Advertisement
২৭ নভেম্বর ২০২২
Sourav Ganguly

Sourav Ganguly: পকেটে প্রায় ৫০ হাজার কোটি! কী ভাবে খরচ করবেন, জানিয়ে দিলেন সৌরভ

আইপিএলের বিপুল টাকার আকর্ষণে তরুণরা আরও ভাল খেলার চেষ্টা করলে লাভবান হবে ভারতীয় ক্রিকেট। বোর্ডও সেরা মানের পরিকাঠামো গড়ে তুলবে।

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। ফাইল ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৫ জুন ২০২২ ১৩:১৭
Share: Save:

আইপিএলের মিডিয়া স্বত্বের ই-নিলাম থেকে বোর্ডের কোষাগারে ঢুকেছে ৪৮,৩৯০ কোটি টাকা। এই বিপুল টাকা কী ভাবে ব্যবহার করবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড? উত্তর দিয়েছেন বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। এই টাকা ক্রিকেটকেই ফিরিয়ে দিতে চান তিনি। ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে সৌরভের বক্তব্যে উঠে এসেছে এএন ঘোষ, চিদাম্বরম থেকে শুরু করে জগমোহন ডালমিয়ার মতো প্রাক্তন বোর্ড সভাপতিরা এবং কপিল দেব, সুনীল গাওস্করদের মতো প্রাক্তন ক্রিকেটাররা।

Advertisement

সতর্ক বিসিসিআই সভাপতি প্রথমেই জানিয়েছেন, আইপিএল মানে কিন্তু শুধুই টাকা নয়। ক্রিকেটের উৎকর্ষকেই বেশি প্রাধান্য দিতে চান বোর্ড কর্তারা। সৌরভ টুইটে লিখেছেন, ‘খেলায় কখনও টাকা সর্বস্ব হতে পারে না। প্রতিভাই আসল। ক্রিকেট খেলার ভিত আমাদের দেশে কতটা মজবুত, আইপিএলের ই-নিলামে সেটাই প্রমাণ হয়েছে। টাকার অঙ্ক নিশ্চিত ভাবেই তরুণ ক্রিকেটারদের অনুপ্রাণিত করবে। ওরা আরও ভাল খেলার চেষ্টা করবে। তাতে ভারতীয় দল আরও শক্তিশালী হবে। বিশ্বের সেরা ক্রিকেটার তৈরির পরিকাঠামো গড়ে তুলব আমরা।’’ আইপিএলের বিপুল আয় ক্রিকেটকেই ফিরিয়ে দিতে চান বোর্ড কর্তারা।

ভারতে ক্রিকেটের বিপুল জনপ্রিয়তা হঠাৎ তৈরি হয়নি বলেই মনে করেন সৌরভ। গুরুত্ব দিয়েছেন অতীতকেও। বোর্ড সভাপতি বলেছেন, ‘‘আমাদের দেশে ক্রিকেট অনেকটা ধর্মের মতো। গত ৫০ বছরে যাঁরা ক্রিকেটে খেলেছেন এবং ক্রিকেট প্রশাসক হিসেবে কাজ করেছেন, তাঁদের সকলকে বিশেষ ধন্যবাদ দিতে চাই। সে সময় এই খেলাটার কিছুই ছিল না। তাঁদের জন্যই এখন সমর্থকরা গ্যালারি ভর্তি করেন বা টেলিভিশনের সামনে বসে থাকেন।’’ ই-নিলামের সাফল্যের জন্য বোর্ডের সংশ্লিষ্ট সহকর্মীদের কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন সৌরভ। ক্রিকেটের প্রতি আস্থা রাখায় ধন্যবাদ জানিয়েছেন সম্প্রচারকারীদের।

আইপিএল নিয়ে বোর্ডের বড় পরিকল্পনার কথা আগেই জানিয়েছেন বোর্ড সচিব জয় শাহ। এর পর থেকে আইপিএল যাতে দু’মাস থেকে বেড়ে আড়াই মাসের হয়, তার জন্য আইসিসি-কে অনুরোধ করবে বোর্ড। আইপিএলের জন্য যাতে বছরে একটি নির্দিষ্ট সময় রাখা হয়, সেটিও আইসিসি-কে অনুরোধ করবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। মোট ৯৪টি ম্যাচের প্রতিযোগিতা করতে চায় বিসিসিআই। একই সঙ্গে মহিলাদের আইপিএলকেও বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছেন বোর্ড কর্তারা। তাঁদের আশা, মহিলাদের আইপিএলও সফল হবে। তার সুফল পাবে ভারতের মহিলা ক্রিকেট দল।

Advertisement

সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ

Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.