Advertisement
২৬ নভেম্বর ২০২২
football

English Footballer: যৌনকর্মীর সঙ্গে প্রেম, স্ত্রীর ধোলাই খেলেন জাতীয় দলের ফুটবলার

সন্তানের সঙ্গে খেলার সময়ই ফোনে ঢোকে একের পর এক অশ্লীল ছবি। দেখে ফেলেন স্ত্রী। গোপন সম্পর্ক আর গোপন রাখতে পারলেন না ফুটবলার।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ১১ জুন ২০২২ ১৮:১৭
Share: Save:

স্ত্রীর রোষানলে ইংল্যান্ড জাতীয় দলের এক ফুটবলার। এক যৌনকর্মীর সঙ্গে প্রেম করে হাতেনাতে ধরা পড়েছেন তিনি। সেই ফুটবলারের নাম প্রকাশ করা হয়নি। তবে ইংল্যান্ডের সংবাদপত্রগুলিতে ফলাও করে ছাপা হয়েছে ঘটনার কথা।

Advertisement

বাড়িতে ছোট্ট সন্তানের সঙ্গে খেলছিলেন ওই ফুটবলার। তখনই বিপত্তি। তাঁর মোবাইলে ঢুকতে শুরু করে একের পর এক অশ্লীল ছবি। নিজের নানা রকম লাস্যময় ছবি পাঠাচ্ছিলেন এক সুন্দরী মহিলা। ছবিগুলি দেখে ফেলেন ওই ফুটবলারের স্ত্রী। দেখেই তিনি অগ্নিশর্মা। তাঁর স্বামীকে এই সব ছবি পাঠাচ্ছেন কে? কে এই মহিলা?

ফুটবলার স্বামীকে ড্রিবল করার কোনও সুযোগই দেননি তিনি। একের পর এক প্রশ্নবাণে জর্জরিত করতে থাকেন। স্ত্রীর জেরার সামনে সত্য স্বীকার করতে বাধ্য হন ইংল্যান্ডের জাতীয় দলের ওই ফুটবলার। মেনে নেন, অশ্লীল ছবি পাঠানো ওই মহিলা একজন যৌনকর্মী। সাত মাসের সম্পর্ক তাঁদের। এই সময়ে ওই যৌনকর্মীকে তিনি ভারতীয় মুদ্রায় দিয়েছেন প্রায় ৩৪ লক্ষ টাকা। শর্ত হল যখন ওই ফুটবলার ফাঁকা থাকবেন, তখন তাঁকে সঙ্গ দিতে হবে ওই যৌনকর্মীকে।

তাছাড়া ইংল্যান্ডের জাতীয় দলের ওই ফুটবলার প্রায় সাড়ে ১৯ লক্ষ টাকার উপহার দিয়েছেন ওই যৌনকর্মীকে। দু’লক্ষ ৪০ হাজার টাকা মূল্যের গয়না দিয়েছেন। বিলাসবহুল হোটেলে রাত কাটিয়েও খরচ করেছেন কয়েক লক্ষ টাকা। অসুস্থ মাকে দেখতে যাওয়ার নাম করে ওই যৌনকর্মীর সঙ্গে হোটেলে এবং তাঁর বাড়িতে কাটিয়েছেন একাধিক রাত।

Advertisement

স্বামীর মুখে এত কিছু শোনার পর কার্যত স্তম্ভিত হয়ে যান ওই ফুটবলারের স্ত্রী। স্বামীর মোবাইল ঘেঁটে আরও অবাক হন। ম্যাসেঞ্জারে ওই যৌনকর্মীর সঙ্গে স্বামীর দীর্ঘ প্রেমালাপ দেখে আরও রেগে যান তিনি। বুঝতে পারেন কেন তাঁর স্বামী নিজের ফোনটি কিছু দিন ধরে লুকিয়ে লুকিয়ে রাখতেন। কারোর হাতে দিতেন না। কেউ ধরলেও সঙ্গে সঙ্গে নিয়ে নিতেন। এমনকী স্নান করতে যাওয়ার সময়ও সঙ্গে নিয়ে যেতেন মোবাইল ফোন! এর পর নিজেকে আর সামলাতে পারেননি ওই ফুটবলারের স্ত্রী। ফুটবলার স্বামীকে দু’চার ঘা পিটিয়ে দেন।

এ পর্যন্ত বিষয়টা ছিল বাড়ির চার দেওয়ালের মধ্যেই। স্বামী সব কথা ঠিক বলছেন কী না জানতে ইংল্যান্ড জাতীয় দলের স্ত্রীদের হোয়াটস অ্যাপ গ্রুপে বিষয়টি জানান। বেগতিক দেখে কার্যত স্ত্রীর পায়ে পড়েন ওই ফুটবলার। কথা দিয়েছেন ওই যৌনকর্মীর সঙ্গে কোনও রকম যোগাযোগ আর রাখবেন না। ভাল ছেলের মতো সংসারে মন দেবেন। কিন্তু অন্য রকম হলে? শেষ দেখে ছাড়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তাঁর স্ত্রী।

সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ

Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.