Advertisement
২৬ জুন ২০২৪
WPL 2023

নিলাম শেষ, কোটিপতির ক্লাবে ঢুকলেন ক’জন ক্রিকেটার? তালিকায় ভারতীয় কারা?

সোমবার মুম্বইয়ে হয়ে গেল মহিলাদের প্রিমিয়ার লিগের নিলাম। সেই নিলামে প্রতিটি ফ্র্যাঞ্চাইজিই নিজেদের গুছিয়ে নিল। অনেক ক্রিকেটার রাতারাতি কোটিপতি হয়ে গেলেন।

pic of auction

নিলামের টেবিলে জয়বর্ধনে, নীতা অম্বামী, ঝুলন গোস্বামীরা। ছবি: বিসিসিআই

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ২০:৫২
Share: Save:

শুরুটা হয়েছিল স্মৃতি মন্ধানাকে দিয়ে। একে একে সেই কোটিপতি ক্লাবে ঢুকে পড়লেন আরও ১৯ জন। সব মিলিয়ে ডব্লিউপিএল নিলামে ২০ জন ক্রিকেটার কোটিপতি হলেন। এঁদের মধ্যে ১০ জন ভারতীয় এবং ১০ জন বিদেশি। সেই বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে বেশি দাম পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার মহিলা ক্রিকেটাররা। ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং নিউ জ়িল্যান্ডের ক্রিকেটাররাও কোটিপতির ক্লাবে রয়েছেন।

নিলামে প্রথমে ওঠে স্মৃতির নাম। তাঁকে নিয়ে বিডিং শুরু করে দিল্লি। তার পরে লড়াই করতে থাকে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু এবং মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। শেষ পর্যন্ত মুম্বইকে টপকে স্মৃতি দলে তুলে নেয় বেঙ্গালুরু। তিন কোটি ৪০ লক্ষ টাকা দিয়ে কেনে তাঁরা। হরমনপ্রীত তাঁর প্রায় অর্ধেক দামে বিক্রি হয়েছে। মুম্বই তাঁকে কিনেছে এক কোটি ৮০ লক্ষ টাকায়। উল্লেখ্য, ভারতীয় দলের অধিনায়ক হরমনপ্রীতের থেকে আরও ছ’জন ভারতীয় বেশি দাম পেয়েছেন।

ভারতীয়দের মধ্যে স্মৃতি এবং হরমনপ্রীত ছাড়াও কোটিপতি হয়েছেন দীপ্তি শর্মা, জেমাইমা রদ্রিগেস, শেফালি বর্মা, পূজা বস্ত্রকর, রিচা ঘোষ, রেণুকা সিংহ ঠাকুর, যস্তিকা ভাটিয়া এবং দেবিকা বৈদ্য। বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে কোটিপতি হয়েছেন অ্যাশলে গার্ডনার, ন্যাট শিভার, বেথ মুনি, সোফি এক্লেস্টোন, এলিস পেরি, মারিজেন ক্যাপ, তাহলিয়া ম্যাকগ্রাথ, মেগ ল্যানিং, শবনিম ইসমাইল এবং অ্যামেলিয়া কের।

নিলামের মাঝে আরসিবি-র ক্রিকেট ডিরেক্টর মাইক হেসন বলেছেন, “প্রত্যেকেই মন্ধানা এবং পেরির গুরুত্ব জানে। যে দু’জনকে নিতে চেয়েছিলাম তাঁদের পেয়েছি। সঠিক মানের ক্রিকেটার পাওয়ার লক্ষ্য পূরণ হয়েছে। তবে একসঙ্গে মন্ধানা, পেরি এবং (সোফি) ডিভাইনকে পাওয়া স্বপ্নের মতো ব্যাপার। স্মৃতির অধিনায়কত্বের অভিজ্ঞতা রয়েছে। তাই নেতৃত্ব দেওয়ার ব্যাপারে ও-ই এগিয়ে।”

মন্ধানা বলেছেন, “আমরা ছেলেদের আইপিএলের নিলাম দেখছিলাম। কিন্তু মেয়েদের নিয়েও নিলাম হবে ভাবতে পারিনি। গোটা ব্যাপারটাই উত্তেজনার মতো। আরসিবি-র লম্বা ইতিহাস রয়েছে। অনেক সমর্থক। আশা করি সবাই মিলে একটা ভাল দল তৈরি করতে পারব।” দীপ্তি বলেছেন, “সব মহিলা ক্রিকেটাররাই এই দিনটার জন্যে অপেক্ষা করছিল। আমি উত্তর প্রদেশের মেয়ে। সেই রাজ্যের দলের হয়েই খেলতে পারব ভেবে আনন্দ হচ্ছে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE