Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

এশিয়াডে না সোমদেবের

ভারতের বিরুদ্ধে ডেভিস কাপে জকোভিচ

সোমদেব দেববর্মনের আসন্ন এশিয়াড থেকে সরে দাঁড়ানোর দিনেই নোভাক জকোভিচের পরের সপ্তাহে ভারতের বিরুদ্ধে ডেভিস কাপ ম্যাচ খেলার সিদ্ধান্তে একটা বড়

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৪ ০৩:৪২

সোমদেব দেববর্মনের আসন্ন এশিয়াড থেকে সরে দাঁড়ানোর দিনেই নোভাক জকোভিচের পরের সপ্তাহে ভারতের বিরুদ্ধে ডেভিস কাপ ম্যাচ খেলার সিদ্ধান্তে একটা বড় প্রশ্ন উঠে গিয়েছে টেনিসমহলে।

বছরভর পেশাদার সার্কিটের রগড়ানির মধ্যেও দেশের হয়ে খেলা বা না-খেলা, কোনটা ঠিক?

সোমদেব বেঙ্গালুরুতে ১২-১৪ সেপ্টেম্বর ডেভিস কাপে দেশের হয়ে খেলবেন, কিন্তু তার পাঁচ দিন পরেই ইনচিওনে এশিয়ান গেমসে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করবেন না বলে বুধবারই এআইটিএ-কে জানিয়েছেন। যার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে আন্তর্জাতিক টেনিস ফেডারেশনের (আইটিএফ) ওয়েবসাইটে জানানো হয়, যুক্তরাষ্ট্র ওপেন শেষ হওয়ার পরপরই জকোভিচ ডেভিস কাপ খেলতে বেঙ্গালুরু যাচ্ছেন। শুধু তাই নয়, আগামী সপ্তাহে ডেভিস কাপের দুটো সেমিফাইনাল ও আটটা ওয়ার্ল্ড গ্রুপ প্লে-অফ ম্যাচ মিলিয়ে বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে প্রথম দশ মহাতারকার মধ্যে ছ’জনকে দেশের হয়ে খেলতে দেখা যাবে।

Advertisement

তার পরেই এই প্রশ্নটা আরও উঠছে যে, সোমদেবের সিদ্ধান্ত ঠিক, না জকোভিচের?

এআইটিএ সচিব ভরত ওঝা ভারতের এক নম্বর সিঙ্গলস প্লেয়ারের সিদ্ধান্তের তীব্র সমালোচনা করে বলেছেন, “দুর্ভাগ্যজনক যে, এই সিদ্ধান্তে দেশের স্বার্থ দেখা হল না। ও গত এশিয়াডে জোড়া সোনা জিতেছিল। আমরা ওকে অন্তত এ বার টিম চ্যাম্পিয়নশিপটা খেলে দিতে বারবার অনুরোধ করেছিলাম। কিন্তু ও একেবারে অনড়। এর ফলে টেনিসে ভারতের পদক জয়ের সম্ভাবনা কমে গেল।” সোমদেবের ব্যাখ্যা, তাঁর এটিপি র‌্যাঙ্কিং ১৪৩-এ নেমে গিয়েছে। ফলে তিনি এখন এটিপি সার্কিটে বেশি মনোনিবেশ করতে চান। নইলে বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং আরও নেমে গিয়ে পরের বছর পেশাদার সার্কিটে ভাল টুর্নামেন্টে খেলার সুযোগ পাওয়া তার পক্ষে কঠিন হয়ে যাবে। কিন্তু এক মাসের মধ্যে দু’বার দেশের হয়ে খেলতে গেলে তাঁর পক্ষে পেশাদার ট্যুর সার্কিটে বাড়তি মনোনিবেশ করা সম্ভব নয়। সে কারণে তিনি ডেভিস কাপে খেললেও এশিয়াডে থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন।

জয়দীপ মুখোপাধ্যায়ের মতো প্রাক্তন তারকা ডেভিসকাপার বা বর্তমান ভারতীয় ডেভিস কাপ দলের কোচ জিশান আলি অবশ্য সোমদেবকে সমর্থন করছেন। ভারতের প্র‌্যাকটিস শুরুর পাঁচ দিন আগেই জিশান বেঙ্গালুরু পৌঁছে গিয়েছেন যাবতীয় প্রস্তুতি দেখভাল করতে। সেখান থেকে এ দিন মোবাইলে বললেন, “দেশের প্রতি সোমদেবের দায়বদ্ধতা নেই, এটা মানতে পারছি না। ও তো নিয়মিতই ডেভিস কাপে খেলে। তা ছাড়া, একজন পেশাদার প্লেয়ার কোন টুর্নামেন্টটা খেলবে, কোনটা খেলবে না, সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার একান্তই তার নিজের। তবে হ্যাঁ, সোমদেবের অনুপস্থিতিতে এশিয়াডে আমাদের টেনিস দলের শক্তি অনেকটাই কমে যাবে।”



জয়দীপ আবার বলছেন, “মনে রাখতে হবে, সোমদেবের জন্যই ভারত আজ ডেভিস কাপের প্লে-অফ রাউন্ডে উঠেছে। আগের দু’টো টাইয়েই ও ভাল পারফরম্যান্স করে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছে। আর টেনিসে দেশের হয়ে খেলা বলতে ডেভিস কাপই বোঝায়। প্রতি মরসুমে বছরভর হয়। এশিয়াড, অলিম্পিক, এ সব তো চার বছরে এক বার আসে! তা ছাড়া, সেই বিয়র্ন বর্গের সময় থেকে চল্লিশ বছর হতে চলল, ডেভিস কাপেই বিশ্বের সেরা টেনিস প্লেয়াররা নিয়মিত খেলা ছেড়ে দিয়েছে। তাদের কাছে পেশাদার সার্কিটই আসল। কারণ টেনিস মূলত ব্যক্তিগত খেলা। সেটা খেলেই এরা রোজগার করে।”

কিন্তু প্রশ্ন উঠছে যে, এই তত্ত্ব আবার বিশ্বের বর্তমান এক নম্বরের ক্ষেত্রে খাটছে না! জকোভিচ যখনই সার্বিয়ার কোনও গুরুত্বপূর্ণ ডেভিস কাপ ম্যাচ এসেছে, দেশের হয়ে খেলেছেন। সেটা ফাইনাল হোক বা এ বারের মতো প্লে-অফ টাই হোক। ইদানীং সার্বিয়া ডেভিস কাপে ন্যূনতম কোয়ার্টার ফাইনালের কম খেলেনি। বেঙ্গালুরুতে হেরে গেলে তারা অনেক বছরের মধ্যে এই প্রথম ওয়ার্ল্ড গ্রুপ থেকে ছিটকে যাবে। টেনিসমহলের মতে, সে জন্যই দেশকে ডেভিস কাপে কুলীনদের মধ্যে রাখতে বিশ্বের এক নম্বর তারকা যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের ক্লান্তি নিয়েও ভারতে আসছেন।

এবং সঙ্গে এই প্রশ্ন নিয়ে যে, সোমদেব ঠিক, না জকোভিচ?

আরও পড়ুন

Advertisement