Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
PCB

PCB: পিছু হটল পাকিস্তান, ভারতকে বাদ দিয়ে টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতার ভাবনা

পরিকল্পনায় ভারতকে রাখলে প্রতিযোগিতা সফল হওয়া নিয়ে সংশয় রয়েছে পিসিবি কর্তাদের। তাই ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতার ভাবছেন তাঁরা।

পিসিবি চেয়ারম্যান রামিজ রাজা।

পিসিবি চেয়ারম্যান রামিজ রাজা। ফাইল ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৯ জুন ২০২২ ১৫:৫৮
Share: Save:

শেষ পর্যন্ত ভারতকে বাদই দিয়ে দিল পাকিস্তান। চার দেশের বদলে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ত্রিদেশীয় প্রতিযোগিতা আয়োজন করতে চায় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। অন্য দু’টি দল হবে অস্ট্রেলিয়া এবং ইংল্যান্ড। আইসিসি-র কাছে এই প্রতিযোগিতার জন্য নির্দিষ্ট সময়ের দাবি জানাবে পিসিবি।

২০২৩ থেকে ২০২৭ সাল পর্যন্ত প্রতি বছর ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতার জন্য সময় চায় পাকিস্তান। কমনওয়েলথ গেমসের সময় বার্মিংহ্যামে আইসিসি-র সভায় এই দাবি জানাবেন রামিজ। প্রথমে চতুর্দেশীয় প্রতিযোগিতা আয়োজনের কথা ভেবেছিল পিসিবি। সেই পরিকল্পনায় ছিল ভারত। কিন্তু ভারত-পাকিস্তানের শীতল রাজনৈতিক এবং কূটনৈতিক সম্পর্কের জন্য সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হওয়া নিয়ে নিশ্চিত নন পিসিবি কর্তারা। তাই ভারতকে বাদ দিয়ে ত্রিদেশীয় প্রতিযোগিতা করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

পিসিবির এক কর্তা বলেছেন, ‘‘আইসিসির ঠাসা সূচি থেকে সময় বের করা কঠিন। তাও আমরা আশাবাদী। বছরে কয়েকটা দিন পাওয়া যেতেই পারে। পিসিবি সব কিছু খতিয়ে দেখছে। পরিকল্পনা চূড়ান্ত হলে রামিজ বিস্তারিত জানাবেন। ওঁর সঙ্গে বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়-সহ সব বোর্ডের কর্তাদের সম্পর্ক বেশ ভাল। আমরা আশা করছি, আগামী বছর থেকে প্রতিযোগিতা করতে সমস্যা হবে না।’’

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড আইপিএলের জন্য আইসিসির বৈঠকে বেশি সময় চাইতে পারে। পাকিস্তানও ত্রিদেশীয় প্রতিযোগিতা নিয়ে নির্দিষ্ট সময় চাইবে। পিসিবি সভাপতি এর মধ্যেই ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া এবং ইসিবির সঙ্গে প্রাথমিক আলোচনা করেছেন। দুই বোর্ডই ইতিবাচক সাড়া দিয়েছে বলে দাবি পিসিবির ওই কর্তার। যদিও ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজ অদূর ভবিষ্যতে সম্ভব নয় বলেই মনে করেন রামিজরা।

অন্য দিকে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ইংল্যান্ডের সঙ্গে সাতটি কুড়ি ওভারের ম্যাচের সিরিজ খেলবে পাকিস্তান। সেই সিরিজের ম্যাচগুলি দু’তিনটি শহরের মধ্যে আয়োজন করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। প্রথমে মুলতান, ফৈজলাবাদের মতো ছোট কেন্দ্রগুলিতেও ম্যাচ আয়োজনের কথা ভাবা হয়েছিল। কিন্তু ইংল্যান্ড দল বেশি শহরে ঘুরে খেলতে রাজি নয়। জুলাই-অগস্ট মাসে ইসিবির প্রতিনিধি দল নিরাপত্তা-সহ সব কিছু খতিয়ে দেখতে পাকিস্তানে আসবে।

সাত ম্যাচের সিরিজ হতে পারে ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে ২ অক্টোবরের মধ্যে। করাচি, লাহৌর ছাড়া রাওয়ালপিণ্ডিতে হতে পারে টি-টোয়েন্টি ম্যাচগুলি। উল্লেখ্য, দীর্ঘ ১৭ বছর পর পাকিস্তান সফরে আসবে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE