Advertisement
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
Indian Football Team

সন্দেশকে বাদ দিয়েই সুনীলরা উড়ে গেলেন ভিয়েতনামে

ভারতীয় তারকার ভিসা নিয়ে সমস্যা তৈরি হয়েছে। সন্দেশের পাসপোর্টের নবীকরণ হয়েছে। ফলে ভিয়েতনাম যাওয়ার জন্য ভিসা পেতে কিছুটা সময় লাগবে বলে জানানো হয়েছে।

পরীক্ষা: স্তিমাচের সামনে নতুন লক্ষ্য ভিয়েতনামে।

পরীক্ষা: স্তিমাচের সামনে নতুন লক্ষ্য ভিয়েতনামে। ফাইল চিত্র।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৭:০৩
Share: Save:

ভিয়েতনাম রওনা হওয়ার আগেই বড় ধাক্কা খেলেন ইগর স্তিমাচ। দলের সঙ্গে যেতে পারছেন না নির্ভরযোগ্য ডিফেন্ডার সন্দেশ ঝিঙ্ঘন।

ভারতীয় তারকার ভিসা নিয়ে সমস্যা তৈরি হয়েছে। সন্দেশের পাসপোর্টের নবীকরণ হয়েছে। ফলে ভিয়েতনাম যাওয়ার জন্য ভিসা পেতে কিছুটা সময় লাগবে বলে জানানো হয়েছে। তা পেলেই তিনি দলের সঙ্গে যোগ দিতে পারবেন। যত দ্রুত সম্ভব, সেই সমস্যা দূর করে সন্দেশকে পাঠানোর উদ্যোগ শুরু হয়েছে। তিনি এখন থাকবেন কলকাতাতেই। তাঁকে ছাড়া মঙ্গলবার ভিয়েতনাম রওনা হল ভারতীয় দল।

হাং তিন প্রতিযোগিতায় দুটি ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলবেন সুনীল ছেত্রীরা। ২৪ সেপ্টেম্বর ভারতের প্রতিপক্ষ সিঙ্গাপুর। ২৭ সেপ্টেম্বর ম্যাচ রয়েছে ভিয়েতনাম দলের বিরুদ্ধে। খাতায়-কলমে ভারতের চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী ভিয়েতনাম দল। তবে ভারতীয় দলের কোচ ইগর স্তিমাচ মনে করেন, আত্মবিশ্বাস নিয়ে লড়াই করতে পারলে জয় অসম্ভব হবে না। তিনি বলেছেন, “নিঃসন্দেহে গত কয়েক বছরে দারুন উন্নতি করেছে ভিয়েতনাম দল। তার উপরে ওরা ঘরের মাটিতে খেলার বাড়তি সুবিধা পাবে। কিন্তু আমরাও চেষ্টা করব ম্যাচ জেতার। তারুণ্যে ভরপুর এই দলের লড়াই করার যথেষ্ট ক্ষমতা রয়েছে। তাই ফলাফল নিয়ে আগাম অনুমান করার পরিবর্তে মাঠে নেমে ইতিবাচক ফুটবল খেলার উপরে জোর দিতে হবে।”

দুই দশক আগে ভিয়েতনাম থেকেই এলজি কাপ জিতে ফিরেছিলেন ভাইচুং ভুটিয়ারা। ফাইনালে গোল করেছিলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক এবং অভিষেক যাদব। সেই সুখস্মৃতি কি আবারও ফিরতে পারে ভিয়েতনামের বিরুদ্ধে? স্তিমাচ মনে করেন, “কঠিন পরীক্ষায় জেতার অন্য একটা তৃপ্তি রয়েছে। আমি বলব, সেটা মাঠে নেমে ফুটবলারদের প্রমাণ করতে হবে।” যদিও ভারতীয় দলের কোচ মেনে নিচ্ছেন, ফুটবলারদের প্রাক মরসুম প্রস্তুতির ঘাটতির বিষয় নিয়ে তাঁরও চাপা উদ্বেগ রয়েছে। তিনি বলেছেন, “প্রাক মরসুম প্রস্তুতি সে ভাবে হয়নি। ফলে এমন পরিস্থিতিতে ফুটবলারদের ঘুরিয়ে ফিরিয়ে খেলাতে পারলেই সমস্যা কাটিয়ে ওঠা সম্ভব বলে মনে করি। তার সঙ্গে লক্ষ্য রাখতে হবে, কেউ যেন চোট না পায়।”

তবে ১৯৯৮ বিশ্বকাপে ক্রোয়েশিয়া জাতীয় দলের প্রাক্তন ডিফেন্ডারকে ভরসা দিচ্ছে জুন মাসে কলকাতায় হয়ে যাওয়া এএফসি এশিয়ান কাপ কোয়ালিফায়ার্সের পারফরম্যান্স। যে প্রসঙ্গ টেনে স্তিমাচ বলেছেন, “কম্বোডিয়া, হংকং এবং আফগানিস্তানকে হারিয়েছিল ভারতীয় দল। এবং সেটাও খুব কম সময়ের ব্যবধানে। ফলে এটা আশা করতেই পারি, এই প্রতিযোগিতাতেও সেই ইতিবাচক এবং লড়াকু মানসিকতা নিয়েই খেলতে নামবে ভারতীয় দল।” যোগ করেন, “ফুটবলাররাও এখন এটা ভালই বুঝে গিয়েছে, শক্তিশালী প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে কী ধরনের ফুটবল খেলতে হয়। তাই আমি বিশ্বাস করি, ভিয়েতনাম শক্তিশালী প্রতিপক্ষ হলেও ওদের বাড়তি সমীহ করার প্রয়োজন নেই।”

ফ্রেন্ডলি ম্যাচের দল নিয়ে ইতিমধ্যে প্রাক্তন ফুটবলাররা তোপ দেগেছেন তাঁর দিকে। তবে তা নিয়ে চিন্তিত নন স্তিমাচ। তিনি বলেছেন, “কাউকেই কিন্তু ছেঁটে ফেলা হয়নি। আমার প্রকৃত দলটা ৪০ জনেরই। প্রতিযোগিতার গুরুত্ব বিচার করে তার মধ্যে থেকে ২৩ ফুটবলারকে বেছে নিতে হয়েছে। দলের প্রত্যেক ফুটবলারের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। ওরাও ভাল জানে, কেন এই দলে তাদের জায়গা হয়নি। এটা নিয়ে এত আলোচনার প্রয়োজন নেই।” বরং স্তিমাচ মনে করেন, ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে ঠিক দিশাতেই এগোচ্ছে ভারতীয় দল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.