Advertisement
০১ মার্চ ২০২৪
Indian Cricket team

সেমিফাইনালে রোহিতদের দলে বড় বদলের ইঙ্গিত, একাধিক ক্রিকেটারের খেলায় দল অখুশি

কেউ কেউ হয়তো সুযোগ পাবেন না ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে। কারণ, দল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে উঠলেও একাধিক ক্রিকেটারের পারফরম্যান্স অত্যন্ত সাধারণ।

দলের একাধিক ক্রিকেটারের পারফরম্যান্সে খুশি নন কোচ দ্রাবিড়।

দলের একাধিক ক্রিকেটারের পারফরম্যান্সে খুশি নন কোচ দ্রাবিড়। ছবি: টুইটার।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০৭ নভেম্বর ২০২২ ১৯:০৯
Share: Save:

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার সেমিফাইনাল খেলতে নামছে রোহিত শর্মার ভারত। রোহিতদের প্রথম একাদশে একাধিক পরিবর্তন হতে পারে। ইঙ্গিত সেরকমই।

যে ক্রিকেটাররা দলকে শেষ চারে তুললেন, তাঁদের কেউ কেউ হয়তো সুযোগই পাবেন না ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে। কারণ, দল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে উঠলেও একাধিক ক্রিকেটারের পারফরম্যান্স অত্যন্ত সাধারণ। যেমন অধিনায়ক রোহিত শর্মা রানই করতে পারছেন না। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ৪, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ১৫, বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ২ এবং জ়িম্বাবোয়ের ১৫ রান করেছেন রোহিত। রান নেই হার্দিক পাণ্ড্যর ব্যাটেও। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ৪০ রান বাদ দিলে এখনও পর্যন্ত তাঁর অবদান মোট ২৫ রান। প্রত্যাশিত পারফরম্যান্স করতে পারছে না ভারতের ওপেনিং জুটিও। রোহিত বা লোকেশ রাহুলের এক জন প্রতি ম্যাচেই সাজঘরে ফিরেছেন প্রথম পাঁচ ওভারের মধ্যেই। অর্থাৎ, পাওয়ার প্লের সুবিধা ঠিক মতো কাজেই লাগাতে পারছে না ভারত। হার্দিক ছাড়া আর এক অলরাউন্ডার অক্ষর প্যাটেলও প্রত্যাশা পূরণ করতে ব্যর্থ। তাঁর ব্যাটে রান নেই। বল হাতেও প্রচুর রান দিচ্ছেন। স্পিনারদের পারফরম্যান্স নিয়েও উঠছে প্রশ্ন।

দলে পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিয়েছেন ভারতীয় দলের কোচ রাহুল দ্রাবিড়ও। দলের একাধিক ক্রিকেটারের পারফরম্যান্সে তিনি খুশি নন। গ্রুপ পর্বের পরিকল্পনার সঙ্গে নকআউট পর্বের পরিকল্পনার অনেক পার্থক্য দেখা যাবে বলে জানিয়েছেন দ্রাবিড়। জ়িম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে ম্যাচের পর দ্রাবিড় বলেছেন, ‘‘আমি সব সময় খোলা মনে ভাবি। দলের ১৫ জনই আমার কাছে সমান। সকলেই প্রথম একাদশে আসতে পারে। বিশ্বাস করি, যথেষ্ট যোগ্যতা রয়েছে বলেই এই ১৫ জন বিশ্বকাপের দলে রয়েছে। যে কোনও ১১জনকে নিয়ে দল তৈরি করা যেতে পারে। তাতে আমাদের শক্তির কোনও পার্থক্য হবে না। দলের সকলের পারফরম্যান্সের উপরে নজর রয়েছে আমার। অ্যাডিলেডে খেলা বেশ কিছু ম্যাচের ভিডিয়ো দেখেছি। ওখানকার উইকেট একটু মন্থর। বল একটু থমকে ব্যাটে আসে। উইকেটে স্পিনও আছে। আমাদের অবশ্যই নির্দিষ্ট কিছু পরিকল্পনা থাকবে।’’

সেমিফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে কি পরীক্ষা করা ঠিক হবে? পরীক্ষার কথা মানতে চাননি দ্রাবিড়। তবে সেমিফাইনালের প্রথম একাদশে পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিয়ে বলেছেন, ‘‘আমরা হয়তো ১০ নভেম্বর অ্যাডিলেডে অন্যরকম দল নিয়ে খেলব। সত্যি বলতে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ম্যাচটায় আমাদের স্পিন আক্রমণ এক দমই কার্যকর হয়নি। তা ছাড়া এ বার অন্য উইকেটে খেলতে হবে। সেই মতো পরিকল্পনা করতে হবে। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অ্যাডিলেডের যে উইকেটে খেলেছিলাম, সেমিফাইনাল সেই উইকেটে হবে না। কী হতে পারে তা ভেবে আমি কি হাত গুটিয়ে বসে থাকতে পারি?’’

তবে কি যুজবেন্দ্র চহালকে দেখা যাবে সেমিফাইনালের প্রথম একাদশে? সরাসরি মন্তব্য করতে চাননি দ্রাবিড়। ভারতীয় দলের কোচ বলেছেন, ‘‘আমাদের হাতে কয়েকটা দিন রয়েছে। উইকেট দেখে পরিকল্পনা করব। যেটা প্রয়োজন মনে হবে সেটাই করা হবে। উইকেট মন্থর হলে আমাদের পরিকল্পনা সে রকম হবে। যে দল নিয়ে খেললে ওই উইকেটে সবথেকে কার্যকর হবে, তেমন দল নিয়েই খেলব আমরা। দরকারে ম্যাচের দিন সকাল পর্যন্ত অপেক্ষা করব প্রথম একাদশ বেছে নেওয়ার জন্য।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE