Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

MS Dhoni: চেন্নাইয়েই বিদায়ী ম্যাচ চান ধোনি

চেন্নাই সুপার কিংসের আরও এক বার আইপিএল জয়কে স্মরণীয় করে রাখতে বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল শনিবার চেন্নাইয়ে।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২১ নভেম্বর ২০২১ ০৫:৪২
n সম্মান: ধোনির হাতে উপহার তুলে দিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী স্ট্যালিন।

n সম্মান: ধোনির হাতে উপহার তুলে দিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী স্ট্যালিন।
ছবি: সিএসকে

বাইরে থেকে দেখে হয়তো বোঝা সম্ভব নয়। কিন্তু মহেন্দ্র সিংহ ধোনির নেওয়া প্রতিটা ক্রিকেটীয় সিদ্ধান্ত কিন্তু পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী। যে কথা নিজেই জানিয়েছেন ভারতের বিশ্বজয়ী অধিনায়ক।

চেন্নাই সুপার কিংসের আরও এক বার আইপিএল জয়কে স্মরণীয় করে রাখতে বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল শনিবার চেন্নাইয়ে। ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেট বোর্ড প্রেসিডেন্ট এন শ্রীনিবাসনের দলের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভারতের কিংবদন্তি ক্রিকেটার কপিল দেব। ছিলেন সদ্য প্রাক্তন হওয়া জাতীয় কোচ রবি শাস্ত্রী। বাংলা থেকে হাজির ছিলেন সিএবির প্রাক্তন কোষাধ্যক্ষ বিশ্বরূপ দে। এই অনুষ্ঠানে তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এম কে স্ট্যালিন বিশেষ পুরস্কার তুলে দেন ধোনির হাতে। অনুষ্ঠানে হাজির থাকা ভারতীয় বোর্ডের সচিব জয় শাহ জানিয়ে দেন, পরের বছর আইপিএল ভারতেই হবে। সেই অনুষ্ঠানে ধোনি ইঙ্গিত দিয়ে যান, আইপিএলের শেষ ম্যাচটা তিনি খেলতে চান চেন্নাইয়েই।

এই অনুষ্ঠানে ধোনি বলেন, ‘‘আমি সব সময় পরিকল্পনা করে ক্রিকেটটা খেলেছি। রাঁচীতে, ঘরের মাঠে শেষ ওয়ান ডে ম্যাচ খেলেছিলাম। এ বার আশা করছি, আমার শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচটা চেন্নাইয়ে হবে। তবে সেটা সামনের বছর না পাঁচ বছর পরে হবে, তা বলতে পারছি না।’’

Advertisement

আন্তর্জাতিক মঞ্চ থেকে আগেই নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন ধোনি। যে কারণে আইপিএল দিয়েই শেষ হবে তাঁর ক্রিকেট জীবন। গত বছর আইপিএলে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেওয়ার পরে এ বছর আবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ধোনির চেন্নাই। অনেকেই মনে করেছিলেন, তার পরেই হয়তো ক্রিকেটকে বিদায় জানাবেন সর্বকালের অন্যতম সেরা অধিনায়ক এবং ফিনিশার। কিন্তু তা হয়নি। ধোনি জানিয়েছেন, তিনি খেলে যাবেন। তবে কত দিন, এই প্রশ্নে এখনও ধোঁয়াশা রেখে যাচ্ছেন সিএসকে অধিনায়ক।

চেন্নাইয়ের দর্শকদেরও প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন ধোনি। জানিয়েছেন, চিদম্বরম স্টেডিয়ামের দর্শকরা সব সময় ভাল ক্রিকেটকে উৎসাহ দিয়ে এসেছেন। সেটা যে দলের ক্রিকেটাররাই খেলুন না কেন। ধোনির কথায়, ‘‘আমরা যে ক’টা ম্যাচ খেলেছি চেন্নাইয়ে, দশর্করা সব সময় মাঠে এসে ভাল ক্রিকেট খেলতে উৎসাহ দিয়েছে। অনেক জায়গায় দেখা যায়, দর্শকরা চায় শুধু নিজেদের দল ভাল খেলুক। অন্য দল নয়। চেন্নাইয়ে কিন্তু এই ব্যাপারটা আমি দেখিনি।’’ এর পরেই সচিন তেন্ডুলকরের উদাহরণ টেনে এনে ধোনি যোগ করেন, ‘‘আমার মনে হয়, সচিন পাজি এই মাঠে সবচেয়ে বেশি ভালবাসা পেয়েছিল। তখন কিন্তু ও মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে খেলে। এতেই বোঝা যায় ক্রিকেটকে কতটা ভালবাসে, ক্রিকেট কতটা বোঝে তামিলনাডু়, চেন্নাইয়ের মানুষ।’’

চেন্নাইয়ের দর্শকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে ধোনি আরও বলেছেন, ‘‘শুধু ঘরের মাঠে বলে নয়, আমরা যেখানেই খেলেছি, সেখানেই চেন্নাইয়ের সমর্থক পেয়েছি। সেটা বেঙ্গালুরু, জোহানেসবার্গ, দুবাই— যেখানেই হোক না কেন। যে দু’বছর আমরা আইপিএলে ভাল কিছু করতে পারিনি, তখনও সমর্থকরা আমাদের সঙ্গে ছিলেন।’’

মরুশহরে আইপিএল জেতার পরে তাঁর ক্রিকেট ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্নের জবাবে কিন্তু ধোঁয়াশা রেখে দিয়েছিলেন ধোনি। বলেছিলেন, ‘‘দেখা যাক ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড কী করে। আরও দুটো দল আসছে। তাই অনেক কিছুই হতে পারে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement