Advertisement
০৭ ডিসেম্বর ২০২২
IPL

IPL Media Rights: সাবধান নেটফ্লিক্স, অ্যামাজন, ডিজনি! আইপিএলের হাত ধরে ওটিটি বাজার ধরতে হাজির অম্বানী

অম্বানীর ভায়াকমের অধীনে থাকা ভুট অ্যাপের জনপ্রিয়তা খুবই কম। আইপিএলের ডিজিটাল স্বত্ব পেয়ে এ বার নতুন উদ্যমে ভারতের বাজার ধরতে চাইবে তারা।

অম্বানীর সংস্থা এ বার আসরে

অম্বানীর সংস্থা এ বার আসরে

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৪ জুন ২০২২ ১৭:৫৮
Share: Save:

ক্রিকেট ম্যাচ চলাকালীন রেডিয়োয় ধারাভাষ্য শোনা বা ক্রিকেট ওয়েবসাইটের স্কোরবোর্ড দেখা— এ সব এখন অতীত। আধুনিক প্রজন্ম চায় গাড়িতে যেতে যেতে, অফিসে কাজ করতে করতে খেলাধুলোর আকর্ষণে মজে থাকতে। তাই এখন মোবাইলের পর্দায় ম্যাচে চোখ রাখাটাই স্বাভাবিক হয়ে গিয়েছে। সেই খেলা যদি আইপিএল হয়, তা হলে উত্তেজনা যে তুঙ্গে থাকবে সেটা বলাই বাহুল্য। গত দু’দিন ধরে যে ভাবে আইপিএলের ডিজিটাল স্বত্ব নিয়ে ‘লড়াই’ দেখা গেল, তাতে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম আগামী দিনে কতটা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে চলেছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

Advertisement

ঠিক এই বাজারটাই এ বার ধরতে নেমেছেন মুকেশ অম্বানী। প্রথম ধাপ হিসাবে আইপিএলের ডিজিটাল স্বত্ব কিনে নিয়েছে তাঁর সংস্থা ভায়াকম ১৮। খেলাধুলোর দুনিয়ায় তারা কোমর বেঁধে নেমে পড়েছে। শুধু ডিজিটাল মাধ্যম নয়, টিভিতেও ছাপ রাখতে চাইছে তারা। ইতিমধ্যেই ফুটবল বিশ্বকাপ দেখানোর স্বত্ব নিয়েছে। ইউরোপের একাধিক ফুটবল লিগও দেখানো হতে পারে। আইপিএল-এর টেলিভিশন স্বত্ব না পেলেও ডিজিটাল স্বত্ব তারা কিনেছে। ফলে একদিক থেকে আইপিএল-ও ভায়াকম ১৮ সংস্থার অধীনে চলে এল।

জানা গিয়েছে, টেলিভিশন স্বত্বের থেকেও ডিজিটাল স্বত্ব কিনতে বেশি আগ্রহী হয়ে উঠেছিল ভায়াকম। এর মূল কারণ, ভারতের ওটিটি বাজারে তাদের একেবারেই জনপ্রিয়তা না থাকা। এই মুহূর্তে ভায়াকম সংস্থার অ্যাপ এবং ওয়েবসাইট ‘ভুট’ বাজারে রয়েছে। তবে হটস্টার, নেটফ্লিক্স এবং অ্যামাজনের সঙ্গে লড়াইয়ে তারা নেহাতই কুলীন। ২০২১ সাল পর্যন্ত ভারতে ওটিটি প্ল্যাটফর্মের আনুমানিক গ্রাহকসংখ্যা ছিল প্রায় ৯ কোটির মতো। এর মধ্যে এই তিন সংস্থাই দখল করে বসেছিল ৮৩ শতাংশ বাজার। শেষ হিসাব অনুযায়ী, ভারতে ভুটের মোট গ্রাহক ১০ লাখের মতো। সেখানে ওটিটি-র ‘তিন প্রধান’ হটস্টার, নেটফ্লিক্স, অ্যামাজনের এক একজনের কোটির বেশি গ্রাহক।

‘অসুর’ নামে একটি মাত্র হিন্দি ওয়েবসিরিজ ছাড়া ভুটের সাফল্য বলতে কিছুই নেই। নেটফ্লিক্সে ‘স্ট্রেঞ্জার থিংস’, ‘লিটল থিংস’, ‘লক অ্যান্ড কি’, ডিজনিতে ‘স্পেশ্যাল অপস’, ‘রুদ্র’, ‘আরিয়া’ বা অ্যামাজনে ‘পঞ্চায়েত’, ‘ফ্যামিলি ম্যান’ দেখতে ভিড় করেন লাখ লাখ মানুষ। ভুটে কোন ওয়েবসিরিজ বা সিনেমা নজর কেড়েছে, কেউ বলতে পারবে না। এখানে মূলত ভায়াকমের বিভিন্ন চ্যানেলের অনুষ্ঠান এবং সিরিয়াল দেখানো হয়। অধিকাংশ মানুষ এই অ্যাপের নাম শোনেননি। কারণ টেলিভিশন বা অন্য কোনও মাধ্যমে এই অ্যাপের প্রচার সে ভাবে দেখা যায় না। ভুট সম্পর্কে ভারতীয়দের এই মনোভাবই বদলাতে চায় ভায়াকম। তবে আইপিএল ভুটেই দেখানো হবে, নাকি অন্য কোনও অ্যাপ বাজারে আনা হবে, সে সম্পর্কে কিছু পরিষ্কার করা হয়নি।

Advertisement

ভায়াকমের গ্রাহক পেতে সমস্যা হওয়ার কথা নয়। কারণ তারা যাদের অধীনে, সেই রিলায়েন্সের হাতেই রয়েছে জিয়ো। এখন জিয়োর হাতে রয়েছে ৪০ কোটি গ্রাহক। তাঁদের মধ্যে ৩০ কোটি স্মার্টফোন ব্যবহার করেন। এই গ্রাহকদের আকর্ষণীয় মূল্যে ভুটের গ্রাহক হওয়ার প্রস্তাব দিতে পারে ভায়াকম। অন্য মোবাইল সংস্থার গ্রাহকদেরও ভুটে আসার জন্য লোভনীয় অফার দেওয়া হতে পারে। তবে একটি বাধা অবশ্যই রয়েছে। এত টাকা দিয়ে ডিজিটাল স্বত্ব কেনার পর ওটিটি প্ল্যাটফর্মের গ্রাহক হওয়ার জন্য সর্বনিম্ন মূল্য বাড়ানো হতে পারে। ফলে সাধারণ মানুষকে গ্যাঁটের কড়ি একটু বেশিই খরচ করতে হবে। আগে যে টাকায় হটস্টারের গ্রাহক হয়ে সহজেই আইপিএল এবং অন্য সিনেমা দেখা যেত, এখন আর তা থাকছে না।

আরও একটি ব্যাপার রয়েছে। শুধুমাত্র আইপিএলের ম্যাচ দেখার জন্য ওটিটি প্ল্যাটফর্মে আলাদা প্ল্যান নিয়ে আসতে পারে ভায়াকম। এতে সিনেমা বা ওয়েবসিরিজ দেখা যাবে না। তবে পুরোটাই নির্ভর করছে ভায়াকমের শীর্ষকর্তাদের ব্যবসায়িক মানসিকতার উপর। আরও বেশি গ্রাহক আনতে কোন পথে এগোবেন তারা, তা সময়ই বলে দেবে।

সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ

Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.