Advertisement
০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Shoaib Akhtar

বাবরদের তুলোধনা শোয়েব আখতারের! ‘শরীর খারাপ নিয়েই ইংল্যান্ড ৫০০, ভাল থাকলে…’

পাকিস্তানের ঘরের মাঠে তাদের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের প্রথম দিন ৫০৬ রান করেছে ইংল্যান্ড। ৪ উইকেট তুলতে পেরেছেন পাক বোলাররা। এই ঘটনায় হতাশ শোয়েব আখতার। দলের সমালোচনা করেছেন তিনি।

বাবর আজ়মদের দলের বোলিং নিয়ে হতাশ শোয়েব আখতার।

বাবর আজ়মদের দলের বোলিং নিয়ে হতাশ শোয়েব আখতার। —ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০১ ডিসেম্বর ২০২২ ২২:৫৬
Share: Save:

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের প্রথম দিন ৫০৬ রান করেছে ইংল্যান্ড। দলের চার ব্যাটার শতরান করেছেন। এই পরিস্থিতিতে পাকিস্তানের বোলিংকে তুলোধনা করেছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন পেসার শোয়েব আখতার। তাঁর মতে, টেস্ট শুরু আগে ইংল্যান্ডের বেশ কয়েক জন ক্রিকেটার অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। সেই অবস্থাতেই এত রান করেছে ইংল্যান্ড। শরীর ভাল থাকলে তারা কী করত সেটা ভেবে ভয় পাচ্ছেন আখতার।

Advertisement

প্রথম দিনের খেলা শেষ হওয়ার পরে একটি ভিডিয়ো বার্তায় আখতার বলেছেন, ‘‘ভাগ্য ভাল যে ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা অসুস্থ ছিল। অসুস্থ অবস্থাতেই ওরা ৫০০ রান করে দিয়েছে। শরীর ভাল থাকলে পাকিস্তানের অবস্থা আরও খারাপ হত। দলের নেতৃত্ব আরও ভাল হওয়া উচিত ছিল। কিন্তু কোনও বৈচিত্র দেখতে পেলাম না।’’

পাকিস্তানের বোলাররা ৭৫ ওভারে বল করেও মাত্র ৪ উইকেট নিতে পেরেছেন। দলের বোলারদের অবস্থা দেখে হতাশ আখতার। তিনি বলেছেন, ‘‘দলের বোলিং আক্রমণ প্রায় পুরোটাই নতুন। কিন্তু টেস্ট ক্রিকেট খুব নিষ্ঠুর। এটা ওদের বুঝতে হবে। পাকিস্তানকে বুঝতে হবে দলটা এখন কোথায় দাঁড়িয়ে। এ ভাবে তরুণ বোলারদের মার খেতে দেখে খুব খারাপ লাগছে।’’

পাকিস্তানের বোলারদের দেখে খারাপ লাগলেও ইংল্যান্ডের প্রশংসা করেছেন আখতার। তাঁর মতে, ব্রেন্ডন ম্যাকালাম ইংল্যান্ডের টেস্ট দলের কোচ হওয়ার পর থেকে দলের খেলা পুরোটাই বদলে গিয়েছে। তিনি বলেছেন, ‘‘ম্যাকালাম মন্থর খেলা পছন্দ করে না। ও আক্রমণাত্মক ক্রিকেট ভালবাসে। সেটা দলের বাকিদের মধ্যেও ঢোকাতে পেরেছে ম্যাকালাম। তারই ফল পাচ্ছে ওরা। সাত নম্বর পর্যন্ত ওদের ব্যাটার আছে। তাই আমার মনে হয়, পাকিস্তানকেও ভাল করে পরিকল্পনা করতে হত। কিন্তু সেটা হয়নি।’’

Advertisement

রাওয়ালপিন্ডিতে টসে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় ইংল্যান্ড। দলের ওপেনাররা বুঝিয়ে দেন, কী হতে চলেছে। প্রথম থেকে দ্রুত রান তুলতে থাকেন দুই ওপেনার জ্যাক ক্রলি ও বেন ডাকেট। পাকিস্তানের কোনও বোলার তাঁদের সমস্যায় ফেলতে পারছিলেন না। দুই ওপেনারই শতরান করেন। ২৩৩ রানের মাথায় ইংল্যান্ডের প্রথম উইকেট পড়ে। ১০৭ রান করে আউট হন ডাকেট। তার পরে পরেই আউট হন আর এক ওপেনার ক্রলি। তিনি করেন ১২২ রান।

তিন নম্বরে নামা অলি পোপও ছন্দে খেললেন। ইংল্যান্ডের টপ অর্ডারে একমাত্র জো রুট বেশি রান করতে পারেননি। ২৩ রান করে আউট হন তিনি। রুট আউট হওয়ার পরে পোপের সঙ্গে জুটি বাঁধেন হ্যারি ব্রুক। সেই জুটি ভাঙতেও কালঘাম ছোটে পাক বোলারদের। নাসিম শাহ, হ্যারিস রউফদের দেখে মনে হচ্ছিল, কোথায় বল করবেন বুঝতে পারছেন না। টি-টোয়েন্টির ভঙ্গিতে খেলছিল ইংল্যান্ড।

পোপ ও ব্রুক দু’জনেই শতরান করেন। ১০৮ রান করে আউট হন পোপ। ব্রুক ১০১ রান করে ব্যাট করছেন। ছ’নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ইংরেজ অধিনায়ক স্টোকস ১৫ বলে ৩৪ রান করে খেলছেন। ৪ উইকেটে ৫০৬ রানে প্রথম দিনের খেলা শেষ হয়েছে ইংল্যান্ডের। তাও নির্ধারিত ১৫ ওভারের খেলা হয়নি। নইলে দুর্ভোগ আরও বাড়ত বাবরদের।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.