×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২২ জুন ২০২১ ই-পেপার

জোর লেগে গেল দক্ষিণ আফ্রিকা-অস্ট্রেলিয়ার, ক্রিকেট সফর বাতিল নিয়ে সম্পর্ক তলানিতে

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১১:৩০
স্মিথ-ডুপ্লেসির দেশের সংঘাত চরমে।

স্মিথ-ডুপ্লেসির দেশের সংঘাত চরমে।
ছবি টুইটার

শেষ মুহূর্তে এসে যে ভাবে সফর বাতিল করেছে অস্ট্রেলিয়া, তাতে প্রবল চটেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ফাফ ডুপ্লেসির দেশের তরফে কড়া ভাষায় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে চিঠি লিখে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, এ ধরনের ঘটনা অত্যন্ত অপ্রত্যাশিত। পিছিয়ে নেই অস্ট্রেলিয়াও। তারাও জানিয়ে দিয়েছে, ক্রিকেটারদের স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ জন্য তারা মোটেই অনুতপ্ত নয়। সব মিলিয়ে, সফর বাতিল নিয়ে দু’দেশের মধ্যে ক্রিকেট মাঠের বাইরে লেগে গিয়েছে জোর লড়াই।

গত বার দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে গিয়ে বল বিকৃতি কাণ্ডে নির্বাসিত হয়েছিলেন ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভ স্মিথ এবং ক্যামেরন ব্যানক্রফট। শুধু তাই নয়, প্রথম টেস্টে ড্রেসিংরুমে কুইন্টন ডিকক এবং ওয়ার্নারের হাতাহাতির ঘটনাও ছিল। এ বার ক্রিকেট মাঠে সেই লড়াই দেখা না গেলেও মাঠের বাইরে চর্চা কম হচ্ছে না। অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ডকে কড়া ভাষায় চিঠি লিখে দক্ষিণ আফ্রিকা জানিয়েছে, ক্রিকেটারদের কথা মাথায় রেখে ভাইরাস রোখার সমস্ত ব্যবস্থা করা সত্ত্বেও সিরিজ বাতিল হওয়ায় তারা হতাশ।

দক্ষিণ আফ্রিকা বোর্ডের ডিরেক্টর অফ ক্রিকেট তথা প্রাক্তন অধিনায়ক গ্রেম স্মিথ বলেছেন, “অস্ট্রেলিয়ার চাহিদা যাতে মেটাতে পারি তার জন্য গত কয়েক সপ্তাহ ধরে আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছিলাম আমরা। অনেক লম্বা সফর হওয়ায় আমাদের দায়িত্বও বেশি ছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে সফর বাতিল করা অত্যন্ত হতাশাজনক।”

Advertisement

এদিকে, অনেকেই আশঙ্কা করেছিলেন আর্থিক ভাবে ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকায় দক্ষিণ আফ্রিকা সফর বাতিল করেছে অস্ট্রেলিয়া। এই জল্পনা উড়িয়ে দিয়েছেন বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত সিইও নিক হকলি। বলেছেন, “ডাক্তারদের উপদেশ মেনেই সফর বাতিল করা হয়েছে। এর সঙ্গে অর্থের কোনও যোগাযোগ নেই। ভবিষ্যতে সময় এলে নিশ্চয়ই সফর করা হবে।”

Advertisement