। প্রথম ম্যাচে সত্যি ব্যতিক্রমী ইনিংস খেলে গেল ঈশান।’’

তরুণ ভারতীয় ওপেনার তাঁর উন্নতির জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন রোহিতকেই। মুম্বই ইন্ডিয়ান্স দলে খেলার পাশাপাশি ভারতীয় দলের হয়ে খেলার সময়ও রোহিতের কাছ থেকে পরামর্শ চান ঈশান। সাংবাদিক বৈঠকে তিনি এসে বলছিলেন, ‘‘রোহিত ভাই আমাকে বলে দিয়েছিল, শট খেলতে তোর কোনও সমস্যা নেই। খুচরো রান বার করতে জানতে হবে।’’ যোগ করেন, ‘‘আমার একটা খারাপ স্বভাব হল কয়েকটা বলে রান না পেলেই বড় শট খেলতে চলে যাই। কী ভাবে খুচরো রান বার করতে হয়, জানা ছিল না। রোহিত ভাই ও রাহুল স্যর আমাকে খুব সাহায্য করেছে।’’

ধর্মশালায় শনিবার ও রবিবার পরপর দু’টি টি-টোয়েন্টি। লখনউয়ের পিচের সঙ্গে ধর্মশালার পিচের অনেক তফাত। পাহাড়ি পরিবেশে পিচে বল দ্রুত আসে। শট খেলতেও সুবিধে হয়। মাঠও ছোট। বড় রান আসার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। ঈশান যদিও বললেন, ‘‘বলের মান অনুযায়ী শট খেলব। ওপেনার হিসেবে যে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, ভাল ভাবেই পালন করতে চাই। শট খেলতে গিয়ে উইকেট ছুড়ে দিয়ে আসতে চাই না।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.