Advertisement
০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
T20 World Cup 2022

‘আমি কি দ্রাবিড়?’ সাংবাদিকের কোন প্রশ্নে অগ্নিশর্মা অশ্বিন?

আগে কখনও বছরের এই সময়ে অস্ট্রেলিয়া সফরে যায়নি ভারত। তাই ভারতীয় দলের কাছে এই সময়ের অস্ট্রেলিয়ার আবহাওয়া অপরিচিত। অস্ট্রেলিয়ার উইকেটের বাউন্স এবং গতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে চান অশ্বিনরা।

সাংবাদিকের প্রশ্নে মেজাজ হারালেন অশ্বিন।

সাংবাদিকের প্রশ্নে মেজাজ হারালেন অশ্বিন। ছবি: টুইটার।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ১০ অক্টোবর ২০২২ ২০:০৫
Share: Save:

অস্ট্রেলিয়ার উইকেটের সঙ্গে ক্রিকেটারদের মানিয়ে নেওয়ার সুযোগ দিতে একাধিক প্রস্তুতি ম্যাচের ব্যবস্থা করেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। সোমবার প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে রোহিত শর্মাদের প্রতিপক্ষ ছিল পশ্চিম অস্ট্রেলিয়া একাদশ। সেই ম্যাচের পরেই এক সাংবাদিকের প্রশ্ন শুনে রেগে লাল হয়ে গেলেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

Advertisement

প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে বিরাট কোহলি এবং সহ-অধিনায়ক লোকেশ রাহুলকে ছাড়াই মাঠে নামে ভারত। কোহলি এবং রাহুল কেন খেলছেন না, তা নিয়ে ভারতীয় দলের পক্ষ থেকে কিছু জানানো হয়নি। শুরু হয় জল্পনা। প্রশ্ন ওঠে কেন খেলছেন না প্রথম একাদশের দুই গুরুত্বপূর্ণ সদস্য? অন্যদের খেলার সুযোগ দিতে, না কি তাঁদের কোনও সমস্যা হয়েছে? ম্যাচের পর এক সাংবাদিক বিষয়টি সরাসরি জিজ্ঞেস করেন অশ্বিনকে। প্রশ্ন শুনেই রেগে যান অফ স্পিনার। সাফ বলেন, ‘‘আশা করি এক দিন আমি রাহুল দ্রাবিড়ের জায়গা নিতে পারব। তখন আপনার এই প্রশ্নের উত্তর দেব। আপাতত আপনি নিজের মতো করে অনুমান করে নিন।’’

অশ্বিন দেশের মাঠে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার মাঠে খেলার তুলনা করতে চান না। ভারতীয় দলের সদস্যরা রবিবার অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ডের খেলা দেখেছেন গুরুত্ব দিয়ে। অশ্বিন বলেছেন, ‘‘টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বোলারদের মার খেতেই হবে। ভারতের মাঠগুলোয় বাউন্ডারি লাইন ৩০ গজের বৃত্তের বেশি দূরে হয় না। কিন্তু এখানকার মাঠগুলো তেমন নয়। এটা মাথায় রাখা দরকার বল করার সময়। এখানে মাঠগুলো বড়। বাউন্ডারিও দূরে দূরে। তাই বোলাররা একটু সাহসী হতেই পারে। এখানকার উইকেটে বল করার সঠিক লেংথ কী, সেটা জেনে নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ।’’

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরুর এত আগে দল কেন অস্ট্রেলিয়ায় চলে এল? অশ্বিন বলেছেন, ‘‘ঠিক দু’সপ্তাহ বাকি রয়েছে বিশ্বকাপ শুরুর। এই প্রতিযোগিতার গুরুত্ব আমরা জানি। সে ভাবেই প্রস্তুতি নিচ্ছি সকলে। বছরের এ রকম সময়ে আগে আমরা অস্ট্রেলিয়া সফরে আসিনি। সে জন্যই এ বার কিছু দিন আগে চলে এসেছি আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নিতে। এখানকার উইকেটের গতি এবং বাউন্সের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়াও লক্ষ্য আমাদের।’’ অশ্বিন মনে করেন না একটা দল অতীতে কোন দেশে কত বার সফর করেছে, তার উপর ক্রিকেটের পারফরম্যান্স নির্ভর করে। কারণ সময়, পরিস্থিতি, ক্রিকেটার সব কিছুই পরিবর্তন হয়ে যায়। বলেছেন, ‘‘গত দশকে আমরা অস্ট্রেলিয়ায় প্রচুর ক্রিকেট খেলেছি। সাদা বলের ক্রিকেটে আমাদের পারফরম্যান্সও ভাল ছিল। সেই অভিজ্ঞতা কাজে লাগানোর চেষ্টা করব আমরা।’’

Advertisement

২৩ অক্টোবরের ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে আগাম কোনও মন্তব্য করতে রাজি নন অশ্বিন। অফস্পিনার বলেছেন, ‘‘বিভিন্ন কারণে আমাদের মধ্যে বেশি খেলা হয় না। তাই যখন হয় তখন দু’দেশের মানুষই এই ম্যাচটার দিকে তাকিয়ে থাকেন। আমরা শুধু ক্রিকেট নিয়ে ভাবি। দু’দেশের মধ্যে রাজনৈতিক উত্তেজনা বা অন্য সমস্যা নিয়ে নয়। জয় বা পরাজয় খেলারই অঙ্গ। আমরা সে ভাবেই দেখি।’’ দু’দলের ক্রিকেটারদের মধ্যে পারস্পরিক শ্রদ্ধা রয়েছে বলে জানিয়েছেন অশ্বিন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.